হাটহাজারী ভূমি অফিসে ভাংচুর-আগুনের মামলা দুটির তদন্ত করবে সিআইডি
jugantor
হাটহাজারী ভূমি অফিসে ভাংচুর-আগুনের মামলা দুটির তদন্ত করবে সিআইডি

  হাটহাজারী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি  

২০ এপ্রিল ২০২১, ২৩:১৩:২৭  |  অনলাইন সংস্করণ

চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে ভূমি অফিস ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় থানায় দায়ের হওয়া বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলা দুটির পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) ওপর তদন্তভার ন্যস্ত করা হয়েছে।

পুলিশ সদর দপ্তরের সিদ্ধান্তে গত সোমবার ২৩টি মামলার সঙ্গে হাটহাজারী থানায় দায়ের হওয়া বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলা দুটিও সিআইডিকে দেওয়া হয়।

মামলা দুটি তদন্তভার পাওয়ার কথা স্বীকার করে সিআইডি চট্টগ্রামের বিশেষ পুলিশ সুপার শাহনেওয়াজ খালেদ গণমাধ্যমেকে বলেন, আমরা হাটহাজারী থানায় দায়ের হওয়া বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলা দুটির তদন্তভার পেয়েছি।

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের ২৬ মার্চ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের বিরোধিতা করে জুমার নামাজের পর ঢাকার বায়তুল মোকাররম মসজিদ এলাকায় বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশ ও সরকারি দলের নেতাকর্মীদের সংঘর্ষ হয়। এর প্রতিবাদে হাটহাজারীতে মাদ্রাসা শিক্ষার্থীরা থানায় হামলা চালালে পুলিশ আত্মরক্ষার্থে গুলি ছোড়ে। হাটহাজারীতে চারজন নিহত হন।

নিহতের জেরে বিক্ষুব্ধ ছাত্ররা হাটহাজারী থানা, ডাকবাংলো, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও সদর ইউনিয়ন ভূমি অফিসে হামলা চালান এবং হাটহাজারী-খাগড়াছড়ি সড়কের ওপর দেয়াল তৈরি করে দুই দিন অবরোধ করে রাখেন।

ভূমি অফিসে ভাংচুর, ডাকবাংলোয় আগুন, থানায় হামলা ও পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় থানায় ৭টি মামলা রুজু হয়। এর মধ্যে সহকারী কমিশনারের (ভূমি) গাড়ি আগুনে পুড়িয়ে দেয়া, এসিল্যান্ড অফিসের সব নথি পুড়িয়ে তছনছ করা হয়। সব আসবাবপত্র ও ভূমি অফিস ভাংচুরের ঘটনায় উক্ত অফিসের দুইজন কর্মকর্তা বাদী হয়ে দুটি মামলা রুজু করেন। এসব মামলার প্রতিটিতে ২৫০ থেকে ৩০০ জন অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে।

হাটহাজারী ভূমি অফিসে ভাংচুর-আগুনের মামলা দুটির তদন্ত করবে সিআইডি

 হাটহাজারী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি 
২০ এপ্রিল ২০২১, ১১:১৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে ভূমি অফিস ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় থানায় দায়ের হওয়া বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলা দুটির পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) ওপর তদন্তভার ন্যস্ত করা হয়েছে। 

পুলিশ সদর দপ্তরের সিদ্ধান্তে গত সোমবার ২৩টি মামলার সঙ্গে হাটহাজারী থানায় দায়ের হওয়া বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলা দুটিও সিআইডিকে দেওয়া হয়। 

মামলা দুটি তদন্তভার পাওয়ার কথা স্বীকার করে সিআইডি চট্টগ্রামের বিশেষ পুলিশ সুপার শাহনেওয়াজ খালেদ গণমাধ্যমেকে বলেন, আমরা হাটহাজারী থানায় দায়ের হওয়া বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলা দুটির তদন্তভার পেয়েছি। 

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের ২৬ মার্চ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের বিরোধিতা করে জুমার নামাজের পর ঢাকার বায়তুল মোকাররম মসজিদ এলাকায় বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশ ও সরকারি দলের নেতাকর্মীদের সংঘর্ষ হয়। এর প্রতিবাদে হাটহাজারীতে মাদ্রাসা শিক্ষার্থীরা থানায় হামলা চালালে পুলিশ আত্মরক্ষার্থে গুলি ছোড়ে। হাটহাজারীতে চারজন নিহত হন। 

নিহতের জেরে বিক্ষুব্ধ ছাত্ররা হাটহাজারী থানা, ডাকবাংলো, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও সদর ইউনিয়ন ভূমি অফিসে হামলা চালান এবং হাটহাজারী-খাগড়াছড়ি সড়কের ওপর দেয়াল তৈরি করে দুই দিন অবরোধ করে রাখেন।

ভূমি অফিসে ভাংচুর, ডাকবাংলোয় আগুন, থানায় হামলা ও পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় থানায় ৭টি মামলা রুজু হয়। এর মধ্যে সহকারী কমিশনারের (ভূমি) গাড়ি আগুনে পুড়িয়ে দেয়া, এসিল্যান্ড অফিসের সব নথি পুড়িয়ে তছনছ করা হয়। সব আসবাবপত্র ও ভূমি অফিস ভাংচুরের ঘটনায় উক্ত অফিসের দুইজন কর্মকর্তা বাদী হয়ে দুটি মামলা রুজু করেন। এসব মামলার প্রতিটিতে ২৫০ থেকে ৩০০ জন অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর
 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন