২৬ চাকার লরির চাপায় প্রাণ গেল একই পরিবারের ৩ জনের
jugantor
২৬ চাকার লরির চাপায় প্রাণ গেল একই পরিবারের ৩ জনের

  কুমিল্লা ব্যুরো  

১৩ এপ্রিল ২০২১, ২২:০০:৫২  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে ২৬ চাকার একটি লরির চাপায় নারী-শিশুসহ একই পরিবারের তিনজন নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে চার মাস বয়সী এক শিশুও রয়েছে। মঙ্গলবার বিকালে উপজেলার চিওড়া রাস্তার মাথায় সিএনজি থেকে নামার সময় লরিটি তাদের চাপা দেয়।

নিহতরা হলেন- জেলার নাঙ্গলকোট উপজেলার ঢালুয়া ইউনিয়নের সিজিয়ারা গ্রামের নুরুজ্জামানের ছেলে মো.হানিফ মিয়া, তার মেয়ে চৌদ্দগ্রামের জগন্নাথদীঘি ইউনিয়নের হাটবাইর গ্রামের কবির হাসেনের স্ত্রী মেরি বেগম ও মেরির চার মাস বয়সী শিশুকন্যা মেহজাবিন আক্তার।

মঙ্গলবার বিকাল ৫টায় ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন চৌদ্দগ্রাম ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স ইনচার্জ ইয়াসিন প্রধানিয়া।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, হানিফ মিয়া মঙ্গলবার বিকাল পৌনে ৪টায় তার মেয়ে মেরি বেগম ও নাতনি মেহজাবিনকে নিয়ে প্রয়োজনীয় কাজে সিএনজি অটোরিকশাযোগে চিওড়া রাস্তার মাথায় আসেন। কিন্তু ভাগ্যের নির্মম পরিহাস সিএনজি অটোরিকশা থেকে নামার সময় একটি লরি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ওই সিএনজি অটোরিকশার উপর উঠে যায়। এতে দুমড়ে-মুচড়ে যায় অটোরিকশাটি।

এ সময় ঘটনাস্থলেই মেরি বেগম (৩৪), তার বাবা হানিফ (৬০) ও শিশু মেহজাবিন নিহত হন। আর হানিফের ছেলে রোমেন, সিএনজি অটোরিকশা চালক রফিক আহত হন।

খবর পেয়ে স্থানীয় লোকজন, মিয়াবাজার হাইওয়ে পুলিশ ও চৌদ্দগ্রাম ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহতদের উদ্ধার শেষে চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন। পুলিশ দুর্ঘটনাকবলিত গাড়ি উদ্ধার শেষে ফাঁড়িতে নিয়ে যায়।

চৌদ্দগ্রাম ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স ইনচার্জ ইয়াসিন প্রধানিয়া বলেন, খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে আহতদের উদ্ধার শেষে চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়েছে। দুর্ঘটনায় তিনজন নিহত হয়েছেন।

মিয়াবাজার হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির এসআই রায়হান মিয়া জানান, দুর্ঘটনাকবলিত গাড়ি উদ্ধার শেষে ফাঁড়িতে আনা হয়েছে।

২৬ চাকার লরির চাপায় প্রাণ গেল একই পরিবারের ৩ জনের

 কুমিল্লা ব্যুরো 
১৩ এপ্রিল ২০২১, ১০:০০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে ২৬ চাকার একটি লরির চাপায় নারী-শিশুসহ একই পরিবারের তিনজন নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে চার মাস বয়সী এক শিশুও রয়েছে। মঙ্গলবার বিকালে উপজেলার চিওড়া রাস্তার মাথায় সিএনজি থেকে নামার সময় লরিটি তাদের চাপা দেয়।

নিহতরা হলেন- জেলার নাঙ্গলকোট উপজেলার ঢালুয়া ইউনিয়নের সিজিয়ারা গ্রামের নুরুজ্জামানের ছেলে মো.হানিফ মিয়া, তার মেয়ে চৌদ্দগ্রামের জগন্নাথদীঘি ইউনিয়নের হাটবাইর গ্রামের কবির হাসেনের স্ত্রী মেরি বেগম ও মেরির চার মাস বয়সী শিশুকন্যা মেহজাবিন আক্তার।

মঙ্গলবার বিকাল ৫টায় ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন চৌদ্দগ্রাম ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স ইনচার্জ ইয়াসিন প্রধানিয়া।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, হানিফ মিয়া মঙ্গলবার বিকাল পৌনে ৪টায় তার মেয়ে মেরি বেগম ও নাতনি মেহজাবিনকে নিয়ে প্রয়োজনীয় কাজে সিএনজি অটোরিকশাযোগে চিওড়া রাস্তার মাথায় আসেন। কিন্তু ভাগ্যের নির্মম পরিহাস সিএনজি অটোরিকশা থেকে নামার সময় একটি লরি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ওই সিএনজি অটোরিকশার উপর উঠে যায়। এতে দুমড়ে-মুচড়ে যায় অটোরিকশাটি।

এ সময় ঘটনাস্থলেই মেরি বেগম (৩৪), তার বাবা হানিফ (৬০) ও শিশু মেহজাবিন নিহত হন। আর হানিফের ছেলে রোমেন, সিএনজি অটোরিকশা চালক রফিক আহত হন।

খবর পেয়ে স্থানীয় লোকজন, মিয়াবাজার হাইওয়ে পুলিশ ও চৌদ্দগ্রাম ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহতদের উদ্ধার শেষে চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন। পুলিশ দুর্ঘটনাকবলিত গাড়ি উদ্ধার শেষে ফাঁড়িতে নিয়ে যায়।

চৌদ্দগ্রাম ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স ইনচার্জ ইয়াসিন প্রধানিয়া বলেন, খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে আহতদের উদ্ধার শেষে চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়েছে। দুর্ঘটনায় তিনজন নিহত হয়েছেন।

মিয়াবাজার হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির এসআই রায়হান মিয়া জানান, দুর্ঘটনাকবলিত গাড়ি উদ্ধার শেষে ফাঁড়িতে আনা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর
 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন