যুবলীগ নেতাকে গলা কেটে হত্যার হুমকি ‘হেফাজত সমর্থকের’
jugantor
যুবলীগ নেতাকে গলা কেটে হত্যার হুমকি ‘হেফাজত সমর্থকের’

  হাজীগঞ্জ (চাঁদপুর) প্রতিনিধি  

১৮ এপ্রিল ২০২১, ১৭:৪৮:৪৩  |  অনলাইন সংস্করণ

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে যুবলীগ নেতা মাসুদ ইকবালকে ফোনে গলা কেটে হত্যার হুমকি দেয়া হয়েছে। হুমকিদাতা নিজেকে হেফাজত সমর্থক বলে পরিচয় দিয়েছে। এমনটাই দাবি করেছেন হাজীগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক মাসুদ ইকবাল।

বোরবার বিকালে হাজীগঞ্জ বাজারে সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি এ দাবি করেন। এ ঘটনায় হাজীগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা ওমর ফারুক বাদী হয়ে হাজীগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন। গত ১৫ এপ্রিল তিনি এ ডায়েরি করেন।

সংবাদ সম্মেলনে যুবলীগ নেতা মাসুদ ইকবার জানান, গত কয়েক দিন থেকে 'আখিরাত' নামে একটি ফেসবুক পেজ থেকে ম্যাসেঞ্জারে আমাকে হত্যার হুমকি দেয়। পরে বিষয়টি হাজীগঞ্জ থানাকে অবহিত করা হয়। তারপরই ০০৯৭১৫২৩১৬৬৬৭২ নাম্বার থেকে তাকে গলাকেটে হত্যার হুমকি দেয়।

তিনি জানান, হুমকিদাতা হেফাজতের কর্মী পরিচয় দিয়ে তাকে হত্যার হুমকি দেয়। পরে যুবলীগ নেতা ওমর ফারুক বাদী হয়ে হাজীগঞ্জ থানায় সাধারণ ডায়রি করেন। তারপর থেকে বারবার তাকে গলা কেটে হত্যার হুমকি দেয়া হচ্ছে। সংবাদ সম্মেলনে তিনি দ্রুত হুমকিদাতাদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনতে প্রশাসনের প্রতি জোর দাবি জানান।

রোববার হাজীগঞ্জ রোটারি ক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক জন্টু দাস ও মামলার বাদী ওমর ফারুক।

এ সময় হাজীগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের সকল ইউনিয়নের সভাপতি সাধারণ সম্পাদকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

যুবলীগ নেতাকে গলা কেটে হত্যার হুমকি ‘হেফাজত সমর্থকের’

 হাজীগঞ্জ (চাঁদপুর) প্রতিনিধি 
১৮ এপ্রিল ২০২১, ০৫:৪৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে যুবলীগ নেতা মাসুদ ইকবালকে ফোনে গলা কেটে হত্যার হুমকি দেয়া হয়েছে। হুমকিদাতা নিজেকে হেফাজত সমর্থক বলে পরিচয় দিয়েছে। এমনটাই দাবি করেছেন হাজীগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক মাসুদ ইকবাল। 

বোরবার বিকালে হাজীগঞ্জ বাজারে সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি এ দাবি করেন। এ ঘটনায় হাজীগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা ওমর ফারুক বাদী হয়ে হাজীগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন। গত ১৫ এপ্রিল তিনি এ ডায়েরি করেন।

সংবাদ সম্মেলনে যুবলীগ নেতা মাসুদ ইকবার জানান, গত কয়েক দিন থেকে 'আখিরাত' নামে একটি ফেসবুক পেজ থেকে ম্যাসেঞ্জারে আমাকে হত্যার হুমকি দেয়। পরে বিষয়টি হাজীগঞ্জ থানাকে অবহিত করা হয়। তারপরই ০০৯৭১৫২৩১৬৬৬৭২ নাম্বার থেকে তাকে গলাকেটে হত্যার হুমকি দেয়। 

তিনি জানান, হুমকিদাতা হেফাজতের কর্মী পরিচয় দিয়ে তাকে হত্যার হুমকি দেয়। পরে যুবলীগ নেতা ওমর ফারুক বাদী হয়ে হাজীগঞ্জ থানায় সাধারণ ডায়রি করেন। তারপর থেকে বারবার তাকে গলা কেটে হত্যার হুমকি দেয়া হচ্ছে। সংবাদ সম্মেলনে তিনি দ্রুত হুমকিদাতাদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনতে প্রশাসনের প্রতি জোর দাবি জানান। 

রোববার হাজীগঞ্জ রোটারি ক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক জন্টু দাস ও মামলার বাদী ওমর ফারুক।

এ সময় হাজীগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের সকল ইউনিয়নের সভাপতি সাধারণ সম্পাদকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।  

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন