বিক্ষোভের মুখে বাড়ানো হলো ঈদের ছুটি
jugantor
বিক্ষোভের মুখে বাড়ানো হলো ঈদের ছুটি

  যুগান্তর প্রতিবেদন, গাজীপুর  

০৯ মে ২০২১, ২০:৫১:৩৫  |  অনলাইন সংস্করণ

গাজীপুরের জয়দেবপুর থানাধীন হোতাপাড়া বেগমপুর এলাকায় ঈদের ছুটি বাড়ানোর দাবিতে মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছেন শ্রমিকরা। এতে মহাসড়কের দু’পাশে কয়েক কিলোমিটার যানজট তৈরি হয়।

প্রায় ঘণ্টাখানেক অবরোধ থাকার পর কারখানা কর্তৃপক্ষ শ্রমিকদের দাবি মেনে নিলে তারা মহাসড়ক ছেড়ে চলে যান এবং যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

রোববার বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে পলমল গ্রুপের সাফা সোয়েটার লিমিটেডের শ্রমিকরা এ বিক্ষোভ করেন। পরে জয়দেবপুর থানার ওসি মামুন আল রশিদ সংবাদ পেয়ে ফোর্সসহ সাফা সোয়েটারে এসে শ্রমিক ও কারখানা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে ঘটনা নিয়ন্ত্রণ করতে সক্ষম হয়।

কারখানার শ্রমিক তানভীর, সোহেল, বুলবুল জানান, পলমল গ্রুপের সাফা সোয়েটার কারখানায় ঈদ উপলক্ষে রোববার সাত দিনের ছুটি ঘোষণা করে কর্তৃপক্ষ। একই গ্রুপের অন্য একটি প্রতিষ্ঠানে ১০ দিনের ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। তিন দিনের ছুটি বাড়ানো নিয়ে আমরা একাধিকবার কারখানা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলেও কোনো ফল পাইনি। অবশেষে বাধ্য হয়েই আন্দোলনে নেমেছেন কারখানার শ্রমিকরা। পরে কর্তৃপক্ষ দাবি মানলে অবরোধ তুলে নেয়া হয়।

শ্রমিকদের দাবির বিষয়ে কারখানার জেনারেল ম্যানেজার নুরশেদ আলম বলেন, কারখানায় প্রচুর কাজের চাহিদা রয়েছে। তাই ঈদে শ্রমিকদের সাত দিনের ছুটি দিয়েছিল কর্তৃপক্ষ। কারখানার সিদ্ধান্তের বিষয়ে যেহেতু শ্রমিকরা আপত্তি জানিয়েছেন তাই আমরা তাদের দাবি মেনে নিয়েছি।

জয়দেবপুর থানার ওসি আব্দুল্লাহ্ আল মামুন বলেন, কারখানা শ্রমিকদের দাবি পুনর্বিবেচনা করার জন্য তাৎক্ষণিক কারখানা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করা হয়। পরে শ্রমিকদের দাবি মেনে নেয়ায় মহাসড়ক থেকে চলে যান তারা।

বিক্ষোভের মুখে বাড়ানো হলো ঈদের ছুটি

 যুগান্তর প্রতিবেদন, গাজীপুর 
০৯ মে ২০২১, ০৮:৫১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

গাজীপুরের জয়দেবপুর থানাধীন হোতাপাড়া বেগমপুর এলাকায় ঈদের ছুটি বাড়ানোর দাবিতে মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছেন শ্রমিকরা। এতে মহাসড়কের দু’পাশে কয়েক কিলোমিটার যানজট তৈরি হয়। 

প্রায় ঘণ্টাখানেক অবরোধ থাকার পর কারখানা কর্তৃপক্ষ শ্রমিকদের দাবি মেনে নিলে তারা মহাসড়ক ছেড়ে চলে যান এবং যান চলাচল স্বাভাবিক হয়। 

রোববার বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে পলমল গ্রুপের সাফা সোয়েটার লিমিটেডের শ্রমিকরা এ বিক্ষোভ করেন। পরে জয়দেবপুর থানার ওসি মামুন আল রশিদ সংবাদ পেয়ে ফোর্সসহ সাফা সোয়েটারে এসে শ্রমিক ও কারখানা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে ঘটনা নিয়ন্ত্রণ করতে সক্ষম হয়।

কারখানার শ্রমিক তানভীর, সোহেল, বুলবুল জানান, পলমল গ্রুপের সাফা সোয়েটার কারখানায় ঈদ উপলক্ষে রোববার সাত দিনের ছুটি ঘোষণা করে কর্তৃপক্ষ। একই গ্রুপের অন্য একটি প্রতিষ্ঠানে ১০ দিনের ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। তিন দিনের ছুটি বাড়ানো নিয়ে আমরা একাধিকবার কারখানা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলেও কোনো ফল পাইনি। অবশেষে বাধ্য হয়েই আন্দোলনে নেমেছেন কারখানার শ্রমিকরা। পরে কর্তৃপক্ষ দাবি মানলে অবরোধ তুলে নেয়া হয়। 

শ্রমিকদের দাবির বিষয়ে কারখানার জেনারেল ম্যানেজার নুরশেদ আলম বলেন, কারখানায় প্রচুর কাজের চাহিদা রয়েছে। তাই ঈদে শ্রমিকদের সাত দিনের ছুটি দিয়েছিল কর্তৃপক্ষ। কারখানার সিদ্ধান্তের বিষয়ে যেহেতু শ্রমিকরা আপত্তি জানিয়েছেন তাই আমরা তাদের দাবি মেনে নিয়েছি।

জয়দেবপুর থানার ওসি আব্দুল্লাহ্ আল মামুন বলেন, কারখানা শ্রমিকদের দাবি পুনর্বিবেচনা করার জন্য তাৎক্ষণিক কারখানা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করা হয়। পরে শ্রমিকদের দাবি মেনে নেয়ায় মহাসড়ক থেকে চলে যান তারা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন