সড়ক নির্মাণে দুর্নীতি ঠেকাতে নৈশপ্রহরী নিয়োগ! 
jugantor
সড়ক নির্মাণে দুর্নীতি ঠেকাতে নৈশপ্রহরী নিয়োগ! 

  আরেফিন সহিদ, বাউফল (পটুয়াখালী)   

২০ এপ্রিল ২০২১, ১৮:১৭:০৩  |  অনলাইন সংস্করণ

পটুয়াখালীর বাউফলে একটি কার্পেটিং সড়কের নির্মাণকাজে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে। অনিয়ম দুর্নীতি বন্ধে প্রকল্পটির তদারকির জন্য উপজেলা এলজিইডির পক্ষ থেকে একজন নৈশপ্রহরী রাখা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর ২০১৯-২০২০ অর্থবছরে বাউফল সদর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের হাসন আলী হাওলাদার-বুর্জোগ আলী সিকদার-ক্বারী ইব্রাহিম সড়ক নির্মাণের জন্য দরপত্র আহবান করে। দরপত্র প্রক্রিয়ায় অংশ নিয়ে নাজমুস শাহাদাত এন্টারপ্রাইজ নামের একটি প্রতিষ্ঠান ১ কোটি ৯৯ লাখ ৩০ হাজার টাকার চুক্তিতে প্রকল্পটি বাস্তবায়নের দায়িত্ব পায়।

প্রকল্পটির নির্মাণ কাজ শুরুর পর থেকে স্যান্ড ফিলিং, সাববেজ ও ম্যাকাডম নির্মাণের ক্ষেত্রে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ ওঠে। নিম্নমানের ইট দিয়ে নির্মাণ করা হয় সাববেজ ও ম্যাকাডম। সঠিক নিয়মে রোলার দিয়ে কমপেকশন না করেই কার্পেটিং করা হচ্ছে।

নিয়মানুযায়ী প্রথমে ৪ প্রকার পাথর মিক্সিং করে হট মিক্স প্লান্টে হিট দিতে হয়। কিন্ত সরাসরি পৃথকভাবে পাথর হট মিক্সপ্লান্টে দিয়ে বিটুমিন মেশানো হচ্ছে। আর মঙ্গলবার উপজেলা এলজিইডির নৈশপ্রহরী হারুন অর রশিদকে এসব কাজ তদারকি করতে দেখা গেছে। তবে সরেজমিন পরিদর্শনকালে উপজেলা এলজিইডির কোনো প্রকৌশলীকে প্রকল্পের সাইটে দেখা যায়নি।

বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে ওই এলাকার কাইয়ুম হোসেন, আরিফুর রহমান ও কাওসার হোসেন বলেন, কমপেকশন করতে পানির প্রয়োজন কিন্তু সড়কের কোথাও পানির ব্যবহার করা হয়নি। নির্মাণকাজে পদে পদে অনিয়ম করা হচ্ছে। সিডিউল অনুযায়ী সড়কটির একাধিক স্থানে গাইডওয়াল নির্মাণ করা হয়নি। এছাড়াও প্রকল্পের সাইটে কোনো কর্মকর্তা আসেন না। কার্পেটিং করার সময় তদারকি করছেন এলজিইডি অফিসের নাইট গার্ড।

নির্মাণকাজে অনিয়মের অভিযোগ অস্বীকার করে নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি শান্ত বলেন, কমপেকশনের সময় আশপাশের পুকুর থেকে এলাকার লোকজন পানি দেয়নি। তাই একটু সমস্যা হয়েছিল। বাকি কাজ সিডিউল অনুযায়ী হচ্ছে।

এলজিইডির বাউফল উপজেলা প্রকৌশলী সুলতান হোসেন বলেন, জনবল কম থাকায় নৈশপ্রহরী হারুনকে কার্পেটিংয়ের সময় থাকতে বলা হয়েছে। এছাড়া নির্মাণকাজে অনিয়ম হলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সড়ক নির্মাণে দুর্নীতি ঠেকাতে নৈশপ্রহরী নিয়োগ! 

 আরেফিন সহিদ, বাউফল (পটুয়াখালী)  
২০ এপ্রিল ২০২১, ০৬:১৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পটুয়াখালীর বাউফলে একটি কার্পেটিং সড়কের নির্মাণকাজে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে। অনিয়ম দুর্নীতি বন্ধে প্রকল্পটির তদারকির জন্য উপজেলা এলজিইডির পক্ষ থেকে একজন নৈশপ্রহরী রাখা হয়েছে। 

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর ২০১৯-২০২০ অর্থবছরে বাউফল সদর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের হাসন আলী হাওলাদার-বুর্জোগ আলী সিকদার-ক্বারী ইব্রাহিম সড়ক নির্মাণের জন্য দরপত্র আহবান করে। দরপত্র প্রক্রিয়ায় অংশ নিয়ে নাজমুস শাহাদাত এন্টারপ্রাইজ নামের একটি প্রতিষ্ঠান ১ কোটি ৯৯ লাখ ৩০ হাজার টাকার চুক্তিতে প্রকল্পটি বাস্তবায়নের দায়িত্ব পায়। 

প্রকল্পটির নির্মাণ কাজ শুরুর পর থেকে স্যান্ড ফিলিং, সাববেজ ও ম্যাকাডম নির্মাণের ক্ষেত্রে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ ওঠে। নিম্নমানের ইট দিয়ে নির্মাণ করা হয় সাববেজ ও ম্যাকাডম। সঠিক নিয়মে রোলার দিয়ে কমপেকশন না করেই কার্পেটিং করা হচ্ছে। 

নিয়মানুযায়ী প্রথমে ৪ প্রকার পাথর মিক্সিং করে হট মিক্স প্লান্টে হিট দিতে হয়। কিন্ত সরাসরি পৃথকভাবে পাথর হট মিক্সপ্লান্টে দিয়ে বিটুমিন মেশানো হচ্ছে। আর মঙ্গলবার উপজেলা এলজিইডির নৈশপ্রহরী হারুন অর রশিদকে এসব কাজ তদারকি করতে দেখা গেছে। তবে সরেজমিন পরিদর্শনকালে উপজেলা এলজিইডির কোনো প্রকৌশলীকে প্রকল্পের সাইটে দেখা যায়নি। 

বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে ওই এলাকার কাইয়ুম হোসেন, আরিফুর রহমান ও কাওসার হোসেন বলেন, কমপেকশন করতে পানির প্রয়োজন কিন্তু সড়কের কোথাও পানির ব্যবহার করা হয়নি। নির্মাণকাজে পদে পদে অনিয়ম করা হচ্ছে। সিডিউল অনুযায়ী সড়কটির একাধিক স্থানে গাইডওয়াল নির্মাণ করা হয়নি। এছাড়াও প্রকল্পের সাইটে কোনো কর্মকর্তা আসেন না। কার্পেটিং করার সময় তদারকি করছেন এলজিইডি অফিসের নাইট গার্ড। 

নির্মাণকাজে অনিয়মের অভিযোগ অস্বীকার করে নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি শান্ত বলেন, কমপেকশনের সময় আশপাশের পুকুর থেকে এলাকার লোকজন পানি দেয়নি। তাই একটু সমস্যা হয়েছিল। বাকি কাজ সিডিউল অনুযায়ী হচ্ছে। 

এলজিইডির বাউফল উপজেলা প্রকৌশলী সুলতান হোসেন বলেন, জনবল কম থাকায় নৈশপ্রহরী হারুনকে কার্পেটিংয়ের সময় থাকতে বলা হয়েছে। এছাড়া নির্মাণকাজে অনিয়ম হলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন