একই স্থানে আ’লীগের দুই পক্ষের সভা, ১৪৪ ধারা জারি
jugantor
একই স্থানে আ’লীগের দুই পক্ষের সভা, ১৪৪ ধারা জারি

  বগুড়া ব্যুরো  

০৮ মার্চ ২০২১, ১৯:৩২:২৭  |  অনলাইন সংস্করণ

বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার মহিচরণ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। আওয়ামী আওয়ামী লীগের দুই পক্ষ একই সময় ও স্থানে সমাবেশ আহবান করায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ওই স্কুল মাঠে সোমবার সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত সভা, সমাবেশ আয়োজন বন্ধ করে দেয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাদিয়া আফরিন জানান, সরকারি দল সমর্থিত উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান একই সময় ও স্থানে সমাবেশের ডাক দেওয়ায় সহিংসতার আশংকা দেখা দিলে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

সোনাতলা উপজেলা প্রশাসন ও পুলিশ সূত্র জানায়, আগামী ১৩ মার্চ সোনাতলা উপজেলায় আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক কাউন্সিল। এ উপলক্ষে উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মিনহাদুজ্জামান লীটন সোমবার সকাল ১০টায় স্থানীয় মহিচরণ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে দিগদাইড় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা আহবান করেন।

অপরদিকে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাকির হোসেন একই সময়ে সেখানে ওই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের পাল্টা বর্ধিত সভার আয়োজন করেন।

এতে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতির আশংকা দেখা দেয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাদিয়া আফরিন সোমবার সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত ওই মাঠ ও আশপাশের ৪০০ গজ পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি করেন।

এ প্রসঙ্গে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জানান, আওয়ামী লীগের দুইপক্ষ একই সময় ও স্থানে পাল্টাপাল্টি বর্ধিত সভা আহ্বান করায় সেখানে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। চেয়ারম্যান পক্ষ দূরে কোনো স্কুল মাঠে তাদের বর্ধিত সভা করেছেন। ভাইস চেয়ারম্যান পক্ষ কোথায় সভা করবেন তা জানা যায়নি। তবে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

সোনাতলা থানার ওসি রেজাউল করিম রেজা জানান, মহিচরণ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ এলাকায় অতিরিক্ত ফোর্স মোতায়েন করা হয়েছে। ফোন না ধরায় দুই পক্ষের কারো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

একই স্থানে আ’লীগের দুই পক্ষের সভা, ১৪৪ ধারা জারি

 বগুড়া ব্যুরো 
০৮ মার্চ ২০২১, ০৭:৩২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার মহিচরণ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। আওয়ামী আওয়ামী লীগের দুই পক্ষ একই সময় ও স্থানে সমাবেশ আহবান করায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ওই স্কুল মাঠে সোমবার সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত সভা, সমাবেশ আয়োজন বন্ধ করে দেয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাদিয়া আফরিন জানান, সরকারি দল সমর্থিত উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান একই সময় ও স্থানে সমাবেশের ডাক দেওয়ায় সহিংসতার আশংকা দেখা দিলে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

সোনাতলা উপজেলা প্রশাসন ও পুলিশ সূত্র জানায়, আগামী ১৩ মার্চ সোনাতলা উপজেলায় আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক কাউন্সিল। এ উপলক্ষে উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মিনহাদুজ্জামান লীটন সোমবার সকাল ১০টায় স্থানীয় মহিচরণ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে দিগদাইড় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা আহবান করেন।

অপরদিকে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাকির হোসেন একই সময়ে সেখানে ওই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের পাল্টা বর্ধিত সভার আয়োজন করেন।

এতে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতির আশংকা দেখা দেয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাদিয়া আফরিন সোমবার সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত ওই মাঠ ও আশপাশের ৪০০ গজ পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি করেন।

এ প্রসঙ্গে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জানান, আওয়ামী লীগের দুইপক্ষ একই সময় ও স্থানে পাল্টাপাল্টি বর্ধিত সভা আহ্বান করায় সেখানে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। চেয়ারম্যান পক্ষ দূরে কোনো স্কুল মাঠে তাদের বর্ধিত সভা করেছেন। ভাইস চেয়ারম্যান পক্ষ কোথায় সভা করবেন তা জানা যায়নি। তবে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

সোনাতলা থানার ওসি রেজাউল করিম রেজা জানান, মহিচরণ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ এলাকায় অতিরিক্ত ফোর্স মোতায়েন করা হয়েছে। ফোন না ধরায় দুই পক্ষের কারো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন