প্রতিদিনই মৃত্যুর সারিতে যুক্ত হচ্ছে নতুন নতুন নাম
jugantor
প্রতিদিনই মৃত্যুর সারিতে যুক্ত হচ্ছে নতুন নতুন নাম

  বরিশাল ব্যুরো  

২২ এপ্রিল ২০২১, ১৮:১১:৫৬  |  অনলাইন সংস্করণ

মৃত্যুর মিছিল যেন কমছে না বরিশালে। প্রতিদিনই মৃত্যুর সারিতে যুক্ত হচ্ছে নতুন নতুন নাম। গত ২৪ ঘণ্টায় বরিশাল বিভাগে নতুন করে ১৪৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ সময় করোনা ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন দুইজন।

বিভাগে মোট শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৩ হাজার ৯১০ জন। করোনা ওয়ার্ডে দুইজন মৃত্যুবরণ করলেও টানা দুইদিন করোনা আক্রান্ত কোনো রোগী মৃত্যুবরণ করেনি। বৃহস্পতিবার সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. বাসুদেব কুমার দাস। তিনি বলেন, নতুন ১৪৯ জনের মধ্যে সবচেয়ে বেশি শনাক্ত হয়েছে বরিশালে ৬৮ জন। এ জেলায় মোট শনাক্ত ৬ হাজার ৩৬৮ জন।

এছাড়া পটুয়াখালী জেলায় নতুন করে ৮ জন শনাক্ত হয়ে মোট সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ৪২ জন। ভোলায় নতুন ১৪ জন নিয়ে মোট সংখ্যা ১ হাজার ৬০৪ জন। পিরোজপুরে মোট আক্রান্ত ১ হাজার ৫৩০ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন শনাক্ত হয়েছে ২৬ জন। বরগুনায় নতুন আক্রান্ত হয়েছেন ১১ জন। এ জেলায় মোট শনাক্ত হয়েছে ১ হাজার ১৮৯ জন এবং ঝালকাঠি জেলায় নতুন ২২ জন নিয়ে মোট শনাক্ত হয়েছে ১ হাজার ১৭৭ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগে করোনা আক্রান্ত হয়ে কেউ মৃত্যুবরণ না করায় মোট সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৪৪ জন। তবে এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১১ হাজার ২৬২ জন। স্বাস্থ্য অধিদফতর বলছে, মৃত্যুবরণ করা ২৪৪ জনের মধ্যে প্রায় সবার বয়স ষাট বছরের ওপরে। কিন্তু উদ্বেগের বিষয় হচ্ছে, দ্বিতীয় ঢেউয়ে তরুণ অনেকেই শনাক্ত হচ্ছেন।

বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক বাসুদেব কুমার দাস বলেন, লকডাউনের প্রথম দফা আমরা অতিক্রম করেছি। ইতোমধ্যে তুলনামূলকহারে শনাক্ত কমছে। লকডাউনের উপকারিতা এখনই নয়, অল্প কয়েক দিনের মধ্যে আমরা পাব।

এই কর্মকর্তা বলেন, করোনার সংক্রমণ থেকে বাঁচতে হলে স্বাস্থ্য সচেতন হওয়া ছাড়া উপায় নেই। শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটের তথ্য সংরক্ষক জে. খান স্বপন বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় এই ওয়ার্ডের আইসোলেশনে মোট ১৭ জন রোগী ভর্তি হয়েছেন। এর মধ্যে ২ জনকে করোনা ওয়ার্ডে নেওয়া হয়েছে। দুইজন উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন। করোনা ইউনিটে মোট ১৫০ জন রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছেন। যার মধ্যে ৫৩ জনের করোনা পজিটিভ এবং ৯৭ জন করোনা টেস্টের রিপোর্টের অপেক্ষায় আছে।

প্রতিদিনই মৃত্যুর সারিতে যুক্ত হচ্ছে নতুন নতুন নাম

 বরিশাল ব্যুরো 
২২ এপ্রিল ২০২১, ০৬:১১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মৃত্যুর মিছিল যেন কমছে না বরিশালে। প্রতিদিনই মৃত্যুর সারিতে যুক্ত হচ্ছে নতুন নতুন নাম। গত ২৪ ঘণ্টায় বরিশাল বিভাগে নতুন করে ১৪৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ সময় করোনা ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন দুইজন। 

বিভাগে মোট শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৩ হাজার ৯১০ জন। করোনা ওয়ার্ডে দুইজন মৃত্যুবরণ করলেও টানা দুইদিন করোনা আক্রান্ত কোনো রোগী মৃত্যুবরণ করেনি। বৃহস্পতিবার সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. বাসুদেব কুমার দাস। তিনি বলেন, নতুন ১৪৯ জনের মধ্যে সবচেয়ে বেশি শনাক্ত হয়েছে বরিশালে ৬৮ জন। এ জেলায় মোট শনাক্ত ৬ হাজার ৩৬৮ জন। 

এছাড়া পটুয়াখালী জেলায় নতুন করে ৮ জন শনাক্ত হয়ে মোট সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ৪২ জন। ভোলায় নতুন ১৪ জন নিয়ে মোট সংখ্যা ১ হাজার ৬০৪ জন। পিরোজপুরে মোট আক্রান্ত ১ হাজার ৫৩০ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন শনাক্ত হয়েছে ২৬ জন। বরগুনায় নতুন আক্রান্ত হয়েছেন ১১ জন। এ জেলায় মোট শনাক্ত হয়েছে ১ হাজার ১৮৯ জন এবং ঝালকাঠি জেলায় নতুন ২২ জন নিয়ে মোট শনাক্ত হয়েছে ১ হাজার ১৭৭ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগে করোনা আক্রান্ত হয়ে কেউ মৃত্যুবরণ না করায় মোট সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৪৪ জন। তবে এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১১ হাজার ২৬২ জন। স্বাস্থ্য অধিদফতর বলছে, মৃত্যুবরণ করা ২৪৪ জনের মধ্যে প্রায় সবার বয়স ষাট বছরের ওপরে। কিন্তু উদ্বেগের বিষয় হচ্ছে, দ্বিতীয় ঢেউয়ে তরুণ অনেকেই শনাক্ত হচ্ছেন। 

বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক বাসুদেব কুমার দাস বলেন, লকডাউনের প্রথম দফা আমরা অতিক্রম করেছি। ইতোমধ্যে তুলনামূলকহারে শনাক্ত কমছে। লকডাউনের উপকারিতা এখনই নয়, অল্প কয়েক দিনের মধ্যে আমরা পাব।

এই কর্মকর্তা বলেন, করোনার সংক্রমণ থেকে বাঁচতে হলে স্বাস্থ্য সচেতন হওয়া ছাড়া উপায় নেই। শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটের তথ্য সংরক্ষক জে. খান স্বপন বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় এই ওয়ার্ডের আইসোলেশনে মোট ১৭ জন রোগী ভর্তি হয়েছেন। এর মধ্যে ২ জনকে করোনা ওয়ার্ডে নেওয়া হয়েছে। দুইজন উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন। করোনা ইউনিটে মোট ১৫০ জন রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছেন। যার মধ্যে ৫৩ জনের করোনা পজিটিভ এবং ৯৭ জন করোনা টেস্টের রিপোর্টের অপেক্ষায় আছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন