‘কাদের মির্জাকে বহিষ্কার না করলে গণভবনের সামনে অবস্থান’
jugantor
‘কাদের মির্জাকে বহিষ্কার না করলে গণভবনের সামনে অবস্থান’

  কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি  

৩০ এপ্রিল ২০২১, ০৪:৩৩:১১  |  অনলাইন সংস্করণ

‘কাদের মির্জাকে বহিষ্কার না করলে গণভবনের সামনে অবস্থান’

বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জাকে বহিষ্কারের দাবি করে ৭ দিনের আল্টিমেটাম বেধে দিয়েছেন তারই ভাগ্নে ও কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের মুখপাত্র মাহবুবুর রশীদ মঞ্জু।

আল্টিমেটামের মধ্যে যদি কাদের মির্জাকে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার না করা হয়, তাহলে আমরা ঢাকায় সংবাদ সম্মেলন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বাসভবনের সামনে লাগাতার অবস্থান কর্মসূচি পালন হুমকিও দেয়া হয়।

বৃহস্পতিবার রাতে কাদের মির্জার ভাগ্নে তার ফেসবুক থেকে লাইভে এই আল্টিমেটাম দেন। এর আগে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের ঘোষণা অনুযায়ী তিনি ফেসবুক লাইভে আসেন।

ভাগ্নে মঞ্জু বলেন, কাদের মির্জা সত্য বচনের নামে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগসহ সারাদেশে আওয়ামী লীগের রাজনীতিকে ধ্বংস করছেন। আপনি আমাদের শেষ ঠিকানা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। যাদের কাছে বিচার দিয়েছি তারা সবাই ব্যর্থ হয়েছেন। আমরা আগামী শুক্রবার (৭ মে) পর্যন্ত সময় দিলাম। এর মধ্যে যদি কাদের মির্জাকে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার না করা হয় তাহলে আমরা ঢাকায় সংবাদ সম্মেলন করবো এবং প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করব।

মঞ্জু আরও বলেন, কোম্পানীগঞ্জে বর্তমানে শ্বাসরুদ্ধকর অবস্থা বিরাজ করছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনি ভাত ও ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠা করেছেন। আপনি মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান বাড়িয়েছেন। কিন্তু এই কাদের মির্জা কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা খিজির হায়াত খানের ওপর হামলা চালিয়েছেন। এভাবে যদি একজন মুক্তিযোদ্ধাকে অপমান করা হয় তারপর আমাদের আর কিছুই বলার থাকে না।

কোম্পানীগঞ্জের মানুষ তার (কাদের মির্জা) তথাকথিত সত্য বচনের নামে অপরাজনীতির কাছে জিম্মি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাদের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে, আমরা আর পারছিনা। আমাদেরকে এ নরপিশাচের হাত থেকে রক্ষা করুন। আগামী সাতদিনের মধ্যে যদি তাকে বহিষ্কার করা না হয় তাহলে গণরোষের কারণে কোনো ঘটনা ঘটলে তার দায় প্রশাসন ও আওয়ামী লীগকে নিতে হবে।

‘কাদের মির্জাকে বহিষ্কার না করলে গণভবনের সামনে অবস্থান’

 কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি 
৩০ এপ্রিল ২০২১, ০৪:৩৩ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
‘কাদের মির্জাকে বহিষ্কার না করলে গণভবনের সামনে অবস্থান’
কাদের মির্জা ও তার ভাগ্নে মাহবুবুর রশীদ মঞ্জু।

বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জাকে বহিষ্কারের দাবি করে ৭ দিনের আল্টিমেটাম বেধে দিয়েছেন তারই ভাগ্নে ও কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের মুখপাত্র মাহবুবুর রশীদ মঞ্জু। 

আল্টিমেটামের মধ্যে যদি কাদের মির্জাকে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার না করা হয়, তাহলে আমরা ঢাকায় সংবাদ সম্মেলন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বাসভবনের সামনে লাগাতার অবস্থান কর্মসূচি পালন হুমকিও দেয়া হয়। 

বৃহস্পতিবার রাতে কাদের মির্জার ভাগ্নে তার ফেসবুক থেকে লাইভে এই আল্টিমেটাম দেন। এর আগে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের ঘোষণা অনুযায়ী তিনি ফেসবুক লাইভে আসেন।

ভাগ্নে মঞ্জু বলেন, কাদের মির্জা সত্য বচনের নামে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগসহ সারাদেশে আওয়ামী লীগের রাজনীতিকে ধ্বংস করছেন। আপনি আমাদের শেষ ঠিকানা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। যাদের কাছে বিচার দিয়েছি তারা সবাই ব্যর্থ হয়েছেন। আমরা আগামী শুক্রবার (৭ মে) পর্যন্ত সময় দিলাম। এর মধ্যে যদি কাদের মির্জাকে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার না করা হয় তাহলে আমরা ঢাকায় সংবাদ সম্মেলন করবো এবং প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করব।

মঞ্জু আরও বলেন, কোম্পানীগঞ্জে বর্তমানে শ্বাসরুদ্ধকর অবস্থা বিরাজ করছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনি ভাত ও ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠা করেছেন। আপনি মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান বাড়িয়েছেন। কিন্তু এই কাদের মির্জা কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা খিজির হায়াত খানের ওপর হামলা চালিয়েছেন। এভাবে যদি একজন মুক্তিযোদ্ধাকে অপমান করা হয় তারপর আমাদের আর কিছুই বলার থাকে না।

কোম্পানীগঞ্জের মানুষ তার (কাদের মির্জা) তথাকথিত সত্য বচনের নামে অপরাজনীতির কাছে জিম্মি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাদের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে, আমরা আর পারছিনা। আমাদেরকে এ নরপিশাচের হাত থেকে রক্ষা করুন। আগামী সাতদিনের মধ্যে যদি তাকে বহিষ্কার করা না হয় তাহলে গণরোষের কারণে কোনো ঘটনা ঘটলে তার দায় প্রশাসন ও আওয়ামী লীগকে নিতে হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : আবদুল কাদের মির্জা

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন