পরকীয়ার জেরে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে স্বামীকে হত্যা
jugantor
পরকীয়ার জেরে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে স্বামীকে হত্যা

  পার্বতীপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি  

১৫ এপ্রিল ২০২১, ২২:১৮:১৫  |  অনলাইন সংস্করণ

পরকীয়ার জেরে দিনাজপুরের পার্বতীপুরে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে স্বামী শাহাজাদা হোসেনের (৪০) গলায় ওড়না পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে স্ত্রী। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে পৌর শহরের চান্দোয়াপাড়া গ্রামে।

পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য দিনাজপুর মর্গে পাঠিয়েছে। আটক করা হয়েছে ঘাতক স্ত্রী শরিফা বেগমকে (৩৫)।

নিহত শাহাজাদা হোসেন টাঙ্গাইলের দেশ বাংলা অটো রাইস মিলে শ্রমিক হিসেবে কাজ করতেন বলে জানা গেছে। তিনি পৌর শহরের চান্দোয়াপাড়ার মৃত জহির উদ্দিনের ছেলে।

জানা যায়, দেড় বছর আগে রামপুর ইউনিয়নের ভোটগাছ গ্রামের শফিকুল ইসলামের মেয়ে শরিফা বেগমের সঙ্গে বিয়ে হয় শাহাজাদার। শাহজাদা টাঙ্গাইল দেশ বাংলা অটো রাইস মিলে চাকরি করার সুবাদে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ে শরিফা।

বৃহস্পতিবার ভোর ৫টার দিকে শাহাজাদা বাড়িতে পৌঁছে। সকালে নাস্তার টেবিলে সুযোগ বুঝে স্ত্রী শরিফা বেগম সুজির সঙ্গে ঘুমের ট্যাবলেট মিশিয়ে দেয়। ট্যাবলেট মিশ্রিত সুজি খেয়ে শাহজাদা কিছুক্ষণ পর ঘুমের কোলে ঢলে পড়েন। এ সুযোগে স্ত্রী শরিফা বেগম স্বামীর গলায় ওড়না পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে মৃত্যু নিশ্চিত করে।

পার্বতীপুর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সোহেল রানা জানান, এ ঘটনায় নিহতের ভাই পার্বতীপুর মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ স্ত্রী শরিফা বেগমকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়েছে। প্রাথমিক জবানবন্দিতে শরিফা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছে।

পরকীয়ার জেরে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে স্বামীকে হত্যা

 পার্বতীপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি 
১৫ এপ্রিল ২০২১, ১০:১৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পরকীয়ার জেরে দিনাজপুরের পার্বতীপুরে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে স্বামী শাহাজাদা হোসেনের (৪০) গলায় ওড়না পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে স্ত্রী। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে পৌর শহরের চান্দোয়াপাড়া গ্রামে।

পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য দিনাজপুর মর্গে পাঠিয়েছে। আটক করা হয়েছে ঘাতক স্ত্রী শরিফা বেগমকে (৩৫)।

নিহত শাহাজাদা হোসেন টাঙ্গাইলের দেশ বাংলা অটো রাইস মিলে শ্রমিক হিসেবে কাজ করতেন বলে জানা গেছে। তিনি পৌর শহরের চান্দোয়াপাড়ার মৃত জহির উদ্দিনের ছেলে।

জানা যায়, দেড় বছর আগে রামপুর ইউনিয়নের ভোটগাছ গ্রামের শফিকুল ইসলামের মেয়ে শরিফা বেগমের সঙ্গে বিয়ে হয় শাহাজাদার। শাহজাদা টাঙ্গাইল দেশ বাংলা অটো রাইস মিলে চাকরি করার সুবাদে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ে শরিফা।

বৃহস্পতিবার ভোর ৫টার দিকে শাহাজাদা বাড়িতে পৌঁছে। সকালে নাস্তার টেবিলে সুযোগ বুঝে স্ত্রী শরিফা বেগম সুজির সঙ্গে ঘুমের ট্যাবলেট মিশিয়ে দেয়। ট্যাবলেট মিশ্রিত সুজি খেয়ে শাহজাদা কিছুক্ষণ পর ঘুমের কোলে ঢলে পড়েন। এ সুযোগে স্ত্রী শরিফা বেগম স্বামীর গলায় ওড়না পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে মৃত্যু নিশ্চিত করে।

পার্বতীপুর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সোহেল রানা জানান, এ ঘটনায় নিহতের ভাই পার্বতীপুর মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ স্ত্রী শরিফা বেগমকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়েছে। প্রাথমিক জবানবন্দিতে শরিফা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন