কবি আশুতোষ ভৌমিক আর নেই
jugantor
কবি আশুতোষ ভৌমিক আর নেই

  কিশোরগঞ্জ ব্যুরো  

০৩ এপ্রিল ২০২১, ২০:১৪:২৩  |  অনলাইন সংস্করণ

আশুতোষ ভৌমিক

সত্তর দশকের কবি আশুতোষ ভৌমিক আর নেই। তিনি শনিবার দুপুরে কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পরলোক গমন করেছেন।

তিনি বেশ কিছুদিন ধরে শারীরিকভাবে গুরুতর অসুস্থ হয়ে এ হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৪ বছর। তিনি স্ত্রী, ১ ছেলে ও ১ মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয়স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

প্রয়াত কবি আবিদ আজাদের ঘনিষ্ঠ সহযোগী হিসেবে পরিচিত কবি আশুতোষ ভৌমিক ১৩৫৬ বঙ্গাব্দের ২ অগ্রহায়ণ কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলাধীন যশোদল ইউনিয়নের (বর্তমানে বৌলাই ইউনিয়ন) পাটধা কুড়েরপাড় গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।

তার পিতার নাম গোবিন্দ চন্দ্র ভৌমিক ও মাতার নাম তরুলতা ভৌমিক। নিভৃতচারী সমাজমনষ্ক কবি, প্রাবন্ধিক ও সাহিত্য সমালোচক আশুতোষ ভৌমিক সবসময় সাদামাটা জীবনযাপনে অভ্যস্ত ছিলেন।

তার প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থের মধ্যে ‘ঝড়বাদলের দিনের গল্প’ (১৯৭৪), 'এক ফোঁটা ফোটা ফুল তাবৎ ধরিত্রী, 'ঝড়বাদলের দিনের গল্প', 'স্বপ্নেরা দ্যাখে স্বপ্ন', 'সূর্যাস্ত-দিনের বাঁকে', 'নদী কিংবা বালুচর', 'ধূসরিমা পাখি হয় পাখিরা আকাশ।'

তার মৃত্যুতে কিশোরগঞ্জের সাহিত্য-সংস্কৃতি অঙ্গনে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে কিশোরগঞ্জ শহরের বত্রিশ শ্মশান ঘাটে তার শেষকৃত্য অনুষ্ঠানের কথা রয়েছে।

কবি আশুতোষ ভৌমিক আর নেই

 কিশোরগঞ্জ ব্যুরো 
০৩ এপ্রিল ২০২১, ০৮:১৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
আশুতোষ ভৌমিক
কবি আশুতোষ ভৌমিক

সত্তর দশকের কবি আশুতোষ ভৌমিক আর নেই। তিনি শনিবার দুপুরে কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পরলোক গমন করেছেন। 

তিনি বেশ কিছুদিন ধরে শারীরিকভাবে গুরুতর অসুস্থ হয়ে এ হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৪ বছর। তিনি স্ত্রী, ১ ছেলে ও ১ মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয়স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।  

প্রয়াত কবি আবিদ আজাদের ঘনিষ্ঠ সহযোগী হিসেবে পরিচিত কবি আশুতোষ ভৌমিক ১৩৫৬ বঙ্গাব্দের ২ অগ্রহায়ণ কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলাধীন যশোদল ইউনিয়নের (বর্তমানে বৌলাই ইউনিয়ন) পাটধা কুড়েরপাড় গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।

তার পিতার নাম গোবিন্দ চন্দ্র ভৌমিক ও মাতার নাম তরুলতা ভৌমিক। নিভৃতচারী সমাজমনষ্ক কবি, প্রাবন্ধিক ও সাহিত্য সমালোচক আশুতোষ ভৌমিক সবসময় সাদামাটা জীবনযাপনে অভ্যস্ত ছিলেন।   

তার প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থের মধ্যে ‘ঝড়বাদলের দিনের গল্প’ (১৯৭৪), 'এক ফোঁটা ফোটা ফুল তাবৎ ধরিত্রী, 'ঝড়বাদলের দিনের গল্প', 'স্বপ্নেরা দ্যাখে স্বপ্ন', 'সূর্যাস্ত-দিনের বাঁকে', 'নদী কিংবা বালুচর', 'ধূসরিমা পাখি হয় পাখিরা আকাশ।'

তার মৃত্যুতে কিশোরগঞ্জের সাহিত্য-সংস্কৃতি অঙ্গনে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে কিশোরগঞ্জ শহরের বত্রিশ শ্মশান ঘাটে তার শেষকৃত্য অনুষ্ঠানের কথা রয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন