হাটহাজারীতে চায়ের দোকানে মিলল কর্মচারীর লাশ
jugantor
হাটহাজারীতে চায়ের দোকানে মিলল কর্মচারীর লাশ

  হাটাহাজারী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি  

১০ মে ২০২১, ১৩:২০:০৬  |  অনলাইন সংস্করণ

লাশ উদ্ধার

চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলায় চায়ের দোকান থেকে এক কর্মচারীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

রোববার রাতে উপজেলার ধলই ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ড এলাকা থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

নিহত ওই কর্মচারীর নাম বাবুল দে (৫৩)। তিনি ওই ইউনিয়নের পশ্চিম ধলই এলাকার মৃত অনন্তর দের ছেলে।

বাবুল উদলিয়া এলাকার একটি চায়ের দোকানে দৈনিক ভিত্তিতে কর্মচারীর কাজ করতেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গত শনিবার চায়ের দোকানে কর্মচারী বাবুল ঘর থেকে বের হয়ে আর ফেরেননি। রোববার ওই ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের সীমান্ত এলাকায় রাস্তা দিয়ে লোকজন চলাচলের সময় এক ব্যক্তির মরদেহ দেখে পুলিশে অবহিত করেন।

খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে কর্মচারী বাবুলের মরদেহ উদ্ধার করে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল (চমেক) মর্গে পাঠায়।

ধলই ইউনিয়নের দুই নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার খোকন চৌধুরী বলেন, হতদরিদ্র চায়ের দোকানের কর্মচারী বাবুল একেবারে অসহায় ও নিঃস্ব। তার শরীর খুবই দুর্বল। গরম ও দুর্বলতার কারণে হয়তো হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তিনি মারা যেতে পারেন।

হাটহাজারী মডেল থানার উপ-পরিদর্শক মশিউর রহমান জানান, নিহতের মহদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

তবে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত কিছু বলা যাচ্ছে না। এ ব্যাপারে বিধি মোতাবেক মামলা রেকর্ড করা হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

হাটহাজারীতে চায়ের দোকানে মিলল কর্মচারীর লাশ

 হাটাহাজারী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি 
১০ মে ২০২১, ০১:২০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
লাশ উদ্ধার
ফাইল ছবি

চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলায় চায়ের দোকান থেকে এক কর্মচারীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

রোববার রাতে উপজেলার ধলই ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ড এলাকা থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

 নিহত ওই কর্মচারীর নাম বাবুল দে (৫৩)। তিনি ওই ইউনিয়নের পশ্চিম ধলই এলাকার মৃত অনন্তর দের ছেলে।

বাবুল উদলিয়া এলাকার একটি চায়ের দোকানে দৈনিক ভিত্তিতে কর্মচারীর কাজ করতেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গত শনিবার চায়ের দোকানে কর্মচারী বাবুল ঘর থেকে বের হয়ে আর ফেরেননি। রোববার ওই ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের সীমান্ত এলাকায় রাস্তা দিয়ে লোকজন চলাচলের সময় এক ব্যক্তির মরদেহ দেখে পুলিশে অবহিত করেন।

খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে কর্মচারী বাবুলের মরদেহ উদ্ধার করে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল (চমেক) মর্গে পাঠায়।

ধলই ইউনিয়নের দুই নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার খোকন চৌধুরী বলেন, হতদরিদ্র চায়ের দোকানের কর্মচারী বাবুল একেবারে অসহায় ও নিঃস্ব। তার শরীর খুবই দুর্বল। গরম ও দুর্বলতার কারণে হয়তো হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তিনি মারা যেতে পারেন।

হাটহাজারী মডেল থানার উপ-পরিদর্শক মশিউর রহমান জানান, নিহতের মহদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

তবে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত কিছু বলা যাচ্ছে না।  এ ব্যাপারে বিধি মোতাবেক মামলা রেকর্ড করা হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন