অপহৃত রোহিঙ্গা কিশোরকে উদ্ধারে গিয়ে গুলিতে অটোচালক নিহত
jugantor
অপহৃত রোহিঙ্গা কিশোরকে উদ্ধারে গিয়ে গুলিতে অটোচালক নিহত

  টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি  

২৩ এপ্রিল ২০২১, ০৯:৪৫:৪০  |  অনলাইন সংস্করণ

কক্সবাজারের টেকনাফে অপহরণকারী ডাকাত দলের গুলিতে মো. হোসেন (৩২) নামের এক সিএনজিচালিত অটোচালক নিহত হয়েছেন। এ সময় মো. আয়াজ (১৯) নামে এক রোহিঙ্গা ও স্থানীয় রশিদ উল্লাহ গুলিবিদ্ধ হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের দমদমিয়া ন্যাচার পার্কসংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত হোসেন জাদিমুরা এলাকার বাচা মিয়ার ছেলে। আহত আয়াজ ২৭নং জাদিমুরা ক্যাম্পের, সি-ব্লকের মুজিব উল্লার ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, জাদিমুরা ক্যাম্পের এক রোহিঙ্গা কিশোরকে সশস্ত্র ডাকাত দল অপহরণ করে পাহাড়ে আটকে রেখেছেন- এমন সংবাদে স্থানীয় একদল যুবক অটোরিকশা নিয়ে দমদমিয়া ন্যাচার পার্কসংলগ্ন পাহাড়ি এলাকায় ডাকাত দলের অবস্থানস্থলে যান। এ সময় অস্ত্রধারীরা তাদের ওপর এলোপাতাড়ি গুলি করেন। এ সময় অটোচালক মো. হোসেন ও নামাজ পড়তে বের হওয়া রোহিঙ্গা কিশোর আয়াজ ও স্থানীয় রশিদ উল্লাহ গুলিবিদ্ধ হন।

গোলাগুলির শব্দে গ্রামবাসী এগিয়ে গেলে ডাকাত দলের সদস্যরা পাহাড়ে আত্মগোপন করেন। পরে গুলিবিদ্ধ তিনজনকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেল কর্তব্যরত চিকিৎসক হোসেন ও আয়াজকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠান। সেখানে নেয়ার পথে মো. হোসেন মারা যান।

আহত রোহিঙ্গা কিশোর আয়াজ কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এছাড়া গুলিবিদ্ধ রশিদ উল্লাহকে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

নিহতের ভাই জাহেদ হোসেন জানান, তার ভাই অটোরিকশা ভাড়ায় চালাতে গিয়ে গুলিতে নিহত হয়েছেন।

আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন) ১৬ এর অধিনায়ক পুলিশ সুপার তারিকুল ইসলাম যুগান্তরকে জানান, ময়নাতদন্তের জন্য নিহতের লাশ কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। টেকনাফ থানা পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। দুর্বৃত্তদের ধরতেকে অভিযান চলছে।

অপহৃত রোহিঙ্গা কিশোরকে উদ্ধারে গিয়ে গুলিতে অটোচালক নিহত

 টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি 
২৩ এপ্রিল ২০২১, ০৯:৪৫ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কক্সবাজারের টেকনাফে অপহরণকারী ডাকাত দলের গুলিতে মো. হোসেন (৩২) নামের এক সিএনজিচালিত অটোচালক নিহত হয়েছেন। এ সময় মো. আয়াজ (১৯) নামে এক রোহিঙ্গা ও স্থানীয় রশিদ উল্লাহ গুলিবিদ্ধ হয়েছেন।  

বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের দমদমিয়া ন্যাচার পার্কসংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত হোসেন জাদিমুরা এলাকার বাচা মিয়ার ছেলে। আহত আয়াজ ২৭নং জাদিমুরা ক্যাম্পের, সি-ব্লকের মুজিব উল্লার ছেলে।  

স্থানীয়রা জানান, জাদিমুরা ক্যাম্পের এক রোহিঙ্গা কিশোরকে সশস্ত্র ডাকাত দল অপহরণ করে পাহাড়ে আটকে রেখেছেন- এমন সংবাদে স্থানীয় একদল যুবক অটোরিকশা নিয়ে দমদমিয়া ন্যাচার পার্কসংলগ্ন পাহাড়ি এলাকায় ডাকাত দলের অবস্থানস্থলে যান। এ সময় অস্ত্রধারীরা তাদের ওপর এলোপাতাড়ি গুলি করেন। এ সময় অটোচালক মো. হোসেন ও নামাজ পড়তে বের হওয়া রোহিঙ্গা কিশোর আয়াজ ও স্থানীয় রশিদ উল্লাহ গুলিবিদ্ধ হন। 

গোলাগুলির শব্দে গ্রামবাসী এগিয়ে গেলে ডাকাত দলের সদস্যরা পাহাড়ে আত্মগোপন করেন। পরে গুলিবিদ্ধ তিনজনকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেল কর্তব্যরত চিকিৎসক হোসেন ও আয়াজকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠান। সেখানে নেয়ার পথে মো. হোসেন মারা যান। 

আহত রোহিঙ্গা কিশোর আয়াজ কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এছাড়া গুলিবিদ্ধ রশিদ উল্লাহকে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। 

নিহতের ভাই জাহেদ হোসেন জানান, তার ভাই অটোরিকশা ভাড়ায় চালাতে গিয়ে গুলিতে নিহত হয়েছেন। 
 
আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন) ১৬ এর অধিনায়ক পুলিশ সুপার তারিকুল ইসলাম যুগান্তরকে জানান, ময়নাতদন্তের জন্য নিহতের লাশ  কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। টেকনাফ থানা পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। দুর্বৃত্তদের ধরতেকে অভিযান চলছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর
 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন