করোনায় মৃত সহকর্মীর পাশে বিএনএ ওসমানী মেডিকেল শাখা
jugantor
করোনায় মৃত সহকর্মীর পাশে বিএনএ ওসমানী মেডিকেল শাখা

  সিলেট ব্যুরো  

২১ এপ্রিল ২০২১, ১৫:২৮:১৯  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনায় মৃত সহকর্মীর পাশে বিএনএ ওসমানী মেডিকেল শাখা

আবারও মানবিকতার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করল বাংলাদেশ নার্সেস অ্যাসোসিয়েশন (বিএনএ) সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল শাখা।

কোভিড আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া সহকর্মীর পরিবারের পাশে দাঁড়িয়ে বাড়িয়ে দিয়েছে সহযোগিতার হাত। সাহস জুগিয়েছে অসহায় পরিবারকে। রমজান মাসে নিজেদের বেতন থেকে দুই লাখ টাকা তুলে দিয়েছে কোভিডে মারা যাওয়া সহকারী নার্স মো. নূরুল ইসলামের স্ত্রী-সন্তানের হাতে।

যে কোনো সংকটে পরিবারটি পাশে থাকারও প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন বিএনএর নেতারা।

মঙ্গলবার দুপুরে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালকের কার্যালয়ে সহযোগিতার এই অর্থ তুলে দেওয়া হয় মো. নূরুল ইসলামের স্ত্রী মনিরা ইসলাম ও মেয়ে প্রিয়ন্তী ইসলামের হাতে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ব্রায়ান বঙ্কিম হালদার, উপপরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায়, সহকারী পরিচালক (প্রশাসন) ডা. আবুল কালাম আজাদ, সহকারী পরিচালক (অর্থ ও ভাণ্ডার) ডা. মাহবুবুল আলম, সেবা তত্ত্বাবধায়ক রেনোয়ারা আক্তার, উপসেবা তত্ত্বাবধায়ক মোসাম্মৎ রিনা বেগম, বাংলাদেশ নার্সেস অ্যাসোসিয়েশন (বিএনএ) সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল শাখার সভাপতি শামীমা নাসরিন, সহসভাপতি খাদিজা বেগম, জুবেদা খানম, সাধারণ সম্পাদক ইসরাইল আলী সাদেক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. সুলেমান আহমদ, সাংগঠনিক সম্পাদক অরবিন্দ চন্দ্র দাস, সহসাংগঠনিক সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, কোষাধ্যক্ষ নিলুফা ইয়াসমিন, সমাজসেবা সম্পাদক মো. আবদুল খালিক, কার্যনির্বাহী সদস্য সুমন চন্দ্র দেব, উপদেষ্টা মো. সিরাজুল ইসলাম, মো. জসিম উদ্দিন সরকার, বিএনএ সিলেট শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতাল শাখার সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল হাসান ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাসুদ আহমদ খান।

গত ২ এপ্রিল করোনা আক্রান্ত হয়ে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান সহকারী নার্স মো. নূরুল ইসলাম।

তার গ্রামের বাড়ি গাজীপুর জেলার কাপাসিয়া থানার চিনাডুলি গ্রামে। অসুস্থ হওয়ার পর চিকিৎসা থেকে শুরু করে মৃত্যুর পর লাশ গ্রামের বাড়ি পাঠানো
পর্যন্ত বিএনএ ওসমানী শাখার নেতৃবৃন্দ সার্বিক সহযোগিতা করেন।

এর আগে শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স রুহুল আমিন কোভিড আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করলে তার পরিবারের পাশেও দাঁড়ায় বিএনএ ওসমানী মেডিকেল শাখা। এ ছাড়া দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে কর্মরত অসুস্থ সহকর্মীর চিকিৎসায় বিভিন্ন সময় সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন মানবিক এ নার্সরা।

করোনায় মৃত সহকর্মীর পাশে বিএনএ ওসমানী মেডিকেল শাখা

 সিলেট ব্যুরো 
২১ এপ্রিল ২০২১, ০৩:২৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
করোনায় মৃত সহকর্মীর পাশে বিএনএ ওসমানী মেডিকেল শাখা
ছবি: যুগান্তর

আবারও মানবিকতার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করল বাংলাদেশ নার্সেস অ্যাসোসিয়েশন (বিএনএ) সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল শাখা।

কোভিড আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া সহকর্মীর পরিবারের পাশে দাঁড়িয়ে বাড়িয়ে দিয়েছে সহযোগিতার হাত। সাহস জুগিয়েছে অসহায় পরিবারকে। রমজান মাসে নিজেদের বেতন থেকে দুই লাখ টাকা তুলে দিয়েছে কোভিডে মারা যাওয়া সহকারী নার্স মো. নূরুল ইসলামের স্ত্রী-সন্তানের হাতে।

 যে কোনো সংকটে পরিবারটি পাশে থাকারও প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন বিএনএর নেতারা।

মঙ্গলবার দুপুরে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালকের কার্যালয়ে সহযোগিতার এই অর্থ তুলে দেওয়া হয় মো. নূরুল ইসলামের স্ত্রী মনিরা ইসলাম ও মেয়ে প্রিয়ন্তী ইসলামের হাতে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ব্রায়ান বঙ্কিম হালদার, উপপরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায়, সহকারী পরিচালক (প্রশাসন) ডা. আবুল কালাম আজাদ, সহকারী পরিচালক (অর্থ ও ভাণ্ডার) ডা. মাহবুবুল আলম, সেবা তত্ত্বাবধায়ক রেনোয়ারা আক্তার, উপসেবা তত্ত্বাবধায়ক মোসাম্মৎ রিনা বেগম, বাংলাদেশ নার্সেস অ্যাসোসিয়েশন (বিএনএ) সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল শাখার সভাপতি শামীমা নাসরিন, সহসভাপতি খাদিজা বেগম, জুবেদা খানম, সাধারণ সম্পাদক ইসরাইল আলী সাদেক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. সুলেমান আহমদ, সাংগঠনিক সম্পাদক অরবিন্দ চন্দ্র দাস, সহসাংগঠনিক সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, কোষাধ্যক্ষ নিলুফা ইয়াসমিন, সমাজসেবা সম্পাদক মো. আবদুল খালিক, কার্যনির্বাহী সদস্য সুমন চন্দ্র দেব, উপদেষ্টা মো. সিরাজুল ইসলাম, মো. জসিম উদ্দিন সরকার, বিএনএ সিলেট শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতাল শাখার সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল হাসান ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাসুদ আহমদ খান।

গত ২ এপ্রিল করোনা আক্রান্ত হয়ে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান সহকারী নার্স মো. নূরুল ইসলাম।

তার গ্রামের বাড়ি গাজীপুর জেলার কাপাসিয়া থানার চিনাডুলি গ্রামে। অসুস্থ হওয়ার পর চিকিৎসা থেকে শুরু করে মৃত্যুর পর লাশ গ্রামের বাড়ি পাঠানো
পর্যন্ত বিএনএ ওসমানী শাখার নেতৃবৃন্দ সার্বিক সহযোগিতা করেন।

এর আগে শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স রুহুল আমিন কোভিড আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করলে তার পরিবারের পাশেও দাঁড়ায় বিএনএ ওসমানী মেডিকেল শাখা। এ ছাড়া দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে কর্মরত অসুস্থ সহকর্মীর চিকিৎসায় বিভিন্ন সময় সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন  মানবিক এ নার্সরা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন