খুলনায় ৪ মামলার আসামিকে কুপিয়ে হত্যা
jugantor
খুলনায় ৪ মামলার আসামিকে কুপিয়ে হত্যা

  খুলনা ব্যুরো  

০৫ মে ২০২১, ০৮:২২:০৬  |  অনলাইন সংস্করণ

কুপিয়ে হত্যা

খুলনা নগরীতে অস্ত্র ও মাদকসহ চার মামলার আসামিকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে নগরীর ১ নম্বর বয়রা ক্রস রোডে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত যুবকের নাম এসএম নেওয়াজ মোর্শেদ ওরফে নিয়াজ (৩৫)। তিনি সোনাডাঙ্গা মেইন রোডের এসএম শাহজাহানের ছেলে। নিহতের বিরুদ্ধে নগরীর বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে সোনাডাঙ্গা থানার ওসি মমতাজুল হক জানান, মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ১ নম্বর বয়রা ক্রস রোডের রুবির দোকানের সামনে একটি সেলুনে চুল-দাড়ি কাটাতে অপেক্ষা করছিলেন নেওয়াজ।

সেখানে ১০-১২ জন লোক তাকে তাড়া করে সোনাডাঙ্গা আবাসিকের দিকে নিয়ে এলোপাতাড়িভাবে কুপিয়ে ফেলে রেখে যায়।

এ সময় স্থানীয়রা উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

নিহত নেওয়াজের বিরুদ্ধে সোনাডাঙ্গা থানায় অস্ত্র, মাদক ও ডাকাতির প্রস্তুতিসহ চারটি মামলা রয়েছে বলে জানান ওসি।

খুলনায় ৪ মামলার আসামিকে কুপিয়ে হত্যা

 খুলনা ব্যুরো 
০৫ মে ২০২১, ০৮:২২ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
কুপিয়ে হত্যা
ফাইল ছবি

খুলনা নগরীতে অস্ত্র ও মাদকসহ চার মামলার আসামিকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে নগরীর ১ নম্বর বয়রা ক্রস রোডে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত যুবকের নাম এসএম নেওয়াজ মোর্শেদ ওরফে নিয়াজ (৩৫)। তিনি সোনাডাঙ্গা মেইন রোডের এসএম শাহজাহানের ছেলে। নিহতের বিরুদ্ধে নগরীর বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে সোনাডাঙ্গা থানার ওসি মমতাজুল হক জানান, মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ১ নম্বর বয়রা ক্রস রোডের রুবির দোকানের সামনে একটি সেলুনে চুল-দাড়ি কাটাতে অপেক্ষা করছিলেন নেওয়াজ।

সেখানে ১০-১২ জন লোক তাকে তাড়া করে সোনাডাঙ্গা আবাসিকের দিকে নিয়ে এলোপাতাড়িভাবে কুপিয়ে ফেলে রেখে যায়।

এ সময় স্থানীয়রা উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

নিহত নেওয়াজের বিরুদ্ধে সোনাডাঙ্গা থানায় অস্ত্র, মাদক ও ডাকাতির প্রস্তুতিসহ চারটি মামলা রয়েছে বলে জানান ওসি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন