সাবেক স্ত্রীর জন্য বর্তমান স্ত্রীর মাথা ন্যাড়া করল স্বামী
jugantor
সাবেক স্ত্রীর জন্য বর্তমান স্ত্রীর মাথা ন্যাড়া করল স্বামী

  নড়াইল প্রতিনিধি  

১৪ মার্চ ২০২১, ২২:৫৬:৪৩  |  অনলাইন সংস্করণ

নড়াইলে সাবেক স্ত্রীকে ফিরিয়ে আনার জন্য বর্তমান স্ত্রী জান্নাত আরা সেতুকে তাড়িয়ে দিতে তার মাথা ন্যাড়া করে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন চালানোর অভিযোগ উঠেছে তার স্বামী ও পরিবারের বিরুদ্ধে।

গভীর রাতে স্বামীর বাড়ি থেকে পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। সাবেক স্ত্রীকে ঘরে তুলে আনতেই এমন নির্যাতন করা হয়েছে সেতুর পরিবারের অভিযোগ। তাদের পরিবারে ১টি ছেলে ও ১টি মেয়ে রয়েছে।

দক্ষিণ নড়াইলের হোসেন ইমাম ওরফে তৈয়মুরের মেয়ে জান্নাত আরা সেতু। শহরের দুর্গাপুর এলাকায় গত শুক্রবার গভীর রাতে এ ঘটনা ঘটে।

সেতুর পরিবার জানায়, প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে বিচ্ছেদের পর শহরের দুর্গাপুর মহিলা কলেজ এলাকার নজরুল বিশ্বাসের ছেলে অস্ট্রিয়া প্রবাসী সজিব মুস্তারি সাড়ে চার বছর আগে শহরের দক্ষিণ নড়াইল এলাকার হোসেইন ইমাম তৈমুরের মেয়ে জান্নাত আরা সেতুকে দ্বিতীয় বিয়ে করেন। বিয়ের পর কিছুদিন না যেতেই তার স্বামী পূর্বের স্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ শুরু করে। সেতুও বিষয়টি জানতে পারে। এ অবস্থায় গত সাড়ে চার বছরের দাম্পত্য জীবনে সেতু দুই সন্তানের মা হন।

সেতুর মায়ের অভিযোগ, সজিব মুস্তারি ও তার পরিবারের লোকজন শুক্রবার গভীর রাতে সেতুকে নির্মমভাবে নির্যাতন করে মাথার চুল কেটে ন্যাড়া করে দিয়েছে। পুলিশের সহায়তায় তারা মেয়েকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করেছেন।

নড়াইল সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সেতু বলেন, আমার শরীরের বিভিন্ন জায়গায় নির্মম নির্যাতনের চিহ্ন রয়েছে। চুল এবং ভ্রূ কেটে দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি জোর করে একসঙ্গে অনেক ঘুমের বড়ি খাইয়ে দেয়া হয়।

অভিযুক্ত সজিব মুস্তারি তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, তার মাথার চুল কখন কাটা হয়েছে আমি তার কিছুই জানি না। এসব তার (স্ত্রী) বানানো কথা।

সদর থানার ওসি ইলিয়াস হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় ৩ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান চলছে।

সাবেক স্ত্রীর জন্য বর্তমান স্ত্রীর মাথা ন্যাড়া করল স্বামী

 নড়াইল প্রতিনিধি 
১৪ মার্চ ২০২১, ১০:৫৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নড়াইলে সাবেক স্ত্রীকে ফিরিয়ে আনার জন্য বর্তমান স্ত্রী জান্নাত আরা সেতুকে তাড়িয়ে দিতে তার মাথা ন্যাড়া করে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন চালানোর অভিযোগ উঠেছে তার স্বামী ও পরিবারের বিরুদ্ধে।

গভীর রাতে স্বামীর বাড়ি থেকে পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। সাবেক স্ত্রীকে ঘরে তুলে আনতেই এমন নির্যাতন করা হয়েছে সেতুর পরিবারের অভিযোগ। তাদের পরিবারে ১টি ছেলে ও ১টি মেয়ে রয়েছে। 

দক্ষিণ নড়াইলের হোসেন ইমাম ওরফে তৈয়মুরের মেয়ে জান্নাত আরা সেতু। শহরের দুর্গাপুর এলাকায় গত শুক্রবার গভীর রাতে এ ঘটনা ঘটে। 

সেতুর পরিবার জানায়, প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে বিচ্ছেদের পর শহরের দুর্গাপুর মহিলা কলেজ এলাকার নজরুল বিশ্বাসের ছেলে অস্ট্রিয়া প্রবাসী সজিব মুস্তারি সাড়ে চার বছর আগে শহরের দক্ষিণ নড়াইল এলাকার হোসেইন ইমাম তৈমুরের মেয়ে জান্নাত আরা সেতুকে দ্বিতীয় বিয়ে করেন। বিয়ের পর কিছুদিন না যেতেই তার স্বামী পূর্বের স্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ শুরু করে। সেতুও বিষয়টি জানতে পারে। এ অবস্থায় গত সাড়ে চার বছরের দাম্পত্য জীবনে সেতু দুই সন্তানের মা হন। 

সেতুর মায়ের অভিযোগ, সজিব মুস্তারি ও তার পরিবারের লোকজন শুক্রবার গভীর রাতে সেতুকে নির্মমভাবে নির্যাতন করে মাথার চুল কেটে ন্যাড়া করে দিয়েছে। পুলিশের সহায়তায় তারা মেয়েকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করেছেন। 

নড়াইল সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সেতু বলেন, আমার শরীরের বিভিন্ন জায়গায় নির্মম নির্যাতনের চিহ্ন রয়েছে। চুল এবং ভ্রূ কেটে দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি জোর করে একসঙ্গে অনেক ঘুমের বড়ি খাইয়ে দেয়া হয়। 

অভিযুক্ত সজিব মুস্তারি তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, তার মাথার চুল কখন কাটা হয়েছে আমি তার কিছুই জানি না। এসব তার (স্ত্রী) বানানো কথা।

সদর থানার ওসি ইলিয়াস হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় ৩ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান চলছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন