যৌতুকের দাবিতে স্বামীর নির্যাতনে গৃহবধূর মৃত্যু
jugantor
যৌতুকের দাবিতে স্বামীর নির্যাতনে গৃহবধূর মৃত্যু

  দিনাজপুর প্রতিনিধি  

১৫ মার্চ ২০২১, ১৩:০৫:১৯  |  অনলাইন সংস্করণ

হত্যা

পারিবারিক কলহ ও যৌতুকের জন্য আদুরী বেগম নামে এক গৃহবধূকে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

রোববার রাতে দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলার সিংড়া ইউনিয়নের শীধল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত গৃহবধূ আদুরী বেগম (২১) গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার শহীদুল ইসলামের মেয়ে। অভিযুক্ত আতিয়ার রহমান ঘোড়াঘাট উপজেলার শীধল গ্রামের শাহাদুল ইসলামের ছেলে।

জানা যায়, চার বছর আগে আতিয়ার রহমানের (২৪) সঙ্গে বিয়ে হয় আদুরী বেগমের। বিয়ের কিছু দিন পরেই যৌতুকসহ নানা কারণে স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজনের নির্যাতনের মুখে পড়েন আদুরী। তবে সংসার টিকিয়ে রাখতে সয়ে গেছেন সব নির্যাতন।

রোববার গভীর রাতে স্বামী-স্ত্রীর মারামারি দেখতে পেয়ে স্থানীয় এক ব্যক্তি জাতীয় জরুরি সেবার ৯৯৯ নম্বরে কল দিয়ে বিষয়টি জানান। পরে ঘোড়াঘাট থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আদুরীর মরদেহ উদ্ধার করে। এ ঘটনার পর স্বামী আতিয়ার রহমানকে আটক করা হয়।

ঘোড়াঘাট থানার ওসি আজিম উদ্দিন বলেন, নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় নিহত গৃহবধূর বাবা বাদী হয়ে থানায় মামলা করেছেন।

যৌতুকের দাবিতে স্বামীর নির্যাতনে গৃহবধূর মৃত্যু

 দিনাজপুর প্রতিনিধি 
১৫ মার্চ ২০২১, ০১:০৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
হত্যা
ফাইল ছবি

পারিবারিক কলহ ও যৌতুকের জন্য আদুরী বেগম নামে এক গৃহবধূকে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

রোববার রাতে দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলার সিংড়া ইউনিয়নের শীধল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত গৃহবধূ আদুরী বেগম (২১) গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার শহীদুল ইসলামের মেয়ে। অভিযুক্ত আতিয়ার রহমান ঘোড়াঘাট উপজেলার শীধল গ্রামের শাহাদুল ইসলামের ছেলে।
                                                               
জানা যায়, চার বছর আগে আতিয়ার রহমানের (২৪) সঙ্গে বিয়ে হয় আদুরী বেগমের। বিয়ের কিছু দিন পরেই যৌতুকসহ নানা কারণে স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজনের নির্যাতনের মুখে পড়েন আদুরী। তবে সংসার টিকিয়ে রাখতে সয়ে গেছেন সব নির্যাতন।

রোববার গভীর রাতে স্বামী-স্ত্রীর মারামারি দেখতে পেয়ে স্থানীয় এক ব্যক্তি জাতীয় জরুরি সেবার ৯৯৯ নম্বরে কল দিয়ে বিষয়টি জানান। পরে ঘোড়াঘাট থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আদুরীর মরদেহ উদ্ধার করে। এ ঘটনার পর স্বামী আতিয়ার রহমানকে আটক করা হয়।

ঘোড়াঘাট থানার ওসি আজিম উদ্দিন বলেন, নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় নিহত গৃহবধূর বাবা বাদী হয়ে থানায় মামলা করেছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন