নিজ ঘরের সামনে নিঃসন্তান বৃদ্ধার গলাকাটা লাশ
jugantor
নিজ ঘরের সামনে নিঃসন্তান বৃদ্ধার গলাকাটা লাশ

  যুগান্তর প্রতিবেদন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া  

০২ এপ্রিল ২০২১, ১৪:৫৭:১৪  |  অনলাইন সংস্করণ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরে আফিয়া খাতুন (৬৫) নামে এক বৃদ্ধার গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে নিহতের ঘরের দরজার আঙিনার সামনে থেকে লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত আফিয়া খাতুন উপজেলার পাহাড়পুর ইউনিয়নের মৃত আব্দুল হাসিমের স্ত্রী। আফিয়া খাতুনের কোনো ছেলেমেয়ে ছিল না।

স্থানীয় বাসিন্দা চাঁনপুর দক্ষিণপাড়া জামে মসজিদের মোয়াজ্জিন জানু মিয়া বলেন, সকাল সাড়ে ৭টায় মসজিদের চাল আনতে গিয়েছিলাম আফিয়া খাতুনের বাড়িতে। গিয়ে দেখি দরজার সামনে তার রক্তমাখা লাশ পড়ে আছে। পরে থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে।

পাহাড়পুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ খন্দকার বলেন, আফিয়া খাতুনের কোনো জায়গাজমি ছিল না। তার কোনো ধরনের শত্রুও থাকার কথা না। কিন্তু কেন এ বয়সে ওনাকে এমনভাবে হত্যা করা হলো বুঝতে পারছি না।

বিজয়নগর থানার ওসি আতিকুর রহমান যুগান্তরকে বলেন, আফিয়া খাতুনের গলায় আঘাতের চিহ্ণ রয়েছে। হত্যাকাণ্ডের কারণ এখনও জানা যায়নি। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

নিজ ঘরের সামনে নিঃসন্তান বৃদ্ধার গলাকাটা লাশ

 যুগান্তর প্রতিবেদন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া 
০২ এপ্রিল ২০২১, ০২:৫৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরে আফিয়া খাতুন (৬৫) নামে এক বৃদ্ধার গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে নিহতের ঘরের দরজার আঙিনার সামনে থেকে লাশ উদ্ধার করা হয়। 

নিহত আফিয়া খাতুন উপজেলার পাহাড়পুর ইউনিয়নের মৃত আব্দুল হাসিমের স্ত্রী। আফিয়া খাতুনের কোনো ছেলেমেয়ে ছিল না।

স্থানীয় বাসিন্দা চাঁনপুর দক্ষিণপাড়া জামে মসজিদের মোয়াজ্জিন জানু মিয়া বলেন, সকাল সাড়ে ৭টায় মসজিদের চাল আনতে গিয়েছিলাম আফিয়া খাতুনের বাড়িতে। গিয়ে দেখি দরজার সামনে তার রক্তমাখা লাশ পড়ে আছে। পরে থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে। 

পাহাড়পুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ খন্দকার বলেন, আফিয়া খাতুনের কোনো জায়গাজমি ছিল না। তার কোনো ধরনের শত্রুও থাকার কথা না। কিন্তু কেন এ বয়সে ওনাকে এমনভাবে হত্যা করা হলো বুঝতে পারছি না।

বিজয়নগর থানার ওসি আতিকুর রহমান যুগান্তরকে বলেন, আফিয়া খাতুনের গলায় আঘাতের চিহ্ণ রয়েছে। হত্যাকাণ্ডের কারণ এখনও জানা যায়নি। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন