ধারের ২ হাজার টাকা ফেরত দিতে না পারায় বাবাকে পিটিয়ে হত্যা
jugantor
ধারের ২ হাজার টাকা ফেরত দিতে না পারায় বাবাকে পিটিয়ে হত্যা

  সাঁথিয়া (পাবনা) প্রতিনিধি  

২৩ এপ্রিল ২০২১, ২১:৩৬:০৭  |  অনলাইন সংস্করণ

পাবনার সাঁথিয়ায় ধারের ২ হাজার টাকা ফেরত দিতে না পারায় বাকবিতণ্ডায় বাবাকে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার আতাইকুলা থানাধীন ভুলবাড়িয়া ইউনিয়নের হরিপুর-রতনপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।

নিহত আহেজ প্রামাণিক (৭০) ভুলবাড়িয়া ইউনিয়নের হরিপুর-রতনপুর গ্রামের বাসিন্দা।

স্থানীয়রা জানান, বৃদ্ধ আহেজ প্রামাণিক অভাবের কারণে তার ছেলে আ. রহিমের (৪২) কাছ থেকে ২ হাজার টাকা ধার নেন। বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে ছেলে রহিম পিতা আহেজ প্রামাণিকের কাছে ধারের টাকা ফেরৎ চান। বাবা টাকা ফেরৎ দিতে না পারায় দু’জনের মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়।

একপর্যায়ে ছেলে রহিম বাঁশের গোড়ালি দিয়ে পিতার মাথায় সজোরে আঘাত করে। আঘাত পেয়ে বৃদ্ধ আহেজ সঙ্গে সঙ্গে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পথেই তিনি মারা যান।

সংবাদ পেয়ে আতাইকুলা থানা পুলিশ রাতেই বৃদ্ধ আহেজের লাশ উদ্ধার করে। ঘাতক ছেলে রহিম পলাতক। এ ব্যাপারে নিহতের ভাই আ. আউয়াল বাদী হয়ে আতাইকুলা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

আতাইকুলা থানার ওসি (তদন্ত) সিদ্দিক হোসেন জানান, থানায় ঘাতক ছেলে রহিমের নামে মামলা হয়েছে। নিহতের লাশ উদ্ধার করে শুক্রবার পাবনা মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। আসামিকে আটকের চেষ্টা চলছে।

ধারের ২ হাজার টাকা ফেরত দিতে না পারায় বাবাকে পিটিয়ে হত্যা

 সাঁথিয়া (পাবনা) প্রতিনিধি 
২৩ এপ্রিল ২০২১, ০৯:৩৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পাবনার সাঁথিয়ায় ধারের ২ হাজার টাকা ফেরত দিতে না পারায় বাকবিতণ্ডায় বাবাকে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার আতাইকুলা থানাধীন ভুলবাড়িয়া ইউনিয়নের হরিপুর-রতনপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।

নিহত আহেজ প্রামাণিক (৭০) ভুলবাড়িয়া ইউনিয়নের হরিপুর-রতনপুর গ্রামের বাসিন্দা।

স্থানীয়রা জানান, বৃদ্ধ আহেজ প্রামাণিক অভাবের কারণে তার ছেলে আ. রহিমের (৪২) কাছ থেকে ২ হাজার টাকা ধার নেন। বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে ছেলে রহিম পিতা আহেজ প্রামাণিকের কাছে ধারের টাকা ফেরৎ চান। বাবা টাকা ফেরৎ দিতে না পারায় দু’জনের মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়। 

একপর্যায়ে ছেলে রহিম বাঁশের গোড়ালি দিয়ে পিতার মাথায় সজোরে আঘাত করে। আঘাত পেয়ে বৃদ্ধ আহেজ সঙ্গে সঙ্গে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পথেই তিনি মারা যান। 

সংবাদ পেয়ে আতাইকুলা থানা পুলিশ রাতেই বৃদ্ধ আহেজের লাশ উদ্ধার করে। ঘাতক ছেলে রহিম পলাতক। এ ব্যাপারে নিহতের ভাই আ. আউয়াল বাদী হয়ে আতাইকুলা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

আতাইকুলা থানার ওসি (তদন্ত) সিদ্দিক হোসেন জানান, থানায় ঘাতক ছেলে রহিমের নামে মামলা হয়েছে। নিহতের লাশ উদ্ধার করে শুক্রবার পাবনা মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। আসামিকে আটকের চেষ্টা চলছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন