ফোনে ডেকে নিয়ে যুবককে পিটিয়ে হত্যা
jugantor
ফোনে ডেকে নিয়ে যুবককে পিটিয়ে হত্যা

  সিলেট ব্যুরো  

০২ মে ২০২১, ২৩:০৯:৫০  |  অনলাইন সংস্করণ

সুনামগঞ্জের ছাতকে ফোনে ডেকে নিয়ে সানি সরকার নামে এক যুবককে পিটিয়ে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। রোববার দুপুরে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউ ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু ঘটে।

সুনামগঞ্জের সহকারী পুলিশ সুপার বিলাল হোসেন ঘটনা স্বীকার করে জানান, এ ঘটনায় নাইম আহমদ (২০) নামের এক যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে।

নিহত সানি সরকার নেত্রকোনা জেলার মোহনগঞ্জ উপজেলার নারাইচ গ্রামের কাজল কান্তি সরকারের ছেলে। বর্তমানে তারা ছাতক শহরের মণ্ডলীভোগ ঘোষবাড়ি এলাকার ভাড়াটে বাসিন্দা।

জানা যায়, গত ২৮ এপ্রিল সন্ধ্যায় মোবাইল ফোনে সানি সরকারকে পৌরসভা কার্যালয় সংলগ্ন রাস্তায় ডেকে নিয়ে লোহার পাইপ দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে প্রতিপক্ষরা। তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় স্থানীয়রা উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন।

এ ঘটনায় নিহতের পিতা কাজল কান্তি সরকার বাদী হয়ে ৪ জনের নাম উল্লেখ করে ৮-১০ জন অজ্ঞাত ব্যক্তির বিরুদ্ধে ছাতক থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

এদিকে সানি সরকারের শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে তাকে আইসিইউতে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়। এখানে ৪ দিন চিকিৎসাধীন অবস্থায় থেকে তার মৃত্যু ঘটে।

ফোনে ডেকে নিয়ে যুবককে পিটিয়ে হত্যা

 সিলেট ব্যুরো 
০২ মে ২০২১, ১১:০৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সুনামগঞ্জের ছাতকে ফোনে ডেকে নিয়ে সানি সরকার নামে এক যুবককে পিটিয়ে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। রোববার দুপুরে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউ ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু ঘটে। 

সুনামগঞ্জের সহকারী পুলিশ সুপার বিলাল হোসেন ঘটনা স্বীকার করে জানান, এ ঘটনায় নাইম আহমদ (২০) নামের এক যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে।

নিহত সানি সরকার নেত্রকোনা জেলার মোহনগঞ্জ উপজেলার নারাইচ গ্রামের কাজল কান্তি সরকারের ছেলে। বর্তমানে তারা ছাতক শহরের মণ্ডলীভোগ ঘোষবাড়ি এলাকার ভাড়াটে বাসিন্দা।

জানা যায়, গত ২৮ এপ্রিল সন্ধ্যায় মোবাইল ফোনে সানি সরকারকে পৌরসভা কার্যালয় সংলগ্ন রাস্তায় ডেকে নিয়ে লোহার পাইপ দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে প্রতিপক্ষরা। তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় স্থানীয়রা উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন।

এ ঘটনায় নিহতের পিতা কাজল কান্তি সরকার বাদী হয়ে ৪ জনের নাম উল্লেখ করে ৮-১০ জন অজ্ঞাত ব্যক্তির বিরুদ্ধে ছাতক থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

এদিকে সানি সরকারের শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে তাকে আইসিইউতে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়। এখানে ৪ দিন চিকিৎসাধীন অবস্থায় থেকে তার মৃত্যু ঘটে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন