মেডিকেলে সুযোগ পাওয়া সেই শরীফার পাশে আব্দুল কুদ্দুস এমপি
jugantor
যুগান্তরে সংবাদ প্রকাশ
মেডিকেলে সুযোগ পাওয়া সেই শরীফার পাশে আব্দুল কুদ্দুস এমপি

  বড়াইগ্রাম (নাটোর) প্রতিনিধি   

১৮ এপ্রিল ২০২১, ২১:১৭:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

যুগান্তরে সংবাদ প্রকাশের পর নাটোরের বড়াইগ্রাম থেকে নেত্রকোনা মেডিকেল কলেজে ভর্তির সুযোগ পাওয়া অদম্য মেধাবী শরীফা খাতুনের পাশে দাঁড়িয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক প্রতিমন্ত্রী অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস এমপি। একই সঙ্গে উপজেলা নির্বাহী অফিসারসহ ‘আমার হৃদয়ে নাটোর’ নামে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনও তাকে সহযোগিতা করছে।

রোববার দুপুরে অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস এমপির পক্ষে তার ছেলে আসিফ আব্দুল্লাহ বিন কুদ্দুস শোভন উপজেলার জোনাইলে শরীফাদের বাড়িতে যান। এ সময় তিনি এমবিবিএসে ভর্তির জন্য নগদ ২০ হাজার এবং তার সঙ্গে থাকা জোনাইল ইউপি চেয়ারম্যান তোজাম্মেল হক আরও পাঁচ হাজার টাকা শরীফার পিতা লোকমান আলীর হাতে তুলে দেন।

একই সঙ্গে এমপিপুত্র শরীফার বইপুস্তক কেনাসহ আগামীতে প্রয়োজনমতো সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

এ সময় সংসদ সদস্যের ব্যক্তিগত সহকারী মোহাম্মদ ইব্রাহিম, জোনাইল ইউনিয়ন পরিষদের সচিব সঞ্জয় চাকী, যুবলীগের আহ্বায়ক আল মামুন এবং বড়াইগ্রাম উপজেলা প্রেস ক্লাব সভাপতি যুগান্তর প্রতিনিধি অহিদুল হক উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাহাঙ্গীর আলমও যুগান্তরের এই প্রতিবেদকের মাধ্যমে শরীফা খাতুনের খোঁজ খবর নেয়ার পাশাপাশি তাকে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন।

অপরদিকে ‘আমার হৃদয়ে নাটোর’ নামে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের পক্ষ থেকে শরীফার লেখাপড়ার খরচ চালাতে নিয়মিত সহযোগিতার আশ্বাস দেয়া হয়েছে।

‘আমার হৃদয়ে নাটোর’ এর অন্যতম সংগঠক নাটোর প্রেস ক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ফারাজী আহম্মদ রফিক বাবন বলেন, মেধাবীদের পড়াশুনা যেন অর্থাভাবে থমকে না যায় সেজন্য আমরা সহযোগিতা করে থাকি। শরীফাকেও তার লেখাপড়ার খরচ চালাতে আমাদের শিক্ষাবৃত্তির আওতায় এনে মাসিকভাবে সাধ্যমতো সহযোগিতা করা হবে।

প্রসঙ্গত, গত শনিবার দৈনিক যুগান্তরে ‘অর্থাভাবে থেমে যাচ্ছে শরীফার ডাক্তার হওয়ার স্বপ্ন’ শিরোনামে একটি সচিত্র সংবাদ প্রকাশ হলে বিষয়টি সবার দৃষ্টিগোচর হয়।

যুগান্তরে সংবাদ প্রকাশ

মেডিকেলে সুযোগ পাওয়া সেই শরীফার পাশে আব্দুল কুদ্দুস এমপি

 বড়াইগ্রাম (নাটোর) প্রতিনিধি  
১৮ এপ্রিল ২০২১, ০৯:১৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

যুগান্তরে সংবাদ প্রকাশের পর নাটোরের বড়াইগ্রাম থেকে নেত্রকোনা মেডিকেল কলেজে ভর্তির সুযোগ পাওয়া অদম্য মেধাবী শরীফা খাতুনের পাশে দাঁড়িয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক প্রতিমন্ত্রী অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস এমপি। একই সঙ্গে উপজেলা নির্বাহী অফিসারসহ ‘আমার হৃদয়ে নাটোর’ নামে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনও তাকে সহযোগিতা করছে।

রোববার দুপুরে অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস এমপির পক্ষে তার ছেলে আসিফ আব্দুল্লাহ বিন কুদ্দুস শোভন উপজেলার জোনাইলে শরীফাদের বাড়িতে যান। এ সময় তিনি এমবিবিএসে ভর্তির জন্য নগদ ২০ হাজার এবং তার সঙ্গে থাকা জোনাইল ইউপি চেয়ারম্যান তোজাম্মেল হক আরও পাঁচ হাজার টাকা শরীফার পিতা লোকমান আলীর হাতে তুলে দেন।

একই সঙ্গে এমপিপুত্র শরীফার বইপুস্তক কেনাসহ আগামীতে প্রয়োজনমতো সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

এ সময় সংসদ সদস্যের ব্যক্তিগত সহকারী মোহাম্মদ ইব্রাহিম, জোনাইল ইউনিয়ন পরিষদের সচিব সঞ্জয় চাকী, যুবলীগের আহ্বায়ক আল মামুন এবং বড়াইগ্রাম উপজেলা প্রেস ক্লাব সভাপতি যুগান্তর প্রতিনিধি অহিদুল হক উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাহাঙ্গীর আলমও  যুগান্তরের এই প্রতিবেদকের মাধ্যমে শরীফা খাতুনের খোঁজ খবর নেয়ার পাশাপাশি তাকে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন।

অপরদিকে ‘আমার হৃদয়ে নাটোর’ নামে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের পক্ষ থেকে শরীফার লেখাপড়ার খরচ চালাতে নিয়মিত সহযোগিতার আশ্বাস দেয়া হয়েছে।

‘আমার হৃদয়ে নাটোর’ এর অন্যতম সংগঠক নাটোর প্রেস ক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ফারাজী আহম্মদ রফিক বাবন বলেন, মেধাবীদের পড়াশুনা যেন অর্থাভাবে থমকে না যায় সেজন্য আমরা সহযোগিতা করে থাকি। শরীফাকেও তার লেখাপড়ার খরচ চালাতে আমাদের শিক্ষাবৃত্তির আওতায় এনে মাসিকভাবে সাধ্যমতো সহযোগিতা করা হবে।

প্রসঙ্গত, গত শনিবার দৈনিক যুগান্তরে ‘অর্থাভাবে থেমে যাচ্ছে শরীফার ডাক্তার হওয়ার স্বপ্ন’ শিরোনামে একটি সচিত্র সংবাদ প্রকাশ হলে বিষয়টি সবার দৃষ্টিগোচর হয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন