জেলার মধ্যে গেলেই টিকিট দেয়া হচ্ছে, বাইরে গেলে ভাড়া গাড়িতে
jugantor
জেলার মধ্যে গেলেই টিকিট দেয়া হচ্ছে, বাইরে গেলে ভাড়া গাড়িতে

  রাজশাহী ব্যুরো  

০৬ মে ২০২১, ২২:২৮:০৬  |  অনলাইন সংস্করণ

টানা ২২ দিন বন্ধ থাকার পর পুনরায় চালু হয়েছে গণপরিবহন। সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বৃহস্পতিবার ভোর থেকে অর্ধেক যাত্রী আর বর্ধিত ভাড়া নিয়ে শুধু জেলার ভেতরেই বাস চলাচল করতে পারবে। বন্ধ থাকবে আন্তঃজেলা বাস। তবে রাজশাহীতে আন্তঃজেলা বাসও চলাচল করতে দেখা গেছে।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে রাজশাহীর সঙ্গে আশপাশের জেলাগুলোর বাস চলাচল শুরু হয়েছে। তবে পরিবহন সংশ্লিষ্টদের দাবি, শুধু জেলার ভেতরেই বাস চলাচল সীমাবদ্ধ রাখা হয়েছে। বাসে স্বাস্থ্যবিধিও পুরোপুরি নিশ্চিত করা হচ্ছে। তবে কোনো কোনো হেলপারকে মাস্ক পরতে দেখা যায়নি।

শিরোইল বাস টার্মিনালের কাউন্টারগুলোতে গিয়ে দেখা গেছে, যারা রাজশাহী জেলার ভেতরেই কোন স্থানে যাবেন, তাদের টিকিট দেয়া হচ্ছে। আর রাজশাহী ছাড়িয়ে অন্য জেলায় গেলে তাকে টিকিট দেয়া হচ্ছে না। ওই যাত্রীর কাছ থেকে বাসেই ভাড়া নেয়া হবে বলে কাউন্টার থেকে জানানো হচ্ছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কাউন্টার মাস্টার রামিউল ইসলাম দাবি করেন, জেলার বাইরে বাস যাচ্ছে না। তাই টিকিট দেয়া হচ্ছে না। তবে নওগাঁ থেকে বাস আসা এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জের উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে রামিউল কোনো মন্তব্য করতে চাননি। তিনি বলেন, আমি এ বিষয়ে জানি না।

জানতে চাইলে জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মাহাতাব হোসেন চৌধুরী বলেন, যাত্রীরা খুব অসুবিধায় ছিলেন। শ্রমিকরাও সংকটে ছিলেন। বাস চলাচল শুরু হওয়ায় সবার সুবিধা হবে।

বাস জেলা ছাড়িয়ে যাওয়া প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এটা মালিক সমিতি বলতে পারবে।

কথা বলতে জেলা বাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মতিউল হক টিটোকে একাধিকবার ফোন করা হলেও তিনি ধরেননি।

জেলার মধ্যে গেলেই টিকিট দেয়া হচ্ছে, বাইরে গেলে ভাড়া গাড়িতে

 রাজশাহী ব্যুরো 
০৬ মে ২০২১, ১০:২৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

টানা ২২ দিন বন্ধ থাকার পর পুনরায় চালু হয়েছে গণপরিবহন। সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বৃহস্পতিবার ভোর থেকে অর্ধেক যাত্রী আর বর্ধিত ভাড়া নিয়ে শুধু জেলার ভেতরেই বাস চলাচল করতে পারবে। বন্ধ থাকবে আন্তঃজেলা বাস। তবে রাজশাহীতে আন্তঃজেলা বাসও চলাচল করতে দেখা গেছে।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে রাজশাহীর সঙ্গে আশপাশের জেলাগুলোর বাস চলাচল শুরু হয়েছে। তবে পরিবহন সংশ্লিষ্টদের দাবি, শুধু জেলার ভেতরেই বাস চলাচল সীমাবদ্ধ রাখা হয়েছে। বাসে স্বাস্থ্যবিধিও পুরোপুরি নিশ্চিত করা হচ্ছে। তবে কোনো কোনো হেলপারকে মাস্ক পরতে দেখা যায়নি।

শিরোইল বাস টার্মিনালের কাউন্টারগুলোতে গিয়ে দেখা গেছে, যারা রাজশাহী জেলার ভেতরেই কোন স্থানে যাবেন, তাদের টিকিট দেয়া হচ্ছে। আর রাজশাহী ছাড়িয়ে অন্য জেলায় গেলে তাকে টিকিট দেয়া হচ্ছে না। ওই যাত্রীর কাছ থেকে বাসেই ভাড়া নেয়া হবে বলে কাউন্টার থেকে জানানো হচ্ছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কাউন্টার মাস্টার রামিউল ইসলাম দাবি করেন, জেলার বাইরে বাস যাচ্ছে না। তাই টিকিট দেয়া হচ্ছে না। তবে নওগাঁ থেকে বাস আসা এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জের উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে রামিউল কোনো মন্তব্য করতে চাননি। তিনি বলেন, আমি এ বিষয়ে জানি না।

জানতে চাইলে জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মাহাতাব হোসেন চৌধুরী বলেন, যাত্রীরা খুব অসুবিধায় ছিলেন। শ্রমিকরাও সংকটে ছিলেন। বাস চলাচল শুরু হওয়ায় সবার সুবিধা হবে।

বাস জেলা ছাড়িয়ে যাওয়া প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এটা মালিক সমিতি বলতে পারবে।

কথা বলতে জেলা বাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মতিউল হক টিটোকে একাধিকবার ফোন করা হলেও তিনি ধরেননি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন