স্ত্রীর ওড়নায় রিকশাচালকের আত্মহত্যা
jugantor
স্ত্রীর ওড়নায় রিকশাচালকের আত্মহত্যা

  ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি  

০৮ মে ২০২১, ০০:৪৬:৩২  |  অনলাইন সংস্করণ

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে পারিবারিক কলহের জের ধরে স্ত্রীর ওড়না গলায় পেঁচিয়ে সুজন মিয়া (২৮) নামের এক যুবক আত্মহত্যা করেছে বলে জানা গেছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে।

নিহত সুজন মিয়া পঞ্চবটি বউ বাজার এলাকার জাকির মিয়ার বাড়ির ভাড়াটিয়া।

এলাকাবাসী ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, সুজন পেশায় একজন রিকশাচালক ছিল। সাত বছর আগে সে হোসনা নামে এক মেয়ের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে সুজন মাদক সেবনে জড়িয়ে পড়ে। মাদক সেবনের ফলে প্রতিদিনই স্বামী স্ত্রীর মাঝে কলহ চলছিল।

এ কারণে গত এক মাস আগে স্ত্রী হোসনা বেগম রাগ করে স্বামীকে ছেড়ে পিতার বাড়িতে চলে যায়। স্ত্রী চলে যাওয়ায় সুজন মানসিক চাপে ভুগতে থাকে। স্ত্রীর প্রতি অভিমান করে শুক্রবার সন্ধ্যায় স্ত্রীর ওড়না গলায় পেঁচিয়ে তিনি আত্মহত্যা করেন বলে পরিবারের সদস্যরা জানায়।

ভৈরব থানার ওসি মো. শাহিন জানান, ওড়না পেঁচিয়ে সুজন আত্মহত্যা করে। পুলিশ খবর পেয়ে তার লাশ উদ্ধার করেছে। ঠিক কি কারণে তিনি আত্মহত্যা করলেন তা জানা যায়নি। এ ব্যাপারে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

স্ত্রীর ওড়নায় রিকশাচালকের আত্মহত্যা

 ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি 
০৮ মে ২০২১, ১২:৪৬ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে পারিবারিক কলহের জের ধরে স্ত্রীর ওড়না গলায় পেঁচিয়ে সুজন মিয়া (২৮) নামের এক যুবক আত্মহত্যা করেছে বলে জানা গেছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে। 

নিহত সুজন মিয়া পঞ্চবটি বউ বাজার এলাকার জাকির মিয়ার বাড়ির ভাড়াটিয়া। 

এলাকাবাসী ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, সুজন পেশায় একজন রিকশাচালক ছিল। সাত বছর আগে সে হোসনা নামে এক মেয়ের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে সুজন মাদক সেবনে জড়িয়ে পড়ে। মাদক সেবনের ফলে প্রতিদিনই স্বামী স্ত্রীর মাঝে কলহ চলছিল।

এ কারণে গত এক মাস আগে স্ত্রী হোসনা বেগম রাগ করে স্বামীকে ছেড়ে পিতার বাড়িতে চলে যায়। স্ত্রী চলে যাওয়ায় সুজন মানসিক চাপে ভুগতে থাকে। স্ত্রীর প্রতি অভিমান করে  শুক্রবার সন্ধ্যায় স্ত্রীর ওড়না গলায় পেঁচিয়ে তিনি আত্মহত্যা করেন বলে পরিবারের সদস্যরা জানায়।

ভৈরব থানার ওসি মো. শাহিন জানান, ওড়না পেঁচিয়ে সুজন আত্মহত্যা করে। পুলিশ খবর পেয়ে তার লাশ উদ্ধার করেছে। ঠিক কি কারণে তিনি আত্মহত্যা করলেন তা জানা যায়নি। এ ব্যাপারে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন