দোকান ভেঙে মালামাল লুটের অভিযোগে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা
jugantor
দোকান ভেঙে মালামাল লুটের অভিযোগে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা

  বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি  

০৪ এপ্রিল ২০২১, ২২:২৮:৪০  |  অনলাইন সংস্করণ

দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে গভীর রাতে পাঁচটি দোকানের মালামাল লুট ও দোকান ঘর ভেঙে দিয়ে জায়গা দখলের অভিযোগে ভাদুরিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আসমান জামিনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

রোববার এ মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ওসি অশোক কুমার চৌহান।

মামলা সূত্রে জানা যায়, জাহাঙ্গীর আলম তার পিতার নামীয় কবুলিয়ত দলিল মূলে দীর্ঘদিন যাবত পাঁচটি দোকানসহ জায়গাটি ভোগ দখল করে আসছেন।

শুক্রবার গভীর রাতে ভাদুরিয়ার ইউপি চেয়ারম্যান আসমান জামিন ৪০-৪২ জন সন্ত্রাসীসহ পাঁচটি দোকান ঘরে রড-সিমেন্টসহ বিভিন্ন প্রকার মামামাল লুট করে এবং দোকান ঘর সব ভেঙে গুঁড়িয়ে দেন।

জাহাঙ্গীর আলম নবাবগঞ্জ থানায় ইউপি চেয়ারম্যান আসমান জামিনসহ ২০ জনকে আসামি ও ৪০-৪২ জন অজ্ঞাত আসামি করে এজাহার করলে রোববার বিকাল ৪টায় মামলা হয়।

মামলায় এক নম্বর আসামি ভাদুরিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আসমান জামিন জানান, দোকান ভেঙে দেওয়া হয়েছে। ওই জায়গা আমার বাবার নিজস্ব সম্পত্তি। জায়গাটির সব কাগজপত্র আমাদের রয়েছে।

নবাবগঞ্জ থানার ওসি অশোক কুমার চৌহান জানান, ভাদুরিয়া বাজারে নির্মিত দোকানঘর ভাঙার বিষয়ে জাহাঙ্গীর আলম নামে একজন এজাহার দায়ের করেছেন। তদন্তপূর্বক মামলা গ্রহণ করা হয়েছে।

দোকান ভেঙে মালামাল লুটের অভিযোগে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা

 বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি 
০৪ এপ্রিল ২০২১, ১০:২৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে গভীর রাতে পাঁচটি দোকানের মালামাল লুট ও দোকান ঘর ভেঙে দিয়ে জায়গা দখলের অভিযোগে ভাদুরিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আসমান জামিনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

রোববার এ মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ওসি অশোক কুমার চৌহান।

মামলা সূত্রে জানা যায়, জাহাঙ্গীর আলম তার পিতার নামীয় কবুলিয়ত দলিল মূলে দীর্ঘদিন যাবত পাঁচটি দোকানসহ জায়গাটি ভোগ দখল করে আসছেন। 

শুক্রবার গভীর রাতে ভাদুরিয়ার ইউপি চেয়ারম্যান আসমান জামিন ৪০-৪২ জন সন্ত্রাসীসহ পাঁচটি দোকান ঘরে রড-সিমেন্টসহ বিভিন্ন প্রকার মামামাল লুট করে এবং দোকান ঘর সব ভেঙে গুঁড়িয়ে দেন। 

জাহাঙ্গীর আলম নবাবগঞ্জ থানায় ইউপি চেয়ারম্যান আসমান জামিনসহ ২০ জনকে আসামি ও ৪০-৪২ জন অজ্ঞাত আসামি করে এজাহার করলে রোববার বিকাল ৪টায় মামলা হয়।

মামলায় এক নম্বর আসামি ভাদুরিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আসমান জামিন জানান, দোকান ভেঙে দেওয়া হয়েছে। ওই জায়গা আমার বাবার নিজস্ব সম্পত্তি। জায়গাটির সব কাগজপত্র আমাদের রয়েছে।

নবাবগঞ্জ থানার ওসি অশোক কুমার চৌহান জানান, ভাদুরিয়া বাজারে নির্মিত দোকানঘর ভাঙার বিষয়ে জাহাঙ্গীর আলম নামে একজন এজাহার দায়ের করেছেন। তদন্তপূর্বক মামলা গ্রহণ করা হয়েছে। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর
 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন