হাতবোমা বিস্ফোরণে শিশু নিহত, যুবলীগ নেতা আটক
jugantor
হাতবোমা বিস্ফোরণে শিশু নিহত, যুবলীগ নেতা আটক

  কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি  

১৫ এপ্রিল ২০২১, ২১:৫৬:৪৫  |  অনলাইন সংস্করণ

যশোরের কেশবপুরের বাউশলা গ্রামে একটি হাতবোমা বিস্ফোরণে আব্দুর রহমান (৮) নামে একটি শিশু নিহত হয়েছে। এ সময় শিশুটির মা নিলুফার বেগম (৪০) ও নিহতের ছোটবোন মারুফা খাতুন (৪) গুরুতর আহত হয়।

কেশবপুর থানার ওসি মো. জসিম উদ্দীন ও এলাকাবাসী জানান, দুপুর ১টায় নিহতের পিতা মিজানুর রহমানের ভাই সিরাজুল ইসলাম (৪৫) ও তার ছেলে ওয়াহিদ হাসান (১৭) একটি পরিত্যক্ত অগভীর নলকূপের ঘর থেকে নলকূপ ও ব্যগভর্তি যন্ত্রপাতি নিয়ে আসে। বাড়ি এসে ব্যাগের মধ্যে একটি জর্দার কৌটা দেখতে পেয়ে নিলুফার বেগম সেটি খুলতে গেলে বিস্ফোরণ ঘটে।

ঘটনাস্থলেই আব্দুর রহমান মারা যান। গুরুতর আহত অবস্থায় শিশুটির মা নিলুফার বেগম ও নিহতের ছোটবোন মারুফা খাতুনকে গুরুতর আহত অবস্থায় প্রথমে কেশবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় দুইজনকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়।

এ ঘটনায় কেশবপুর থানায় একটি মামলা হয়েছে। বাউশলা এলাকার ইউপি চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেনের ভাই ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক ফারুক হোসেনকে পুলিশ আটক করেছে।

যশোরের ডিবি পুলিশের একটি দল, ডিএসবি ও যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সালাউদ্দিন শিকদার ঘনাস্থল পরিদর্শন করেন। থানার অফিসার ইনচার্জ একজনকে আটকের কথা বললেও তার নাম জানাননি।

হাতবোমা বিস্ফোরণে শিশু নিহত, যুবলীগ নেতা আটক

 কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি 
১৫ এপ্রিল ২০২১, ০৯:৫৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

যশোরের কেশবপুরের বাউশলা গ্রামে একটি হাতবোমা বিস্ফোরণে আব্দুর রহমান (৮) নামে একটি শিশু নিহত হয়েছে। এ সময় শিশুটির মা নিলুফার বেগম (৪০) ও নিহতের ছোটবোন মারুফা খাতুন (৪) গুরুতর আহত হয়। 

কেশবপুর থানার ওসি মো. জসিম উদ্দীন ও এলাকাবাসী জানান, দুপুর ১টায় নিহতের পিতা মিজানুর রহমানের ভাই সিরাজুল ইসলাম (৪৫) ও তার ছেলে ওয়াহিদ হাসান (১৭) একটি পরিত্যক্ত অগভীর নলকূপের ঘর থেকে নলকূপ ও ব্যগভর্তি যন্ত্রপাতি নিয়ে আসে। বাড়ি এসে ব্যাগের মধ্যে একটি জর্দার কৌটা দেখতে পেয়ে নিলুফার বেগম সেটি খুলতে গেলে বিস্ফোরণ ঘটে। 

ঘটনাস্থলেই আব্দুর রহমান মারা যান। গুরুতর আহত অবস্থায় শিশুটির মা নিলুফার বেগম ও নিহতের ছোটবোন মারুফা খাতুনকে গুরুতর আহত অবস্থায় প্রথমে কেশবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় দুইজনকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। 

এ ঘটনায় কেশবপুর থানায় একটি মামলা হয়েছে। বাউশলা এলাকার ইউপি চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেনের ভাই ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক ফারুক হোসেনকে পুলিশ আটক করেছে।

যশোরের ডিবি পুলিশের একটি দল, ডিএসবি ও যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সালাউদ্দিন শিকদার ঘনাস্থল পরিদর্শন করেন। থানার অফিসার ইনচার্জ একজনকে আটকের কথা বললেও তার নাম জানাননি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন