বরিশালে ১৭ জনকে নিয়ে বর্ষবরণ
jugantor
বরিশালে ১৭ জনকে নিয়ে বর্ষবরণ

  বরিশাল ব্যুরো  

১৪ এপ্রিল ২০২১, ১৮:১৭:৫২  |  অনলাইন সংস্করণ

আজ পয়লা বৈশাখ। গত বছরের মত এবারও নতুন বছরের প্রথম দিন আনন্দ-উৎসবহীনভাবে কাটছে। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সারাদেশের ন্যায় বরিশালেও অত্যন্ত সীমিত পরিসরে দিনটিকে বরণ করে নিয়েছেন সাংস্কৃতিক কর্মীরা।মাত্র ৫ জন শিল্পী ও ১২ জন শিক্ষার্থী নিয়ে চারুকলা বরিশালের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হয়েছে প্রতীকী মঙ্গল শোভাযাত্রা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

বুধবার সকাল সাড়ে ৯টায় অশ্বিনী কুমার হলের সামনে সামাজিক দূরত্ব মেনে কর্মসূচী পালিত হয়। শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণকারীরা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধী এবং বর্ষবরণের আলপনা অঙ্কিত বিশেষ ধরণের ফেসশিল্ড পরে কর্মসূচি পালন করেছেন। পরে চারুকলা বরিশালের কার্যালয়ে রাখি বন্ধন উৎসব ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক রনি দাস বলেন, মঙ্গল শোভাযাত্রা ও বর্ষবরণের ব্যাপক আয়োজন স্থগিত রাখা হয়েছে। করোনার সংক্রমণ থেকে জনসাধারণকে রক্ষা করতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তবে অত্যন্ত স্বল্প পরিসরে চারুকলা বরিশালের উদ্যোগে প্রতীকী শোভাযাত্রা ও বর্ষবরণের অনুষ্ঠান হয়েছে। সেই কর্মসূচিতেও আমরা মানুষকে মাস্ক পরতে ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে উৎসাহিত করেছি।

তিনি আরও জানান, শিশুদের উৎসবের আমেজ দিতে অনলাইনে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে। গত সাতদিন ধরে এসব অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। এছাড়া জনসাধারণের জন্য সংক্ষিপ্ত এই আয়োজন চারুকলা বরিশালের ফেসবুক পেজ থেকে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়েছে।

বর্ষবরণ অনুষ্ঠানের চারুকলার আয়োজকরা বলেন, করোনার কারণে এ বছরও ব্যাপক পরিসরে বর্ষবরণ ও মঙ্গল শোভাযাত্রার অনুষ্ঠান করা সম্ভব হয়নি। অত্যন্ত সীমিত পরিসরে কর্মসূচি পালনের মধ্যদিয়ে বরিশালের জনসাধারণকে ঘরে অবস্থান করার বার্তা দিয়েছি।

বরিশালে ১৭ জনকে নিয়ে বর্ষবরণ

 বরিশাল ব্যুরো 
১৪ এপ্রিল ২০২১, ০৬:১৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আজ পয়লা বৈশাখ। গত বছরের মত এবারও নতুন বছরের প্রথম দিন আনন্দ-উৎসবহীনভাবে কাটছে। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সারাদেশের ন্যায় বরিশালেও অত্যন্ত সীমিত পরিসরে দিনটিকে বরণ করে নিয়েছেন সাংস্কৃতিক কর্মীরা। মাত্র ৫ জন শিল্পী ও ১২ জন শিক্ষার্থী নিয়ে চারুকলা বরিশালের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হয়েছে প্রতীকী মঙ্গল শোভাযাত্রা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। 

বুধবার সকাল সাড়ে ৯টায় অশ্বিনী কুমার হলের সামনে সামাজিক দূরত্ব মেনে কর্মসূচী পালিত হয়। শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণকারীরা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধী এবং বর্ষবরণের আলপনা অঙ্কিত বিশেষ ধরণের ফেসশিল্ড পরে কর্মসূচি পালন করেছেন। পরে চারুকলা বরিশালের কার্যালয়ে রাখি বন্ধন উৎসব ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক রনি দাস বলেন, মঙ্গল শোভাযাত্রা ও বর্ষবরণের ব্যাপক আয়োজন স্থগিত রাখা হয়েছে। করোনার সংক্রমণ থেকে জনসাধারণকে রক্ষা করতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তবে অত্যন্ত স্বল্প পরিসরে চারুকলা বরিশালের উদ্যোগে প্রতীকী শোভাযাত্রা ও বর্ষবরণের অনুষ্ঠান হয়েছে। সেই কর্মসূচিতেও আমরা মানুষকে মাস্ক পরতে ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে উৎসাহিত করেছি। 

তিনি আরও জানান, শিশুদের উৎসবের আমেজ দিতে অনলাইনে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে। গত সাতদিন ধরে এসব অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। এছাড়া জনসাধারণের জন্য সংক্ষিপ্ত এই আয়োজন চারুকলা বরিশালের ফেসবুক পেজ থেকে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়েছে।

বর্ষবরণ অনুষ্ঠানের চারুকলার আয়োজকরা বলেন, করোনার কারণে এ বছরও ব্যাপক পরিসরে বর্ষবরণ ও মঙ্গল শোভাযাত্রার অনুষ্ঠান করা সম্ভব হয়নি। অত্যন্ত সীমিত পরিসরে কর্মসূচি পালনের মধ্যদিয়ে বরিশালের জনসাধারণকে ঘরে অবস্থান করার বার্তা দিয়েছি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন