‘ম্যাগনেট পিলার’ প্রতারক চক্রের ৩ সদস্য গ্রেফতার
jugantor
‘ম্যাগনেট পিলার’ প্রতারক চক্রের ৩ সদস্য গ্রেফতার

  সাতকানিয়া প্রতিনিধি  

২৯ এপ্রিল ২০২১, ২২:৫২:১৯  |  অনলাইন সংস্করণ

চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় ‘ম্যাগনেট পিলার’ প্রতারক চক্রের তিন সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার উপজেলার কেরানীহাট রয়েল রিসোর্টের সামনে থেকে গ্রেফতার করা হয়।

এ সময় তাদের কাছ থেকে তামার তৈরি একটি ধাতব বোতল ও নগদ ৫ লাখ টাকা উদ্ধার করা হয়। উদ্ধার করা এ ধাতব বোতলটি ম্যাগনেটের তৈরি এবং এটির দাম ২ থেকে ৩ কোটি টাকা জানিয়ে তারা প্রতারণার করত।

গ্রেফতারকৃতরা হলো- পটিয়া উপজেলার জিরি ইউনিয়নের সুবেদার বাড়ির মৃত হাজী ফজল আহমদের ছেলে খোরশেদ আলম, আনোয়ারা উপজেলার ডুমুরিয়া ৮ নম্বর ওয়ার্ড এলাকার মো. উল্লাহ ও সাতকানিয়া পৌরসভা রামপুর ১ নম্বর ওয়ার্ডের মৃত আবদুল মোতালেবের ছেলে মো. নুরুল আমিন।

পুলিশ জানিয়েছে, সাতকানিয়া পৌরসভার রামপুর ১ নম্বর ওয়ার্ড এলাকার নুরুল আমিনের কাছ থেকে ওই ধাতব বোতলটি কিনতে এসেছিল গ্রেফতার খোরশেদ আলম ও মো. উল্লাহ। গোপন সংবাদে খবর পেয়ে তাদের কেরানীহাট এলাকা থেকে একটি ধাতব বোতল ও নগদ ৫ লাখ টাকা ও একটি ডিজিটাল লকারসহ গ্রেফতার করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃতরা উদ্ধার করা এ ধাতব বোতলটি ২ থেকে ৩ কোটি টাকা মূল্যের জানিয়ে তারা প্রতারণা করতো বলে স্বীকার করেছে পুলিশের কাছে। এছাড়া ইতোপূর্বেও তারা এধরনের আরও প্রতারণা করেছে বলে জানায় পুলিশ।

সাতকানিয়া থানার ওসি মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, উদ্ধার করা ওই ধাতব বোতলটি দিয়ে তারা প্রতারণা করে আসছিল। তারা একটি পেশাদার প্রতারক চক্র। গ্রেফতার খোরশেদ ও মো. উল্লাহ সাতকানিয়ার নুরুল আমিনের কাছ থেকে ধাতব বোতলটি কিনতে এসেছিল। এটি কিনে পরে অন্যজনের কাছে বিক্রির পরিকল্পনা ছিল তাদের। তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে আগামীকাল আদালতে পাঠানো হবে।

‘ম্যাগনেট পিলার’ প্রতারক চক্রের ৩ সদস্য গ্রেফতার

 সাতকানিয়া প্রতিনিধি 
২৯ এপ্রিল ২০২১, ১০:৫২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় ‘ম্যাগনেট পিলার’ প্রতারক চক্রের তিন সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার উপজেলার কেরানীহাট রয়েল রিসোর্টের সামনে থেকে গ্রেফতার করা হয়।

এ সময় তাদের কাছ থেকে তামার তৈরি একটি ধাতব বোতল ও নগদ ৫ লাখ টাকা উদ্ধার করা হয়। উদ্ধার করা এ ধাতব বোতলটি ম্যাগনেটের তৈরি এবং এটির দাম ২ থেকে ৩ কোটি টাকা জানিয়ে তারা প্রতারণার করত।

গ্রেফতারকৃতরা হলো- পটিয়া উপজেলার জিরি ইউনিয়নের সুবেদার বাড়ির মৃত হাজী ফজল আহমদের ছেলে খোরশেদ আলম, আনোয়ারা উপজেলার ডুমুরিয়া ৮ নম্বর ওয়ার্ড এলাকার মো. উল্লাহ ও সাতকানিয়া পৌরসভা রামপুর ১ নম্বর ওয়ার্ডের মৃত আবদুল মোতালেবের ছেলে মো. নুরুল আমিন। 

পুলিশ জানিয়েছে, সাতকানিয়া পৌরসভার রামপুর ১ নম্বর ওয়ার্ড এলাকার নুরুল আমিনের কাছ থেকে ওই ধাতব বোতলটি কিনতে এসেছিল গ্রেফতার খোরশেদ আলম ও মো. উল্লাহ। গোপন সংবাদে খবর পেয়ে তাদের কেরানীহাট এলাকা থেকে একটি ধাতব বোতল ও নগদ ৫ লাখ টাকা ও একটি ডিজিটাল লকারসহ গ্রেফতার করা হয়। 

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃতরা উদ্ধার করা এ ধাতব বোতলটি ২ থেকে ৩ কোটি টাকা মূল্যের জানিয়ে তারা প্রতারণা করতো বলে স্বীকার করেছে পুলিশের কাছে। এছাড়া ইতোপূর্বেও তারা এধরনের আরও প্রতারণা করেছে বলে জানায় পুলিশ। 

সাতকানিয়া থানার ওসি মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, উদ্ধার করা ওই ধাতব বোতলটি দিয়ে তারা প্রতারণা করে আসছিল। তারা একটি পেশাদার প্রতারক চক্র। গ্রেফতার খোরশেদ ও মো. উল্লাহ সাতকানিয়ার নুরুল আমিনের কাছ থেকে ধাতব বোতলটি কিনতে এসেছিল। এটি কিনে পরে অন্যজনের কাছে বিক্রির পরিকল্পনা ছিল তাদের। তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে আগামীকাল আদালতে পাঠানো হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন