রাস্তার পাশে যুবকের গলাকাটা লাশ 
jugantor
রাস্তার পাশে যুবকের গলাকাটা লাশ 

  তানোর (রাজশাহী) প্রতিনিধি   

২৯ এপ্রিল ২০২১, ২০:২২:৩০  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজশাহীর তানোরে রাস্তার পাশ থেকে প্রকাশ দাস (২০) নামে এক যুবকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার বংশিধরপুর এলাকার একটি রাস্তার পাশ থেকে ওই যুবকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত প্রকাশ দাস তানোর উপজেলার কলমা ইউপির চোরখোর এনায়েতপুর গ্রামের নির্মল দাসের ছেলে। ওই যুবক রাজশাহী মহানগরীর একটি হোটেলে কাজ করেন। করোনা পরিস্থিতির কারণে নিজ গ্রামের বাড়িতে অবস্থান করছিলেন তিনি।

এ ঘটনায় বেশ কয়েকজনকে আসামি করে নিহতের বাবা নির্মল দাস বাদী হয়ে তানোর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। তবে মামলায় একজন নামধারী আসামিসহ বেশ কয়েকজনকে অজ্ঞাতনামা আসামি দেখানো হয়।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, বুধবার রাতে প্রকাশ দাস নিজ এলাকার পরিচিত লোকদের সঙ্গে ক্যারাম খেলছিলেন। তারপর থেকে নিখোঁজ হন তিনি। পরিবারের লোকজন রাতে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও সন্ধান পাননি। পরে বৃহস্পতিবার সকালে স্থানীয়রা রাস্তার পাশে তার গলাকাটা লাশ দেখতে পান। এরপর তারা পরিবারকে জানান। পরে পরিবারের লোকজন তানোর থানা পুলিশকে বিষয়টি অবহিত করেন।

খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে পাঠান। পরে তানোর-গোদাগাড়ী সার্কেল সিনিয়র এএসপি আব্দুর রাজ্জাক খান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

এ বিষয়ে তানোর থানার ওসি রাকিবুল হাসান বলেন, ঘটনাস্থল থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে নিহতের পিতা নির্মল দাস বাদী হয়ে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। নিহতের শরীরের বিভিন্ন স্থানে ক্ষত চিহ্ন পাওয়া গেছে। নামধারী ওই আসামিকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

রাস্তার পাশে যুবকের গলাকাটা লাশ 

 তানোর (রাজশাহী) প্রতিনিধি  
২৯ এপ্রিল ২০২১, ০৮:২২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজশাহীর তানোরে রাস্তার পাশ থেকে প্রকাশ দাস (২০) নামে এক যুবকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার বংশিধরপুর এলাকার একটি রাস্তার পাশ থেকে ওই যুবকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত প্রকাশ দাস তানোর উপজেলার কলমা ইউপির চোরখোর এনায়েতপুর গ্রামের নির্মল দাসের ছেলে। ওই যুবক রাজশাহী মহানগরীর একটি হোটেলে কাজ করেন। করোনা পরিস্থিতির কারণে নিজ গ্রামের বাড়িতে অবস্থান করছিলেন তিনি।

এ ঘটনায় বেশ কয়েকজনকে আসামি করে নিহতের বাবা নির্মল দাস বাদী হয়ে তানোর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। তবে মামলায় একজন নামধারী আসামিসহ বেশ কয়েকজনকে অজ্ঞাতনামা আসামি দেখানো হয়।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, বুধবার রাতে প্রকাশ দাস নিজ এলাকার পরিচিত লোকদের সঙ্গে ক্যারাম খেলছিলেন। তারপর থেকে নিখোঁজ হন তিনি। পরিবারের লোকজন রাতে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও সন্ধান পাননি। পরে বৃহস্পতিবার সকালে স্থানীয়রা রাস্তার পাশে তার গলাকাটা লাশ দেখতে পান। এরপর তারা পরিবারকে জানান। পরে পরিবারের লোকজন তানোর থানা পুলিশকে বিষয়টি অবহিত করেন।

খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে পাঠান। পরে তানোর-গোদাগাড়ী সার্কেল সিনিয়র এএসপি আব্দুর রাজ্জাক খান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। 

এ বিষয়ে তানোর থানার ওসি রাকিবুল হাসান বলেন, ঘটনাস্থল থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে নিহতের পিতা নির্মল দাস বাদী হয়ে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। নিহতের শরীরের বিভিন্ন স্থানে ক্ষত চিহ্ন পাওয়া গেছে। নামধারী ওই আসামিকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন