আন্তর্জাতিক সামরিক প্রশিক্ষণ এক্সারসাইজ শান্তির অগ্রসেনার উদ্বোধন
jugantor
আন্তর্জাতিক সামরিক প্রশিক্ষণ এক্সারসাইজ শান্তির অগ্রসেনার উদ্বোধন

  যুগান্তর প্রতিবেদন, টাঙ্গাইল  

০৪ এপ্রিল ২০২১, ২১:৩৪:৪৭  |  অনলাইন সংস্করণ

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে টাঙ্গাইলের বঙ্গবন্ধু সেনানিবাসে আন্তর্জাতিক সামরিক প্রশিক্ষণ এক্সারসাইজ শান্তির অগ্রসেনার উদ্বোধন করা হয়েছে।

রোববার সকালে সামরিক প্রশিক্ষণের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সেনাবাহিনীর কোয়ার্টার মাস্টার লে. জেনারেল এসএম শফিউদ্দিন আহমেদ, ১৯ পদাতিক ডিভিশনের ঘাটাইল এরিয়া কমান্ডার মেজর জেনারেল সৈয়দ তারেক আহমেদ, বঙ্গবন্ধু সেনানিবাসের ব্রিগেডিয়ার জেনারেল খন্দকার কেএম আসাদুল হকসহ ঊর্ধ্বতন সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বহুমাত্রিক এ সামরিক অনুশীলনে ১১টি দেশের প্রতিনিধি যোগদান করেন। প্রশিক্ষণে বাংলদেশ, ভারত ও শ্রীলংকা হতে ৩০ জন, ভুটান হতে ৩৩ জনসহ মোট ১২৩ জন সেনাসদস্য যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স, নেপাল, তুরস্ক, সৌদি আরব, ভারত শ্রীলংকা ও ভুটানের ১৯ জন অবজারভার অংশগ্রহণ করছেন।
বিশ্ব শান্তি বজায় রাখতে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে অংশগ্রহণকারী দেশসমূহের সক্ষমতা বৃদ্ধিই এই প্রশিক্ষণের মূল উদ্দেশ্য। এ প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণকারী দেশসমূহ পারস্পারিক জ্ঞান এবং প্রযুক্তিগত তথ্য বিনিময়ের মাধ্যমে একটি সহযোগী কাজের তৈরির মাধ্যমে প্রশিক্ষণের লক্ষ্য অর্জনে সচেষ্ট হবে।

ওই প্রশিক্ষণে সামরিক অপারেশনের সাথে সংশ্লিষ্ট গুরত্বপূর্ণ বিষয়ে বিশেষজ্ঞ ব্যক্তিবর্গের আলোচনা ও বিভিন্ন প্রকার প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে। প্রশিক্ষণটিতে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে বাংলাদেশ কর্তৃক ব্যবহৃত অত্যাধুনিক অস্ত্র-সরঞ্জামাদি ও মিলিটারি গেজেটসমূহ সমরাস্ত্র প্রদর্শনীর মাধ্যমে নারী সদস্যদের বিভিন্ন কার্যক্রম তুলে ধরা হবে। এই অনুশীলন বহির্বিশ্বে বাংলাদেশের সুনামকে বহুলাংশে বৃদ্ধি করবে বলে প্রত্যাশা করা যায়।

সামরিক প্রশিক্ষণটি আগামী ১২ এপ্রিল পর্যন্ত চলমান থাকবে।

আন্তর্জাতিক সামরিক প্রশিক্ষণ এক্সারসাইজ শান্তির অগ্রসেনার উদ্বোধন

 যুগান্তর প্রতিবেদন, টাঙ্গাইল 
০৪ এপ্রিল ২০২১, ০৯:৩৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে টাঙ্গাইলের বঙ্গবন্ধু সেনানিবাসে আন্তর্জাতিক সামরিক প্রশিক্ষণ এক্সারসাইজ শান্তির অগ্রসেনার উদ্বোধন করা হয়েছে।

রোববার সকালে সামরিক প্রশিক্ষণের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সেনাবাহিনীর কোয়ার্টার মাস্টার লে. জেনারেল এসএম শফিউদ্দিন আহমেদ, ১৯ পদাতিক ডিভিশনের ঘাটাইল এরিয়া কমান্ডার মেজর জেনারেল সৈয়দ তারেক আহমেদ, বঙ্গবন্ধু সেনানিবাসের ব্রিগেডিয়ার জেনারেল খন্দকার কেএম আসাদুল হকসহ ঊর্ধ্বতন সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বহুমাত্রিক এ সামরিক অনুশীলনে ১১টি দেশের প্রতিনিধি যোগদান করেন। প্রশিক্ষণে বাংলদেশ, ভারত ও শ্রীলংকা হতে ৩০ জন, ভুটান হতে ৩৩ জনসহ মোট ১২৩ জন সেনাসদস্য যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স, নেপাল, তুরস্ক, সৌদি আরব, ভারত শ্রীলংকা ও ভুটানের ১৯ জন অবজারভার অংশগ্রহণ করছেন। 
বিশ্ব শান্তি বজায় রাখতে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে অংশগ্রহণকারী দেশসমূহের সক্ষমতা বৃদ্ধিই এই প্রশিক্ষণের মূল উদ্দেশ্য। এ প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণকারী দেশসমূহ পারস্পারিক জ্ঞান এবং প্রযুক্তিগত তথ্য বিনিময়ের মাধ্যমে একটি সহযোগী কাজের তৈরির মাধ্যমে প্রশিক্ষণের লক্ষ্য অর্জনে সচেষ্ট হবে।

ওই প্রশিক্ষণে সামরিক অপারেশনের সাথে সংশ্লিষ্ট গুরত্বপূর্ণ বিষয়ে বিশেষজ্ঞ ব্যক্তিবর্গের আলোচনা ও বিভিন্ন প্রকার প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে। প্রশিক্ষণটিতে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে বাংলাদেশ কর্তৃক ব্যবহৃত অত্যাধুনিক অস্ত্র-সরঞ্জামাদি ও মিলিটারি গেজেটসমূহ সমরাস্ত্র প্রদর্শনীর মাধ্যমে নারী সদস্যদের বিভিন্ন কার্যক্রম তুলে ধরা হবে। এই অনুশীলন বহির্বিশ্বে বাংলাদেশের সুনামকে বহুলাংশে বৃদ্ধি করবে বলে প্রত্যাশা করা যায়।

সামরিক প্রশিক্ষণটি আগামী ১২ এপ্রিল পর্যন্ত চলমান থাকবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর
 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন