সড়ক থেকে মিনিবাস দোকানে, নিহত ১
jugantor
সড়ক থেকে মিনিবাস দোকানে, নিহত ১

  তারাগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধি  

০২ এপ্রিল ২০২১, ২২:১৯:১৪  |  অনলাইন সংস্করণ

রংপুরের তারাগঞ্জে একটি অটোরিকশাকে বাঁচাতে গিয়ে মিনিবাস মহাসড়ক থেকে সবজির দোকানে ঢুকে পড়ে। এ ঘটনায় একজন নিহত ও ১২ জন আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় স্থানীয়রা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন। এতে মহাসড়কের উভয়পাশে শত শত যানবাহন আটকে পড়ে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় সৈয়দপুর থেকে ছেড়ে আসা রংপুরগামী এইচএ প্লাস রংপুর-দিনাজপুর মহাসড়কের তারাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে আসলে একটি অটোরিকশাকে বাঁচাতে গিয়ে মিনিবাসের চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে স্থানীয় কাঁচামাল ব্যবসায়ী ইমদাদুলের দোকানে ঢুকে পড়ে। এ সময় স্থানীয় ঘনিরামপুর গ্রামের হাজাজ আলী (৪৭) নামের এক ব্যক্তি ঘটনাস্থলেই নিহত হন।

এ ঘটনায় এক শিশুসহ ১২ জন আহত হয়েছেন। আহতরা হলেন- বাসযাত্রী তারাগঞ্জ উপজেলার পুরাতন চৌপথীর হোসেন আলী (৪৪), তার স্ত্রী ফাতেমা বেগম (৪৪) ও তার আট বছরের পুত্র ফুয়াদ হোসেন, পথচারী ঘনিরামপুরের বাচ্চু (৪০), নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার বাহাগিলি গ্রামের মৃত ছতিস রায়ের মেয়ে সরুনা রায় (৪২), একই উপজেলার কেল্ল্যাবাড়ী বালাপাড়ার তারাবানু (৫০), সৈয়দপুর উপজেলার সেকেন্দার আলী (৩০), লালমনিরহাট কালীগঞ্জের জামাল হোসেন (৩৫)। এছাড়া অজ্ঞাতনামা আরও ৪-৫ জনকে উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সড়ক থেকে মিনিবাস দোকানে, নিহত ১

 তারাগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধি 
০২ এপ্রিল ২০২১, ১০:১৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রংপুরের তারাগঞ্জে একটি অটোরিকশাকে বাঁচাতে গিয়ে মিনিবাস মহাসড়ক থেকে সবজির দোকানে ঢুকে পড়ে। এ ঘটনায় একজন নিহত ও ১২ জন আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় স্থানীয়রা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন। এতে মহাসড়কের উভয়পাশে শত শত যানবাহন আটকে পড়ে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় সৈয়দপুর থেকে ছেড়ে আসা রংপুরগামী এইচএ প্লাস রংপুর-দিনাজপুর মহাসড়কের তারাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে আসলে একটি অটোরিকশাকে বাঁচাতে গিয়ে মিনিবাসের চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে স্থানীয় কাঁচামাল ব্যবসায়ী ইমদাদুলের দোকানে ঢুকে পড়ে। এ সময় স্থানীয় ঘনিরামপুর গ্রামের হাজাজ আলী (৪৭) নামের এক ব্যক্তি ঘটনাস্থলেই নিহত হন।

এ ঘটনায় এক শিশুসহ ১২ জন আহত হয়েছেন। আহতরা হলেন- বাসযাত্রী তারাগঞ্জ উপজেলার পুরাতন চৌপথীর হোসেন আলী (৪৪), তার স্ত্রী ফাতেমা বেগম (৪৪) ও তার আট বছরের পুত্র ফুয়াদ হোসেন, পথচারী ঘনিরামপুরের বাচ্চু (৪০), নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার বাহাগিলি গ্রামের মৃত ছতিস রায়ের মেয়ে সরুনা রায় (৪২), একই উপজেলার কেল্ল্যাবাড়ী বালাপাড়ার তারাবানু (৫০), সৈয়দপুর উপজেলার সেকেন্দার আলী (৩০), লালমনিরহাট কালীগঞ্জের জামাল হোসেন (৩৫)। এছাড়া অজ্ঞাতনামা আরও ৪-৫ জনকে উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন