ট্রাক-অটোরিকশা সংঘর্ষে শিশুসহ নিহত ৩
jugantor
ট্রাক-অটোরিকশা সংঘর্ষে শিশুসহ নিহত ৩

  বাঁশখালী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি  

১০ মে ২০২১, ১৮:১৪:০৫  |  অনলাইন সংস্করণ

চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলায় ট্রাক-সিএনজিচালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে শিশুসহ সিএনজি অটোরিকশার ৩ যাত্রী নিহত হয়েছে।

সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার সাধনপুর ইউনিয়নের বৈলগাঁও দমদমার দিঘীর পাড় এলাকার প্রধান সড়কে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন বান্দরবানের বাইশারী উপজেলার নাইক্ষ্যংছড়ি এলাকার মোহাম্মদ হাশেমের পুত্র আবদুর রহিম (২৭), চকরিয়া উপজেলার ফাসিয়াখালী এলাকার মোহাম্মদ আরমানের স্ত্রী সানজিদা করিম প্রিয়া (২৫) ও তার ৫ বছর বয়সী শিশু কন্যা মণি আক্তার।

এ ঘটনায় নিহত সানজিদা করিম প্রিয়ার স্বামী মোহাম্মদ আরমান (৩০) ও সিএনজি অটোরিক্সা চালক মোহাম্মদ আইয়ুবকে (২৮) গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে পার্শ্ববর্তী আনোয়ারা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তাদের অবস্থার অবনতি ঘটায় সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদেরকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে রেফার্ড করেন।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন বাঁশখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইদুজ্জামান চৌধুরী, সহকারী পুলিশ সুপার (আনোয়ারা সার্কেল) হুমায়ুন কবির, বাঁশখালী থানার ওসি মোহাম্মদ সফিউল কবীর ও সাধনপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মহিউদ্দীন চৌধুরী খোকা।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, চট্টগ্রাম শহর থেকে একটি সিএনজি অটোরিকশা বাঁশখালী প্রধান সড়ক হয়ে চকরিয়া যাচ্ছিল। পথে উপজেলার সাধনপুর ইউনিয়নের দমদমার দিঘীর পাড় এলাকায় পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে ছুটে আসা একটি ট্রাকের সঙ্গে অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।

এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হয় সিএনজি অটোরিকশায় থাকা শিশুসহ ৩ জন। গুরুতর আহত অবস্থায় সিএনজি অটোরিকশার চালক ও অপর ১ যাত্রীকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায় বলে প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়।

সাধনপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক ইউপি সদস্য মো. দেলোয়ার হোসেন বলেন, চট্টগ্রাম শহর থেকে সিমেন্ট নিয়ে আসা একটি ট্রাক বাঁশখালীতে সিমেন্ট খালাস করে চট্টগ্রাম শহরে পুনরায় ফিরে যাওয়ার সময় ওই সিএনজি অটোরিকশার সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে নিহত সিএনজি অটোরিকশার যাত্রীরা চকরিয়া উপজেলার বলে প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ জন নিহতের সত্যতা নিশ্চিত করে সহকারী পুলিশ সুপার (আনোয়ারা সার্কেল) হুমায়ুন কবির বলেন, দুর্ঘটনার পেয়ে আমি দ্রুত ঘটনাস্থলে যাই। দুর্ঘটনার পরপর ট্রাক ড্রাইভার পালিয়ে যাওয়ায় তাকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। তবে দুর্ঘটনা পতিত ট্রাক ও সিএনজি অটোরিকশাটি জব্দ করা হয়েছে। নিহতদের নাম তাৎক্ষনিক ভাবে জানা যায়নি। তাদের বিষয়ে খোঁজখবর নেয়া হচ্ছে।

ট্রাক-অটোরিকশা সংঘর্ষে শিশুসহ নিহত ৩

 বাঁশখালী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি 
১০ মে ২০২১, ০৬:১৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলায় ট্রাক-সিএনজিচালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে শিশুসহ সিএনজি অটোরিকশার ৩ যাত্রী নিহত হয়েছে।

সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার সাধনপুর ইউনিয়নের বৈলগাঁও দমদমার দিঘীর পাড় এলাকার প্রধান সড়কে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন বান্দরবানের বাইশারী উপজেলার নাইক্ষ্যংছড়ি এলাকার মোহাম্মদ হাশেমের পুত্র আবদুর রহিম (২৭), চকরিয়া উপজেলার ফাসিয়াখালী এলাকার মোহাম্মদ আরমানের স্ত্রী সানজিদা করিম প্রিয়া (২৫) ও তার ৫ বছর বয়সী শিশু কন্যা মণি আক্তার।

এ ঘটনায় নিহত সানজিদা করিম প্রিয়ার স্বামী মোহাম্মদ আরমান (৩০) ও সিএনজি অটোরিক্সা চালক মোহাম্মদ আইয়ুবকে (২৮) গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে পার্শ্ববর্তী আনোয়ারা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তাদের অবস্থার অবনতি ঘটায় সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদেরকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে রেফার্ড করেন। 

খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন বাঁশখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইদুজ্জামান চৌধুরী, সহকারী পুলিশ সুপার (আনোয়ারা সার্কেল) হুমায়ুন কবির, বাঁশখালী থানার ওসি মোহাম্মদ সফিউল কবীর ও সাধনপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মহিউদ্দীন চৌধুরী খোকা।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, চট্টগ্রাম শহর থেকে একটি সিএনজি অটোরিকশা বাঁশখালী প্রধান সড়ক হয়ে চকরিয়া যাচ্ছিল। পথে উপজেলার সাধনপুর ইউনিয়নের দমদমার দিঘীর পাড় এলাকায় পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে ছুটে আসা একটি ট্রাকের সঙ্গে অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।

এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হয় সিএনজি অটোরিকশায় থাকা শিশুসহ ৩ জন। গুরুতর আহত অবস্থায় সিএনজি অটোরিকশার চালক ও অপর ১ যাত্রীকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায় বলে প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়।

সাধনপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক ইউপি সদস্য মো. দেলোয়ার হোসেন বলেন, চট্টগ্রাম শহর থেকে সিমেন্ট নিয়ে আসা একটি ট্রাক বাঁশখালীতে সিমেন্ট খালাস করে চট্টগ্রাম শহরে পুনরায় ফিরে যাওয়ার সময় ওই সিএনজি অটোরিকশার সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে নিহত সিএনজি অটোরিকশার যাত্রীরা চকরিয়া উপজেলার বলে প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ জন নিহতের সত্যতা নিশ্চিত করে সহকারী পুলিশ সুপার (আনোয়ারা সার্কেল) হুমায়ুন কবির বলেন, দুর্ঘটনার পেয়ে আমি দ্রুত ঘটনাস্থলে যাই। দুর্ঘটনার পরপর ট্রাক ড্রাইভার পালিয়ে যাওয়ায় তাকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। তবে দুর্ঘটনা পতিত ট্রাক ও সিএনজি অটোরিকশাটি জব্দ করা হয়েছে। নিহতদের নাম তাৎক্ষনিক ভাবে জানা যায়নি। তাদের বিষয়ে খোঁজখবর নেয়া হচ্ছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন