হিজড়াদের আধিপত্য নিয়ে সংঘর্ষ, আহত ৫
jugantor
হিজড়াদের আধিপত্য নিয়ে সংঘর্ষ, আহত ৫

  কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী) প্রতিনিধি  

৩০ এপ্রিল ২০২১, ১৮:০৩:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে হিজড়াদের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে ৫ জন আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার রাত ৮টায় বাজারের ঝরনার মোড়ে তাদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এসময় আহত পূর্ণিমা নামে একজনের অবস্থা বেগতিক হওয়ায় রাতেই তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে রংপুর মেডিকেলে স্থানান্তর করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, রংপুরের তারাগঞ্জ উপজেলার রানা গ্রুপের কয়েকজন হিজড়া কিশোরগঞ্জ বাজারে চাঁদা তুলছিল। এসময় নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলার পূর্ণিমা গ্রুপের হিজড়াগণ এসে বাধা দেয়। তাদেরকে জানায়, আমরা তো রংপুরে চাঁদা তুলতে যাই না, তোমারা আমাদের জেলায় চাঁদা তুলতে আস কেন।

এ খবর পেয়ে রংপুরের দলনেতা রানা ও তার হিজড়াগণ মাইক্রোবাসযোগে এসে পূর্ণিমা গ্রুপের হিজড়াদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় দুই পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষে পূর্ণিমাসহ তার পক্ষের ৪জন আহত হন। সংবাদ পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়।

এ ঘটনায় আহত নীলফামারী গ্রুপের দলনেত্রী পূর্ণিমাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এছাড়া সুমি, ঝুমকা, ফুলি ও নদী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে প্রাথমিকভাবে চিকিৎসা নেয়। দলনেত্রী পূর্ণিমার অবস্থা বেগতিক হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক রাতেই তাকে রংপুর মেডিকেলে রেফার্ড করে দেয়।

কিশোরগঞ্জ থানার ওসি আব্দুল আউয়াল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

হিজড়াদের আধিপত্য নিয়ে সংঘর্ষ, আহত ৫

 কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী) প্রতিনিধি 
৩০ এপ্রিল ২০২১, ০৬:০৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে হিজড়াদের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে ৫ জন আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার রাত ৮টায় বাজারের ঝরনার মোড়ে তাদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এসময় আহত পূর্ণিমা নামে একজনের অবস্থা বেগতিক হওয়ায় রাতেই তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে রংপুর মেডিকেলে স্থানান্তর করা হয়েছে। 

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, রংপুরের তারাগঞ্জ উপজেলার রানা গ্রুপের কয়েকজন হিজড়া কিশোরগঞ্জ বাজারে চাঁদা তুলছিল। এসময় নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলার পূর্ণিমা গ্রুপের হিজড়াগণ এসে বাধা দেয়। তাদেরকে জানায়, আমরা তো রংপুরে চাঁদা তুলতে যাই না, তোমারা আমাদের জেলায় চাঁদা তুলতে আস কেন।

এ খবর পেয়ে রংপুরের দলনেতা রানা ও তার হিজড়াগণ মাইক্রোবাসযোগে এসে পূর্ণিমা গ্রুপের হিজড়াদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় দুই পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষে পূর্ণিমাসহ তার পক্ষের ৪জন আহত হন। সংবাদ পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়। 

এ ঘটনায় আহত নীলফামারী গ্রুপের দলনেত্রী পূর্ণিমাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এছাড়া সুমি, ঝুমকা, ফুলি ও নদী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে প্রাথমিকভাবে চিকিৎসা নেয়। দলনেত্রী পূর্ণিমার অবস্থা বেগতিক হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক রাতেই তাকে রংপুর মেডিকেলে রেফার্ড করে দেয়।

কিশোরগঞ্জ থানার ওসি আব্দুল আউয়াল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন