মতিন খসরুর আসনে প্রার্থী হতে চান সাজ্জাদ হোসেন
jugantor
মতিন খসরুর আসনে প্রার্থী হতে চান সাজ্জাদ হোসেন
মনোনয়ন পেতে ১৪ নেতার দৌড়ঝাঁপ

  ইকবাল হোসেন সুমন, বুড়িচং (কুমিল্লা) থেকে  

২২ এপ্রিল ২০২১, ২৩:১৩:০৯  |  অনলাইন সংস্করণ

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সাবেক আইনমন্ত্রী আবদুল মতিন খসরুর মৃত্যুতে তার সংসদীয় আসন কুমিল্লা-৫ শূন্য ঘোষণা করা হয়েছে।

সংসদ সচিব জাফর আহমেদ খান স্বাক্ষরিত এক গেজেটে বুধবার আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়। আসন শূন্য হওয়ার পর এখন ৯০ দিনের মধ্যে ওই আসনে উপ-নির্বাচনের ব্যবস্থা করবে নির্বাচন কমিশন।

ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ১৪ এপ্রিল মারা যান কুমিল্লা -৫ আসন থেকে পাঁচবার নির্বাচিত প্রভাবশালী আওয়ামী লীগ নেতা আবদুল মতিন খসরু।

এ আসনের উপনির্বাচনে প্রার্থী হতে এরই মধ্যে দৌড়ঝাঁপ শুরু করে দিয়েছেন আওয়ামী লীগের ১৪ নেতা। তবে প্রয়াত আবদুল মতিন খসরু এমপির সহধর্মিণী সেলিনা সোবহান খসরু যুগান্তরকে বলেছেন, আমরা এখনও শোক কাটিয়ে উঠতে পারিনি। আমাদের পরিবারের পক্ষ থেকে সিদ্ধান্ত হয়নি কে প্রার্থী হবেন? তবে, দল যাকে মনোনয়ন দেবে আমরা তার পক্ষেই কাজ করবো।

এ আসনে মনোয়ন পেতে আগ্রহীদের মধ্যে আছেন, কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন, বুড়িচং উপজেলার আওয়ামী লীগের সিনিয়র সভাপতি এড. আবুল হাশেম খাঁন, ব্রাহ্মণপাড়ার সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহাংগীর খাঁন চৌধুরী, বুড়িচং উপজেলার আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আখলাক হায়দার, ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান আবু জাহের, ব্যারিষ্টার সোহরাব খাঁন চৌধুরী, কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আবদুল ছালাম বেগ, এহতেশাম রুমি, দিদার মো. নিজামুল ইসলাম, আব্দুল মতিন এমবিএসহ মোট ১৪ জন।

এদের মধ্যে এলাকায় সবচেয়ে গ্রহনযোগ্যতা বেশি কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেনের।

মনোয়ন প্রত্যাশী এ নেতা বলেন, সদ্য প্রয়াত আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সুপ্রিম কোর্ট বার সভাপতি আব্দুল মতিন খসরু এমপির শূন্যস্থান কোদিনও পুরণ হওয়ার নয়। আমরা এখনও শোক কাটিয়ে উঠতে পারিনি। আমি খসরু ভাইকে কোনদিনও ভুলতে পারবো না। তার সঙ্গে দীর্ঘ ৪০ বছর রাজনীতি করেছি এই বলে তিনি কেঁদে ফেলেন।

সাজ্জাদ হোসেন বলেন, আমি বুড়িচং কালিকাপুর এলাকায় তার নামে আব্দুল মতিন খসরু ডিগ্রি কলেজ প্রতিষ্ঠা করেছি। তাছাড়া বুড়িচং উপজেলার অনেক স্কুল কলেজ উন্নয়ন করেছি।

আমি প্রথমে দুইবার ইউপি চেয়ারম্যান দায়িত্ব পালন করছি। পরে বুড়িচং উপজেলার চেয়ারম্যান হিসাবে নির্বাচিত হই। বর্তমানে আমি কুমিল্লা জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হিসাবে দায়িত্ব পালন করছি।

মনোনয়ন বোর্ড যদি কুমিল্লা-৫ উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দেয় তাহলে আমি প্রয়াত নেতা মতিন খসরুর উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখব।

মতিন খসরুর আসনে প্রার্থী হতে চান সাজ্জাদ হোসেন

মনোনয়ন পেতে ১৪ নেতার দৌড়ঝাঁপ
 ইকবাল হোসেন সুমন, বুড়িচং (কুমিল্লা) থেকে 
২২ এপ্রিল ২০২১, ১১:১৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সাবেক আইনমন্ত্রী আবদুল মতিন খসরুর মৃত্যুতে তার সংসদীয় আসন কুমিল্লা-৫ শূন্য ঘোষণা করা হয়েছে।

সংসদ সচিব জাফর আহমেদ খান স্বাক্ষরিত এক গেজেটে বুধবার আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়। আসন শূন্য হওয়ার পর এখন ৯০ দিনের মধ্যে ওই আসনে উপ-নির্বাচনের ব্যবস্থা করবে নির্বাচন কমিশন।

ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ১৪ এপ্রিল মারা যান কুমিল্লা -৫ আসন থেকে পাঁচবার নির্বাচিত প্রভাবশালী আওয়ামী লীগ নেতা আবদুল মতিন খসরু।

এ আসনের উপনির্বাচনে প্রার্থী হতে এরই মধ্যে দৌড়ঝাঁপ শুরু করে দিয়েছেন আওয়ামী লীগের ১৪ নেতা। তবে প্রয়াত আবদুল মতিন খসরু এমপির সহধর্মিণী সেলিনা সোবহান খসরু যুগান্তরকে বলেছেন, আমরা এখনও শোক কাটিয়ে উঠতে পারিনি। আমাদের পরিবারের পক্ষ থেকে সিদ্ধান্ত হয়নি কে প্রার্থী হবেন? তবে, দল যাকে মনোনয়ন দেবে আমরা তার পক্ষেই কাজ করবো।

এ আসনে মনোয়ন পেতে আগ্রহীদের মধ্যে আছেন, কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন, বুড়িচং উপজেলার আওয়ামী লীগের সিনিয়র সভাপতি এড. আবুল হাশেম খাঁন, ব্রাহ্মণপাড়ার সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহাংগীর খাঁন চৌধুরী, বুড়িচং উপজেলার আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আখলাক হায়দার, ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান আবু জাহের, ব্যারিষ্টার সোহরাব খাঁন চৌধুরী, কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আবদুল ছালাম বেগ, এহতেশাম রুমি, দিদার মো. নিজামুল ইসলাম, আব্দুল মতিন এমবিএসহ মোট ১৪ জন।

এদের মধ্যে এলাকায় সবচেয়ে গ্রহনযোগ্যতা বেশি কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেনের।

মনোয়ন প্রত্যাশী এ নেতা বলেন, সদ্য প্রয়াত আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সুপ্রিম কোর্ট বার সভাপতি আব্দুল মতিন খসরু এমপির শূন্যস্থান কোদিনও পুরণ হওয়ার নয়। আমরা এখনও শোক কাটিয়ে উঠতে পারিনি। আমি খসরু ভাইকে কোনদিনও ভুলতে পারবো না। তার সঙ্গে দীর্ঘ ৪০ বছর রাজনীতি করেছি এই বলে তিনি কেঁদে ফেলেন।

সাজ্জাদ হোসেন বলেন, আমি বুড়িচং কালিকাপুর এলাকায় তার নামে আব্দুল মতিন খসরু ডিগ্রি কলেজ প্রতিষ্ঠা করেছি। তাছাড়া বুড়িচং উপজেলার অনেক স্কুল কলেজ উন্নয়ন করেছি।

আমি প্রথমে দুইবার ইউপি চেয়ারম্যান দায়িত্ব পালন করছি। পরে বুড়িচং উপজেলার চেয়ারম্যান হিসাবে নির্বাচিত হই। বর্তমানে আমি কুমিল্লা জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হিসাবে দায়িত্ব পালন করছি।  

মনোনয়ন বোর্ড যদি কুমিল্লা-৫ উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দেয় তাহলে আমি প্রয়াত নেতা মতিন খসরুর উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখব।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন