কিশোরগঞ্জে হামলা ভাংচুর, গ্রেফতার ৫
jugantor
কিশোরগঞ্জে হামলা ভাংচুর, গ্রেফতার ৫

  ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি  

০৪ এপ্রিল ২০২১, ১৪:৩৫:৪৭  |  অনলাইন সংস্করণ

কিশোরগঞ্জে হামলা ভাংচুর, গ্রেফতার ৫

নারায়ণগঞ্জে এক রিসোর্টে হেফাজতের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হককে হেনস্তার ঘটনায় কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরে বিক্ষোভ মিছিল করেছে হেফাজত কর্মীরা।

এ সময় মিছিল থেকে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে হামলা ও ভাঙচুর চালানো হয়েছে।

শনিবার রাত পৌনে ১০টা থেকে রাত সাড়ে ১১টা পর্যন্ত দফায় দফায় এ বিক্ষোভ হয়েছে।

এ ঘটনায় রোববার কুলিয়ারচর থানায় ৩৩ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ৫০০ লোকের বিরুদ্ধে মামলা করেছে পুলিশ। তার মধ্য এজাহারভুক্ত পাঁচ আসামিকে গ্রেফতার করা হয়।

তারা হলেন- মেজবাহ (৩২), আবাবিল (৩১), সুমন (২৬), শামীম (২২) ও শরীফ (২৫)।

জানা যায়, মিছিল থেকে উপজেলা সহকারী কমিশনারের (ভূমি) কার্যালয়, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বাংলো, ত্রৈলোক্য নাথ মহারাজ স্মৃতি লাইব্রেরিসহ বহু প্রতিষ্ঠানে হামলা ও ভাঙচুর করা হয়। এ সময় গোটা এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

হেফাজতকর্মীদের সঙ্গে দফায় দফায় পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

কুলিয়ারচর থানার ওসি একেএম সুলতান মাহমুদ জানান, এ ঘটনায় সাত পুলিশসহ ১০ জন আহত হয়েছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ পাঁচ রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। এ ঘটনায় থানায় মামলা করেছে পুলিশ। ভিডিও ফুটেজ দেখে অপরাধীদের চিহ্নিত করা হবে।

তিনি আরও বলেন, এ ঘটনায় স্থানীয় বিএনপির নেতাকর্মীরা জড়িত রয়েছে।

কুলিয়ারচর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রুবাইয়াৎ ফেরদৌসী জানান, হামলাকারীরা উপজেলা ভূমি অফিস ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের বাংলো ভাংচুর করেছে।

কিশোরগঞ্জে হামলা ভাংচুর, গ্রেফতার ৫

 ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি 
০৪ এপ্রিল ২০২১, ০২:৩৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
কিশোরগঞ্জে হামলা ভাংচুর, গ্রেফতার ৫
ছবি: যুগান্তর

নারায়ণগঞ্জে এক রিসোর্টে হেফাজতের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হককে হেনস্তার ঘটনায় কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরে বিক্ষোভ মিছিল করেছে হেফাজত কর্মীরা।

এ সময় মিছিল থেকে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে হামলা ও ভাঙচুর চালানো হয়েছে।

শনিবার রাত পৌনে ১০টা থেকে রাত সাড়ে ১১টা পর্যন্ত দফায় দফায় এ বিক্ষোভ হয়েছে।

এ ঘটনায় রোববার কুলিয়ারচর থানায় ৩৩ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ৫০০ লোকের বিরুদ্ধে মামলা করেছে পুলিশ। তার মধ্য এজাহারভুক্ত পাঁচ আসামিকে গ্রেফতার করা হয়।

তারা হলেন- মেজবাহ (৩২), আবাবিল (৩১), সুমন (২৬), শামীম (২২) ও শরীফ (২৫)।

জানা যায়, মিছিল থেকে উপজেলা সহকারী কমিশনারের (ভূমি) কার্যালয়, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বাংলো, ত্রৈলোক্য নাথ মহারাজ স্মৃতি লাইব্রেরিসহ বহু প্রতিষ্ঠানে হামলা ও ভাঙচুর করা হয়। এ সময় গোটা এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

হেফাজতকর্মীদের সঙ্গে দফায় দফায় পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

কুলিয়ারচর থানার ওসি একেএম সুলতান মাহমুদ জানান, এ ঘটনায় সাত পুলিশসহ ১০ জন আহত হয়েছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ পাঁচ রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। এ ঘটনায় থানায় মামলা করেছে পুলিশ। ভিডিও ফুটেজ দেখে অপরাধীদের চিহ্নিত করা হবে।

তিনি আরও বলেন, এ ঘটনায় স্থানীয় বিএনপির নেতাকর্মীরা জড়িত রয়েছে।

কুলিয়ারচর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রুবাইয়াৎ ফেরদৌসী জানান, হামলাকারীরা উপজেলা ভূমি অফিস ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের বাংলো ভাংচুর করেছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন