বগুড়ায় মহিলা লীগের সভাপতি পদ থেকে পপিকে অব্যাহতি
jugantor
বগুড়ায় মহিলা লীগের সভাপতি পদ থেকে পপিকে অব্যাহতি

  বগুড়া ব্যুরো  

১৬ মার্চ ২০২১, ২৩:০৩:৪০  |  অনলাইন সংস্করণ

বগুড়ার ধুনট উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা মহিলা লীগের সভাপতি পপি রানী সাহাকে সাংগঠনিক কার্যক্রম থেকে সাময়িক অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। তাকে স্থায়ী বহিষ্কার করতে কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের কাছে চিঠি পাঠানো হয়। সাংগঠনিক শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে তার বিরুদ্ধে এ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

জেলা মহিলা লীগের সভাপতি অধ্যক্ষ খাদিজা খাতুন শেফালী ও সাধারণ সম্পাদক সুরাইয়া নিগার সুলতানা ডরোথী স্বাক্ষরিত মঙ্গলবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা গেছে।

বিজ্ঞপ্তি ও কেন্দ্রে পাঠানো চিঠিতে নেতারা উল্লেখ করেছেন, ধুনট উপজেলা মহিলা লীগের সভাপতি পপি রানী সাহা গঠনতান্ত্রিক নিয়মনীতি ভঙ্গ, নিজের ইচ্ছামতো সংগঠনের পদ-পদবির ক্ষমতা দেখিয়ে বিভিন্ন স্থানে অনৈতিক কার্যকলাপ এবং সংগঠনের নীতিমালা অমান্য করে আসছেন। তিনি জেলা মহিলা লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে প্রতিনিয়ত অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করেন।

চিঠিতে বলা হয়- তাকে এ ব্যাপারে বিরত থাকতে বারবার অনুরোধ করা হলেও তিনি তা অবজ্ঞা এবং ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ করতে থাকেন। এতে সংগঠনের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হয়। তাই গত ৬ মার্চ বগুড়া জেলা মহিলা লীগের মাসিক সভায় সর্বসম্মতিতে ধুনট উপজেলা মহিলা লীগের সভাপতি পপি রানী সাহাকে সব ধরনের সাংগঠনিক কার্যকলাপ থেকে সাময়িক অব্যাহতি প্রদানের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। পপি রানী সাহার কোনো অনৈতিক কার্যকলাপের দায়ভার জেলা মহিলা লীগ বহন করবে না।

তাকে সংগঠন থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কারে প্রয়োজনীয় নির্দেশ দিতে কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে অনুরোধ জানিয়েছেন নেতারা।

বগুড়ায় মহিলা লীগের সভাপতি পদ থেকে পপিকে অব্যাহতি

 বগুড়া ব্যুরো 
১৬ মার্চ ২০২১, ১১:০৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বগুড়ার ধুনট উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা মহিলা লীগের সভাপতি পপি রানী সাহাকে সাংগঠনিক কার্যক্রম থেকে সাময়িক অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। তাকে স্থায়ী বহিষ্কার করতে কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের কাছে চিঠি পাঠানো হয়। সাংগঠনিক শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে তার বিরুদ্ধে এ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

জেলা মহিলা লীগের সভাপতি অধ্যক্ষ খাদিজা খাতুন শেফালী ও সাধারণ সম্পাদক সুরাইয়া নিগার সুলতানা ডরোথী স্বাক্ষরিত মঙ্গলবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা গেছে।

বিজ্ঞপ্তি ও কেন্দ্রে পাঠানো চিঠিতে নেতারা উল্লেখ করেছেন, ধুনট উপজেলা মহিলা লীগের সভাপতি পপি রানী সাহা গঠনতান্ত্রিক নিয়মনীতি ভঙ্গ, নিজের ইচ্ছামতো সংগঠনের পদ-পদবির ক্ষমতা দেখিয়ে বিভিন্ন স্থানে অনৈতিক কার্যকলাপ এবং সংগঠনের নীতিমালা অমান্য করে আসছেন। তিনি জেলা মহিলা লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে প্রতিনিয়ত অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করেন।

চিঠিতে বলা হয়- তাকে এ ব্যাপারে বিরত থাকতে বারবার অনুরোধ করা হলেও তিনি তা অবজ্ঞা এবং ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ করতে থাকেন। এতে সংগঠনের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হয়। তাই গত ৬ মার্চ বগুড়া জেলা মহিলা লীগের মাসিক সভায় সর্বসম্মতিতে ধুনট উপজেলা মহিলা লীগের সভাপতি পপি রানী সাহাকে সব ধরনের সাংগঠনিক কার্যকলাপ থেকে সাময়িক অব্যাহতি প্রদানের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। পপি রানী সাহার কোনো অনৈতিক কার্যকলাপের দায়ভার জেলা মহিলা লীগ বহন করবে না।

তাকে সংগঠন থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কারে প্রয়োজনীয় নির্দেশ দিতে কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে অনুরোধ জানিয়েছেন নেতারা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন