মেয়েকে অনৈতিক কাজে বাধ্য করা সেই মা রিমান্ডে
jugantor
মেয়েকে অনৈতিক কাজে বাধ্য করা সেই মা রিমান্ডে

  নোয়াখালী প্রতিনিধি  

০৮ মার্চ ২০২১, ২২:৪৬:৪৯  |  অনলাইন সংস্করণ

বেগমগঞ্জে দুই বছর ধরে মেয়েকে দিয়ে অনৈতিক কাজে বাধ্য করানো সেই মায়ের ২ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন নোয়াখালীর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. শোয়েব উদ্দিন খান।

মামলার বাদী বেগমগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রুহুল আমিন জানান, এ মামলার আসামি বেগমগঞ্জে নির্যাতিতার (১৭)মা বিউটি আক্তারকে অধিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বেগমগঞ্জ থানার ওসি কামরুজ্জামান শিকদার বুধবার আদালতে তিন দিনের রিমান্ডের আবেদন করেন। এর প্রেক্ষিতে সোমবার নোয়াখালীর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. শোয়েব উদ্দিন খান দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।

আসামি পক্ষের আইনজীবী কাজী মীর হোসেন বলেন, তিনি বিউটি আক্তারের রিমান্ডের বিরোধিতা করে জামিনের আবেদন করলে আদালত জামিন নামঞ্জুর করে ২ দিনের রিমান্ডে দিয়েছেন। তবে আসামির শরীরে টাচ না করে সতর্কতার সঙ্গে জিজ্ঞাসা করার জন্য বলেছেন।

বেগমগঞ্জ থানার ওসি কামরুজ্জামান শিকদার জানান, বিউটি আক্তার তার মেয়েকে পতিতাবৃত্তির উদ্দেশ্যে শারীরিক, মানসিক নির্যাতন, জোর করে আটক রেখে পতিতাবৃত্তিতে বাধ্যকরণ, অবৈধভাবে অর্থের বিনিময়ে যৌন শোষণ ও স্থানান্তরিত করে যৌন লালসা চরিতার্থ করেন। এ অপরাধে বেগমগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক রুহুল আমিন বাদী হয়ে নির্যাতিতা মেয়ের মা বিউটি আক্তার, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আনিছুর রহমান, সামছুল আলম, মোজাম্মেল হক, সামছুল আলম রাসেলের বিরুদ্ধে ২ মার্চ মামলা করেন। তিনি নিজে এ মামলার তদন্ত ভার গ্রহণ করে তদন্ত শুরু করেছেন।

উল্লেখ্য, বিউটি আক্তারের নির্যাতিতা মেয়ে (১৭) গত ২৮ ফেব্রুয়ারি নোয়াখালীর অতিরিক্ত চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কাজী সোনিয়া আক্তারের নিকট দেয়া ২২ ধারা জবানবন্দিতে তার মাসহ এ আসামিদের বিরুদ্ধে হৃদয় বিদারক জবানবন্দি দেন। এর সূত্র ধরে বেগমগঞ্জ পুলিশ এ মামলা দায়ের করেছেন বলে পুলিশ সুপার আলমগীর হোসেন জানিয়েছেন।

মেয়েকে অনৈতিক কাজে বাধ্য করা সেই মা রিমান্ডে

 নোয়াখালী প্রতিনিধি 
০৮ মার্চ ২০২১, ১০:৪৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বেগমগঞ্জে দুই বছর ধরে মেয়েকে দিয়ে অনৈতিক কাজে বাধ্য করানো সেই মায়ের ২ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন নোয়াখালীর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. শোয়েব উদ্দিন খান।

মামলার বাদী বেগমগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রুহুল আমিন জানান, এ মামলার আসামি বেগমগঞ্জে নির্যাতিতার (১৭)মা বিউটি আক্তারকে অধিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বেগমগঞ্জ থানার ওসি কামরুজ্জামান শিকদার বুধবার আদালতে তিন দিনের রিমান্ডের আবেদন করেন। এর প্রেক্ষিতে সোমবার নোয়াখালীর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. শোয়েব উদ্দিন খান দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।

আসামি পক্ষের আইনজীবী কাজী মীর হোসেন বলেন, তিনি বিউটি আক্তারের রিমান্ডের বিরোধিতা করে জামিনের আবেদন করলে আদালত জামিন নামঞ্জুর করে ২ দিনের রিমান্ডে দিয়েছেন। তবে আসামির শরীরে টাচ না করে সতর্কতার সঙ্গে জিজ্ঞাসা করার জন্য বলেছেন।

বেগমগঞ্জ থানার ওসি কামরুজ্জামান শিকদার জানান, বিউটি আক্তার তার মেয়েকে পতিতাবৃত্তির উদ্দেশ্যে শারীরিক, মানসিক নির্যাতন, জোর করে আটক রেখে পতিতাবৃত্তিতে বাধ্যকরণ, অবৈধভাবে অর্থের বিনিময়ে যৌন শোষণ ও স্থানান্তরিত করে যৌন লালসা চরিতার্থ করেন। এ অপরাধে বেগমগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক রুহুল আমিন বাদী হয়ে নির্যাতিতা মেয়ের মা বিউটি আক্তার, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আনিছুর রহমান, সামছুল আলম, মোজাম্মেল হক, সামছুল আলম রাসেলের বিরুদ্ধে ২ মার্চ মামলা করেন। তিনি নিজে এ মামলার তদন্ত ভার গ্রহণ করে তদন্ত শুরু করেছেন।

উল্লেখ্য, বিউটি আক্তারের নির্যাতিতা মেয়ে (১৭) গত ২৮ ফেব্রুয়ারি নোয়াখালীর অতিরিক্ত চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কাজী সোনিয়া আক্তারের নিকট দেয়া ২২ ধারা জবানবন্দিতে তার মাসহ এ আসামিদের বিরুদ্ধে হৃদয় বিদারক জবানবন্দি দেন। এর সূত্র ধরে বেগমগঞ্জ পুলিশ এ মামলা দায়ের করেছেন বলে পুলিশ সুপার আলমগীর হোসেন জানিয়েছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন