সাইকেলে ধাক্কা নিয়ে আ’লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ৩০
jugantor
সাইকেলে ধাক্কা নিয়ে আ’লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ৩০

  বাউফল (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি  

১৫ এপ্রিল ২০২১, ১৯:১১:৩১  |  অনলাইন সংস্করণ

পটুয়াখালীর বাউফলে দুই বাইসাইকেলের মধ্যে ধাক্কা লাগার জেরে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে কমপক্ষে ৩০ জন আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলার চন্দ্রদ্বীপ ইউনিয়নের চরমিয়াজান এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে।

আহতদের মধ্যে ৩ জনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। বাকিদের বাউফল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাসেবা দেয়া হয়েছে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, চন্দ্রদ্বীপ ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের মেম্বার পদপ্রার্থী এবং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি বাবুল হাওলাদারের সমর্থক হাসান বাইসাইকেল নিয়ে যাচ্ছিলেন। এ সময় একই ওয়ার্ডের মেম্বার ও ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক কামাল হোসেনের সমর্থক নাজমুল বিপরীত দিক থেকে সাইকেল নিয়ে যাওয়ার পথে ওই সাইকেলের সঙ্গে ধাক্কা লাগে।

এ ঘটনার জের ধরে বাবুল হাওলাদার ও কামাল হোসেনের সমর্থকদের মধ্যে ধারালো অস্ত্র ও লাঠিসোটা নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ শুরু হয়। ঘণ্টাব্যাপী সংঘর্ষ চলাকালে ওই গ্রামের ৫টি বসতঘরে ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের কমপক্ষে ৩০ জন আহত হয়েছেন।

আহতদের মধ্যে জিয়াউর, আকলিমা ও কালু নামের ৩ জনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। বাকিদের বাউফল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাসেবা দেয়া হয়েছে।

চন্দ্রদ্বীপ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এনামুল হক আলকাচ বলেন, সংঘর্ষের ঘটনার পর এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

বাউফল থানার ওসি (তদন্ত) আল মামুন বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করা হয়।

সাইকেলে ধাক্কা নিয়ে আ’লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ৩০

 বাউফল (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি 
১৫ এপ্রিল ২০২১, ০৭:১১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পটুয়াখালীর বাউফলে দুই বাইসাইকেলের মধ্যে ধাক্কা লাগার জেরে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে কমপক্ষে ৩০ জন আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলার চন্দ্রদ্বীপ ইউনিয়নের চরমিয়াজান এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে।

আহতদের মধ্যে ৩ জনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। বাকিদের বাউফল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাসেবা দেয়া হয়েছে। 

সংশ্লিষ্টরা জানান, চন্দ্রদ্বীপ ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের মেম্বার পদপ্রার্থী এবং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি বাবুল হাওলাদারের সমর্থক হাসান বাইসাইকেল নিয়ে যাচ্ছিলেন। এ সময় একই ওয়ার্ডের মেম্বার ও ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক কামাল হোসেনের সমর্থক নাজমুল বিপরীত দিক থেকে সাইকেল নিয়ে যাওয়ার পথে ওই সাইকেলের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। 

এ ঘটনার জের ধরে বাবুল হাওলাদার ও কামাল হোসেনের সমর্থকদের মধ্যে ধারালো অস্ত্র ও লাঠিসোটা নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ শুরু হয়। ঘণ্টাব্যাপী সংঘর্ষ চলাকালে ওই গ্রামের ৫টি বসতঘরে ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের কমপক্ষে ৩০ জন আহত হয়েছেন। 

আহতদের মধ্যে জিয়াউর, আকলিমা ও কালু নামের ৩ জনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। বাকিদের বাউফল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাসেবা দেয়া হয়েছে। 

চন্দ্রদ্বীপ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এনামুল হক আলকাচ বলেন, সংঘর্ষের ঘটনার পর এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। 

বাউফল থানার ওসি (তদন্ত) আল মামুন বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করা হয়। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন