জনতা ব্যাংক অফিসারদের ঊদ্যোগে ত্রাণ বিতরণ
jugantor
জনতা ব্যাংক অফিসারদের ঊদ্যোগে ত্রাণ বিতরণ

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

০৮ মে ২০২১, ২০:২৮:৩৪  |  অনলাইন সংস্করণ

জনতা ব্যাংক অফিসারদের ঊদ্যোগে অসহায় ও কর্মহীন ২৫০ পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে। শনিবার সকালে খুলনার খানজাহান আলী আদর্শ মহাবিদ্যালয় মাঠে কর্মহীন ও অসহায় এসব পরিবারের মাঝে ত্রাণসামগ্রী তুলে দেন স্বাধীনতা ব্যাংকার্স পরিষদ জনতা ব্যাংকের সাধারণ সম্পাদক আশরাফ উল আলম ব্যাকুল ও সংগঠনের নেতারা।

প্রত্যেক পরিবারকে চাল ৫ কেজি, আটা ১ কেজি, চিনি ১ কেজি, লবণ ১ কেজি, ডাল ১ কেজি, সয়াবিন তেল ১ লিটার, পেঁয়াজ ১ কেজি, আলু ১ কেজি, সেমাই ১ প্যাকেট ও ১টি করে সাবান বিতরণ করা হয়।

ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমের উদ্যোক্তা ও পরামর্শক এবং স্বাধীনতা ব্যাংকার্স পরিষদের প্রধান উপদেষ্টা জনতা ব্যাংক লিমিটেডের এমডি অ্যান্ড সিইও বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুছ ছালাম আজাদ ভার্চুয়ালি বক্তব্য দেন। তিনি বলেন, যত দিন এই মহামারি থাকবে ততদিন বিভিন্ন জেলায় জনতা ব্যাংকের পক্ষ হতে এই ত্রাণ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় সামর্থ্যবান ব্যক্তিদেরও এগিয়ে আসার আহবান জানান।

স্বাধীনতা ব্যাংকার্স পরিষদ জনতা ব্যাংকের সাধারণ সম্পাদক আশরাফ উল আলম ব্যাকুল বলেন, বঙ্গবন্ধুর ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশ বিনির্মাণের অসমাপ্ত স্বপ্ন বাস্তবায়নের জন্য প্রধানমন্ত্রী নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। আমরা তার স্বপ্নসারথী হিসাবে অসহায় ও দুস্থ মানুষদের পাশে থাকার চেষ্টা করছি। আমাদের এমডি অ্যান্ড সিইও বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সালাম আজাদের পরামর্শে সারাদেশে এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

ত্রাণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন জনতা ব্যাংক লিমিটেডের (খুলনা) বিভাগীয় কার্যালয়ের মহাব্যবস্থাপক মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির চৌধুরী। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন খুলনার খানজাহান আলী থানা শাখার অফিসার ইনচার্জ প্রবীর কুমার বিশ্বাস, ১নং আটরা গিলাতলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ মনিরুল ইসলাম, দামোদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শরীফ মোহাম্মদ ভূঁইয়া শিপলু।

উপস্থিত ছিলেন অরূণ প্রকাশ বিশ্বাস (ডিজিএম), মিজানুর রহমান (এরিয়া ইনচার্জ, খুলনা) জনতা ব্যাংক লিমিটেড এবং স্বাধীনতা ব্যাংকার্স পরিষদের ইদ্রিস আলী গাজী, আমিনুল ইসলাম মঈন, গাজী জগলুল আহমেদ, মানস কুমার ঢালী, রনি ভূইয়াসহ সংগঠনের নেতারা।

জনতা ব্যাংক অফিসারদের ঊদ্যোগে ত্রাণ বিতরণ

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
০৮ মে ২০২১, ০৮:২৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

জনতা ব্যাংক অফিসারদের ঊদ্যোগে অসহায় ও কর্মহীন ২৫০ পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে। শনিবার সকালে খুলনার খানজাহান আলী আদর্শ মহাবিদ্যালয় মাঠে কর্মহীন ও অসহায় এসব পরিবারের মাঝে ত্রাণসামগ্রী তুলে দেন স্বাধীনতা ব্যাংকার্স পরিষদ জনতা ব্যাংকের সাধারণ সম্পাদক আশরাফ উল আলম ব্যাকুল ও সংগঠনের নেতারা।

প্রত্যেক পরিবারকে চাল ৫ কেজি, আটা ১ কেজি, চিনি ১ কেজি, লবণ ১ কেজি, ডাল ১ কেজি, সয়াবিন তেল ১ লিটার, পেঁয়াজ ১ কেজি, আলু ১ কেজি, সেমাই ১ প্যাকেট ও ১টি করে সাবান বিতরণ করা হয়।

ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমের উদ্যোক্তা ও পরামর্শক এবং স্বাধীনতা ব্যাংকার্স পরিষদের প্রধান উপদেষ্টা জনতা ব্যাংক লিমিটেডের এমডি অ্যান্ড সিইও বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুছ ছালাম আজাদ ভার্চুয়ালি বক্তব্য দেন। তিনি বলেন, যত দিন এই মহামারি থাকবে ততদিন বিভিন্ন জেলায় জনতা ব্যাংকের পক্ষ হতে এই ত্রাণ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় সামর্থ্যবান ব্যক্তিদেরও এগিয়ে আসার আহবান জানান।

স্বাধীনতা ব্যাংকার্স পরিষদ জনতা ব্যাংকের সাধারণ সম্পাদক আশরাফ উল আলম ব্যাকুল বলেন, বঙ্গবন্ধুর ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশ বিনির্মাণের অসমাপ্ত স্বপ্ন বাস্তবায়নের জন্য প্রধানমন্ত্রী নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। আমরা তার স্বপ্নসারথী হিসাবে অসহায় ও দুস্থ মানুষদের পাশে থাকার চেষ্টা করছি। আমাদের এমডি অ্যান্ড সিইও বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সালাম আজাদের পরামর্শে সারাদেশে এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

ত্রাণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন জনতা ব্যাংক লিমিটেডের (খুলনা) বিভাগীয় কার্যালয়ের মহাব্যবস্থাপক মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির চৌধুরী। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন খুলনার খানজাহান আলী থানা শাখার অফিসার ইনচার্জ প্রবীর কুমার বিশ্বাস, ১নং আটরা গিলাতলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ মনিরুল ইসলাম, দামোদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শরীফ মোহাম্মদ ভূঁইয়া শিপলু।

উপস্থিত ছিলেন অরূণ প্রকাশ বিশ্বাস (ডিজিএম), মিজানুর রহমান (এরিয়া ইনচার্জ, খুলনা) জনতা ব্যাংক লিমিটেড এবং স্বাধীনতা ব্যাংকার্স পরিষদের ইদ্রিস আলী গাজী, আমিনুল ইসলাম মঈন, গাজী জগলুল আহমেদ, মানস কুমার ঢালী, রনি ভূইয়াসহ সংগঠনের নেতারা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন