রড দিয়ে পিটিয়ে ছোট ভাইয়ের স্ত্রীকে হত্যা
jugantor
রড দিয়ে পিটিয়ে ছোট ভাইয়ের স্ত্রীকে হত্যা

  লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি  

২৭ মার্চ ২০২১, ০০:২৪:১২  |  অনলাইন সংস্করণ

লক্ষ্মীপুরে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে রড দিয়ে পিটিয়ে ছোট ভাইয়ের স্ত্রী বালা বেগমকে (৩০) হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার ভাসুরের বিরুদ্ধে।

শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে ঢাকায় নেওয়ার পথে বালা বেগম মারা যান। এর আগে তাকে সদর হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসতাপালে পাঠানোর পরামর্শ দেন।

এদিকে বালা বেগমের মৃত্যুর খবরে অভিযুক্ত খোরশেদ আলমের ছেলে ফয়সাল নামে একজনকে বেঁধে রেখে পুলিশে খবর দিয়েছেন স্থানীয়রা।

বালা বেগম সদর উপজেলার চররুহিতা ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের চররুহিতা গ্রামের নির্মাণ শ্রমিক নুর আলম নুরুর স্ত্রী।

স্থানীয়রা জানায়, খোরশেদরা ৫ ভাই ও ২ বোন। জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে দীর্ঘদিন তাদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছে। সম্প্রতি নুরু তার ঘরের পূর্ব পাশে নতুন রান্নাঘর নির্মাণ করে। এ নিয়ে তার সঙ্গে সেজো ভাই খোরশেদের বিরোধ শুরু হয়। শুক্রবার দুপুরে তারা বাদানুবাদে জড়িয়ে পড়ে।

একপর্যায়ে খোরশেদ রড দিয়ে নুরুর স্ত্রী বালা বেগমের মাথায় আঘাত করে। এতে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

অবস্থার অবনতিতে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠায়। সেখান থেকে ঢাকায় নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক নুর আলম নুরুর এক আত্মীয় জানান, জমি নিয়ে বিরোধকে কেন্দ্র করে খোরশেদ রড দিয়ে মাথায় আঘাত করে বালা বেগমকে হত্যা করেছে। ঘটনার পর থেকেই খোরশেদ পলাতক রয়েছে।

লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) শিপন বড়ুয়া বলেন, এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

রড দিয়ে পিটিয়ে ছোট ভাইয়ের স্ত্রীকে হত্যা

 লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি 
২৭ মার্চ ২০২১, ১২:২৪ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

লক্ষ্মীপুরে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে রড দিয়ে পিটিয়ে ছোট ভাইয়ের স্ত্রী বালা বেগমকে (৩০) হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার ভাসুরের বিরুদ্ধে। 

শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে ঢাকায় নেওয়ার পথে বালা বেগম মারা যান। এর আগে তাকে সদর হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসতাপালে পাঠানোর পরামর্শ দেন।

এদিকে বালা বেগমের মৃত্যুর খবরে অভিযুক্ত খোরশেদ আলমের ছেলে ফয়সাল নামে একজনকে বেঁধে রেখে পুলিশে খবর দিয়েছেন স্থানীয়রা।

বালা বেগম সদর উপজেলার চররুহিতা ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের চররুহিতা গ্রামের নির্মাণ শ্রমিক নুর আলম নুরুর স্ত্রী। 

স্থানীয়রা জানায়, খোরশেদরা ৫ ভাই ও ২ বোন। জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে দীর্ঘদিন তাদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছে। সম্প্রতি নুরু তার ঘরের পূর্ব পাশে নতুন রান্নাঘর নির্মাণ করে। এ নিয়ে তার সঙ্গে সেজো ভাই খোরশেদের বিরোধ শুরু হয়। শুক্রবার দুপুরে তারা বাদানুবাদে জড়িয়ে পড়ে। 

একপর্যায়ে খোরশেদ রড দিয়ে নুরুর স্ত্রী বালা বেগমের মাথায় আঘাত করে। এতে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। 

অবস্থার অবনতিতে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠায়। সেখান থেকে ঢাকায় নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক নুর আলম নুরুর এক আত্মীয় জানান, জমি নিয়ে বিরোধকে কেন্দ্র করে খোরশেদ রড দিয়ে মাথায় আঘাত করে বালা বেগমকে হত্যা করেছে। ঘটনার পর থেকেই খোরশেদ পলাতক রয়েছে।

লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) শিপন বড়ুয়া বলেন, এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর
 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন