হার্ট-কিডনি নষ্ট হওয়ার অভিশাপ দিলেন কাদের মির্জা
jugantor
হার্ট-কিডনি নষ্ট হওয়ার অভিশাপ দিলেন কাদের মির্জা

  কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি  

২০ এপ্রিল ২০২১, ২২:১৫:১৫  |  অনলাইন সংস্করণ

নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা পুলিশের অ্যাডিশনাল এসপি শামীমকে হুঁশিয়ারি করে বলেন, আমার গায়ে হাত দিয়েছ। স্মরণ রেখ, বাংলাদেশের যে প্রান্তে তুমি যাও, তোমাকে জবাব দিতেই হবে। অস্ত্র তোমার হাতে থাকবে না। উপরে আল্লাহ আছে। স্থানীয় ভাষায় বলেন- কিডনি নষ্ট ওই যাইব, হার্ট নষ্ট ওই যাইব, ওডা হাগল ওই যাইবি (কিডনি নষ্ট হয়ে যাবে, হার্ট নষ্ট হয়ে যাবে, তুমি পাগল হয়ে যাবে); আল্লাহ অত্যাচার কখনো পছন্দ করে না। আর যারা ক্ষমতায় থেকে আমার ওপর অত্যাচার করছে- বলে দিতে চাই, ক্ষমতা চিরস্থায়ী নয়। একদিন গণআদালতে, আল্লাহর আদালতে তোমাদের বিচার হবে।

মঙ্গলবার দুপুরে বসুরহাট পৌরসভায় নিজ কার্যালয় থেকে তার অনুসারী স্বপন মাহমুদের ফেসবুক থেকে লাইভে এসে এসব কথা বলেন।

কাদের মির্জা তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ দুপুর ২টায় পুনরায় লাইভে এসে বলেন, সব কিছুর শেষ আছে। ওসি তুমি চোর-ডাকাত নিয়ে থানায় বসে থাক। যারা ব্যাংক ডাকাতি করে মানুষের অর্থ আত্মসাৎ করে, অস্ত্রবাজি করে, তাদের নিয়ে থানায় বসে মামলার চুক্তি কর। বাদল্যা ডাকাত (উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান বাদল) সাংবাদিক মুজাক্কির ও সিএনজিচালক আলাউদ্দিনকে হত্যা করার পরও সে কীভাবে থানায় যায়, কীভাবে প্রকাশ্যে রাস্তায় ঘুরাফেরা করে।

তিনি বলেন, আমার ছেলেকে মেরে, আমার ভাইয়ের ওপর বোমা হামলা করে কীভাবে ভূমিদস্যু সবুজ্যা (নোয়াখালী জেলা পরিষদের সদস্য আক্রাম উদ্দিন চৌধুরী সবুজ), চাঁদাবাজ রুমেল্ল্যা (উপজেলা যুবলীগ সভাপতি ও ভাইস চেয়ারম্যান আজমপাশা চৌধুরী রুমেল) কীভাবে ঘুরাফেরা করে।

তিনি বলেন, অপরাজনীতির হোতারা এখন আওয়ামী লীগ নিয়ন্ত্রণ করছে। ক্ষমতায় থাকার জন্য আওয়ামী লীগ হেফাজত ইসলামের মতো দলের সঙ্গে ঘর সংসার করছে, এদের নিয়ে রাষ্ট্রও পরিচালনা করছে। ক্ষমতা এখন আমাদের কাছে এত বড়, সব আদর্শ বিসর্জন দিয়ে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ থেকে বিচ্যুত হয়ে গেছে। আওয়ামী লীগ এখন পথহারা আওয়ামী লীগ। আওয়ামী লীগ এখন অপশক্তিবেষ্টিত আওয়ামী লীগ। এ আওয়ামী লীগ এখন অস্ত্রবাজ, টেন্ডারবাজ, চাকরি বাণিজ্যবাজদের আওয়ামী লীগে পরিণত হয়েছে। আমাদের মতো ৪৭ বছর যাবত আওয়ামী লীগ করা কেউ শুধু এখানে নয়, বাংলাদেশে কোথাও আওয়ামী লীগের সঙ্গে নেই।

হার্ট-কিডনি নষ্ট হওয়ার অভিশাপ দিলেন কাদের মির্জা

 কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি 
২০ এপ্রিল ২০২১, ১০:১৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা পুলিশের অ্যাডিশনাল এসপি শামীমকে হুঁশিয়ারি করে বলেন, আমার গায়ে হাত দিয়েছ। স্মরণ রেখ, বাংলাদেশের যে প্রান্তে তুমি যাও, তোমাকে জবাব দিতেই হবে। অস্ত্র তোমার হাতে থাকবে না। উপরে আল্লাহ আছে। স্থানীয় ভাষায় বলেন- কিডনি নষ্ট ওই যাইব, হার্ট নষ্ট ওই যাইব, ওডা হাগল ওই যাইবি (কিডনি নষ্ট হয়ে যাবে, হার্ট নষ্ট হয়ে যাবে, তুমি পাগল হয়ে যাবে); আল্লাহ অত্যাচার কখনো পছন্দ করে না। আর যারা ক্ষমতায় থেকে আমার ওপর অত্যাচার করছে- বলে দিতে চাই, ক্ষমতা চিরস্থায়ী নয়। একদিন গণআদালতে, আল্লাহর আদালতে তোমাদের বিচার হবে। 

মঙ্গলবার দুপুরে বসুরহাট পৌরসভায় নিজ কার্যালয় থেকে তার অনুসারী স্বপন মাহমুদের ফেসবুক থেকে লাইভে এসে এসব কথা বলেন।

কাদের মির্জা তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ দুপুর ২টায় পুনরায় লাইভে এসে বলেন, সব কিছুর শেষ আছে। ওসি তুমি চোর-ডাকাত নিয়ে থানায় বসে থাক। যারা ব্যাংক ডাকাতি করে মানুষের অর্থ আত্মসাৎ করে, অস্ত্রবাজি করে, তাদের নিয়ে থানায় বসে মামলার চুক্তি কর। বাদল্যা ডাকাত (উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান বাদল) সাংবাদিক মুজাক্কির ও সিএনজিচালক আলাউদ্দিনকে হত্যা করার পরও সে কীভাবে থানায় যায়, কীভাবে প্রকাশ্যে রাস্তায় ঘুরাফেরা করে।

তিনি বলেন, আমার ছেলেকে মেরে, আমার ভাইয়ের ওপর বোমা হামলা করে কীভাবে ভূমিদস্যু সবুজ্যা (নোয়াখালী জেলা পরিষদের সদস্য আক্রাম উদ্দিন চৌধুরী সবুজ), চাঁদাবাজ রুমেল্ল্যা (উপজেলা যুবলীগ সভাপতি ও ভাইস চেয়ারম্যান আজমপাশা চৌধুরী রুমেল) কীভাবে ঘুরাফেরা করে। 

তিনি বলেন, অপরাজনীতির হোতারা এখন আওয়ামী লীগ নিয়ন্ত্রণ করছে। ক্ষমতায় থাকার জন্য আওয়ামী লীগ হেফাজত ইসলামের মতো দলের সঙ্গে ঘর সংসার করছে, এদের নিয়ে রাষ্ট্রও পরিচালনা করছে। ক্ষমতা এখন আমাদের কাছে এত বড়, সব আদর্শ বিসর্জন দিয়ে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ থেকে বিচ্যুত হয়ে গেছে। আওয়ামী লীগ এখন পথহারা আওয়ামী লীগ। আওয়ামী লীগ এখন অপশক্তিবেষ্টিত আওয়ামী লীগ। এ আওয়ামী লীগ এখন অস্ত্রবাজ, টেন্ডারবাজ, চাকরি বাণিজ্যবাজদের আওয়ামী লীগে পরিণত হয়েছে। আমাদের মতো ৪৭ বছর যাবত আওয়ামী লীগ করা কেউ শুধু এখানে নয়, বাংলাদেশে কোথাও আওয়ামী লীগের সঙ্গে নেই।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : আবদুল কাদের মির্জা

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন