কাঠ চোরদের হামলায় রেঞ্জ কর্মকর্তাসহ আহত ৪
jugantor
কাঠ চোরদের হামলায় রেঞ্জ কর্মকর্তাসহ আহত ৪

  টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি  

২১ এপ্রিল ২০২১, ২১:৪১:৫৯  |  অনলাইন সংস্করণ

কক্সবাজারের টেকনাফে কাঠ চোরদের হামলায় রেঞ্জ কর্মকর্তা ও বন প্রহরীসহ ৪ জন আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে দুই বন প্রহরীকে দা দিয়ে কোপানো হয়েছে।

বুধবার সকাল ১০টায় দিকে জাহাজপুরা গর্জন বাগানের স্যাম্পল প্লট এলাকায় নিয়মিত টহলকালে হামলার এ ঘটনা ঘটে।

আহতদের মধ্যে কাঠ চোরদের দায়ের কোপে আহত বন পাহারা দলের সদস্য হলবনিয়া এলাকার জালাল আহমেদ (৩৮) ও কামাল হোসেনকে (২৮) টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

কাঠ চোরদের লাঠির আঘাতে আহত শিলখালী রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. হাসান ও বন পাহারা দলের সদস্য ছৈয়দ আলমের ছেলে নুরুন্নবীকে (৪০) স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

টেকনাফের শিলখালী রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. হাসান জানান, প্রতিদিনের মতো বন পাহারা দলের সদস্যদের নিয়ে জাহাজপুরা গর্জন বাগান এলাকায় টহলে গেলে গাছ কাটার শব্দ শুনে বন প্রহরীরা এগিয়ে যান। এ সময় গাছ কর্তনকারী চার-পাঁচ জন দুর্বৃত্ত বনপ্রহরীদের ওপর হামলা চালায়। দুর্বৃত্তদের এলোপাতাড়ি দায়ের কোপে জালাল আহমেদ ও কামাল হোসেন গুরুতর আহত হন। পরে আহতদের উদ্ধার করে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রেরণ করা হয়।

রেঞ্জ কর্মকর্তা জানান, হামলাকারী গাছ চোরদের শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে। তারা হ্নীলা ইউনিয়নের পানখালী এলাকার বলে ধারণা করা হচ্ছে এবং তাদের বিরুদ্ধে মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

কাঠ চোরদের হামলায় রেঞ্জ কর্মকর্তাসহ আহত ৪

 টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি 
২১ এপ্রিল ২০২১, ০৯:৪১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কক্সবাজারের টেকনাফে কাঠ চোরদের হামলায় রেঞ্জ কর্মকর্তা ও বন প্রহরীসহ ৪ জন আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে দুই বন প্রহরীকে দা দিয়ে কোপানো হয়েছে। 

বুধবার সকাল ১০টায় দিকে জাহাজপুরা গর্জন বাগানের স্যাম্পল প্লট এলাকায় নিয়মিত টহলকালে হামলার এ ঘটনা ঘটে।

আহতদের মধ্যে কাঠ চোরদের দায়ের কোপে আহত বন পাহারা দলের সদস্য হলবনিয়া এলাকার জালাল আহমেদ (৩৮) ও কামাল হোসেনকে (২৮) টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। 

কাঠ চোরদের লাঠির আঘাতে আহত শিলখালী রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. হাসান ও বন পাহারা দলের সদস্য ছৈয়দ আলমের ছেলে নুরুন্নবীকে (৪০) স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

টেকনাফের শিলখালী রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. হাসান জানান, প্রতিদিনের মতো বন পাহারা দলের সদস্যদের নিয়ে জাহাজপুরা গর্জন বাগান এলাকায় টহলে গেলে গাছ কাটার শব্দ শুনে বন প্রহরীরা এগিয়ে যান। এ সময় গাছ কর্তনকারী চার-পাঁচ জন দুর্বৃত্ত বনপ্রহরীদের ওপর হামলা চালায়। দুর্বৃত্তদের এলোপাতাড়ি দায়ের কোপে জালাল আহমেদ ও কামাল হোসেন গুরুতর আহত হন। পরে আহতদের উদ্ধার করে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রেরণ করা হয়। 

রেঞ্জ কর্মকর্তা জানান, হামলাকারী গাছ চোরদের শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে। তারা হ্নীলা ইউনিয়নের পানখালী এলাকার বলে ধারণা করা হচ্ছে এবং তাদের বিরুদ্ধে মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন