রফিকুল ইসলাম মাদানী দুই দিনের রিমান্ডে
jugantor
রফিকুল ইসলাম মাদানী দুই দিনের রিমান্ডে

  গাজীপুর প্রতিনিধি  

১৬ এপ্রিল ২০২১, ২০:৩৭:০৪  |  অনলাইন সংস্করণ

রাষ্ট্রবিরোধী উস্কানিমূলক বক্তব্য দেয়ায় অভিযুক্ত ‘শিশুবক্তা’খ্যাত রফিকুল ইসলাম মাদানীর দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। বৃহস্পতিবার শুনানি শেষে আদালত তার দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এর আগে মঙ্গলবার সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে গাজীপুর আদালতে আবেদন করা হয়।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন গাছা থানার ওসি মো. ইসমাইল হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, বিতর্কিত শিশুবক্তা রফিকুল ইসলাম মাদানীর মোবাইল ফোনে আপত্তিকর এডাল্ট কনটেন্ট অশ্লীল পর্নোগ্রাফি পেয়েছেন ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরা। মাদানীর মোবাইল ফোনটি ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে এসব পর্নোগ্রাফির সন্ধান পায়। তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রবিরোধী উস্কানিমূলক বক্তব্য দেয়ায় দায়েরকৃত ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে করা মামলার সঙ্গে পর্নোগ্রাফি আইনের ধারা যুক্ত করা হয়েছে। তাকে বিভিন্ন বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

উল্লেখ্য, গত ৮ এপ্রিল নেত্রকোনার নিজ বাড়ি থেকে রফিকুল ইসলাম মাদানীকে আটকের পর গাছা থানায় তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করে র‌্যাব। এ সময় তার কাছ থেকে চারটি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়। এরপর থেকে তিনি কাশিমপুর কারাগারে রয়েছেন। পরবর্তীতে তার বিরুদ্ধে একই আইনে গাজীপুরের বাসন থানায় আরেকটি মামলা হয়েছে। রফিকুল ইসলাম মাদানীর বিরুদ্ধে রাষ্ট্রবিরোধী উস্কানিমূলক বক্তব্য দেয়ার অভিযোগেও মামলা রয়েছে।

রফিকুল ইসলাম মাদানী দুই দিনের রিমান্ডে

 গাজীপুর প্রতিনিধি 
১৬ এপ্রিল ২০২১, ০৮:৩৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রাষ্ট্রবিরোধী উস্কানিমূলক বক্তব্য দেয়ায় অভিযুক্ত ‘শিশুবক্তা’খ্যাত রফিকুল ইসলাম মাদানীর দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। বৃহস্পতিবার শুনানি শেষে আদালত তার দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এর আগে মঙ্গলবার সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে গাজীপুর আদালতে আবেদন করা হয়। 

গাজীপুর মেট্রোপলিটন গাছা থানার ওসি মো. ইসমাইল হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, বিতর্কিত শিশুবক্তা রফিকুল ইসলাম মাদানীর মোবাইল ফোনে আপত্তিকর এডাল্ট কনটেন্ট অশ্লীল পর্নোগ্রাফি পেয়েছেন ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরা। মাদানীর মোবাইল ফোনটি ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে এসব পর্নোগ্রাফির সন্ধান পায়। তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রবিরোধী উস্কানিমূলক বক্তব্য দেয়ায় দায়েরকৃত ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে করা মামলার সঙ্গে পর্নোগ্রাফি আইনের ধারা যুক্ত করা হয়েছে। তাকে বিভিন্ন বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

উল্লেখ্য, গত ৮ এপ্রিল নেত্রকোনার নিজ বাড়ি থেকে রফিকুল ইসলাম মাদানীকে আটকের পর গাছা থানায় তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করে র‌্যাব। এ সময় তার কাছ থেকে চারটি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়। এরপর থেকে তিনি কাশিমপুর কারাগারে রয়েছেন। পরবর্তীতে তার বিরুদ্ধে একই আইনে গাজীপুরের বাসন থানায় আরেকটি মামলা হয়েছে। রফিকুল ইসলাম মাদানীর বিরুদ্ধে রাষ্ট্রবিরোধী উস্কানিমূলক বক্তব্য দেয়ার অভিযোগেও মামলা রয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন