মানুষের ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠা করাই আমার লড়াই: কাদের মির্জা
jugantor
মানুষের ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠা করাই আমার লড়াই: কাদের মির্জা

  কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি  

১১ মে ২০২১, ২০:২২:২৪  |  অনলাইন সংস্করণ

নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা বলেন, আমার লড়াই হচ্ছে মানুষের ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠার লড়াই। আমি গরিব মানুষের পক্ষে কথা বলব। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান গরিবের পক্ষে কথা বলেছেন। তিনি গরিবের জন্য কাজ করেছেন। বঙ্গবন্ধু বলেছেন- তোমরা থাকবে তেতালার ওপরে আমরা থাকব নিচে, তোমাদের দেবতা মানব- সে কথা আজ মিছে।

মঙ্গলবার দুপুরে কোম্পানীগঞ্জের মুছাপুর ইউনিয়নে দুস্থ, গরিব ও অসহায়দের মাঝে ঈদসামগ্রী ও নগদ অর্থ বিতরণকালে তিনি এসব কথা বলেন।

কাদের মির্জা বলেন, যতদিন বেঁচে থাকব গরিবের জন্য কাজ করে যাব। শেখ হাসিনা হলেন বাপ কা বেটি। রোহিঙ্গাদের জন্য তিনি যে উদারতা দেখিয়েছেন তা বিশ্বের কেউ দেখায়নি। শেখ হাসিনা এ দেশের ৭০ হাজার গৃহহীনকে ঘর দিয়েছেন। আজকে শেখ হাসিনা গরিবের পক্ষে লড়াই করে যাচ্ছেন। আমিও গরিবের পক্ষে লড়াই করে যাব।

তিনি আরও বলেন, আমরা শান্তি চাই। যারা শান্তি নষ্ট করতে চাচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলব। আমি অস্ত্রের রাজনীতি দেখতে চাই না। আমি নিজেও অস্ত্রের রাজনীতি করি না। যারা অস্ত্রবাজি করে তাদের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকবেন। আজকে একটা বিশেষ মহল এই এলাকায় সন্ত্রাস ও নৈরাজ্য চালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা চালাচ্ছে। আপনারা তাদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবেন।

এ সময় মেয়র আবদুল কাদের মির্জার অনুসারী মুছাপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আমেরিকা প্রবাসী আইয়ুব আলীর পক্ষ থেকে ৩ লাখ টাকা ও ১ হাজার পরিবারের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ করা হয়।

মানুষের ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠা করাই আমার লড়াই: কাদের মির্জা

 কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি 
১১ মে ২০২১, ০৮:২২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা বলেন, আমার লড়াই হচ্ছে মানুষের ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠার লড়াই। আমি গরিব মানুষের পক্ষে কথা বলব। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান গরিবের পক্ষে কথা বলেছেন। তিনি গরিবের জন্য কাজ করেছেন। বঙ্গবন্ধু বলেছেন- তোমরা থাকবে তেতালার ওপরে আমরা থাকব নিচে, তোমাদের দেবতা মানব- সে কথা আজ  মিছে।

মঙ্গলবার দুপুরে কোম্পানীগঞ্জের মুছাপুর ইউনিয়নে দুস্থ, গরিব ও অসহায়দের মাঝে ঈদসামগ্রী ও নগদ অর্থ বিতরণকালে তিনি এসব কথা বলেন। 

কাদের মির্জা বলেন, যতদিন বেঁচে থাকব গরিবের জন্য কাজ করে যাব। শেখ হাসিনা হলেন বাপ কা বেটি। রোহিঙ্গাদের জন্য তিনি যে উদারতা দেখিয়েছেন তা বিশ্বের কেউ দেখায়নি। শেখ হাসিনা এ দেশের ৭০ হাজার গৃহহীনকে ঘর দিয়েছেন। আজকে শেখ হাসিনা গরিবের পক্ষে লড়াই করে যাচ্ছেন। আমিও গরিবের পক্ষে লড়াই করে যাব।

তিনি আরও বলেন, আমরা শান্তি চাই। যারা শান্তি নষ্ট করতে চাচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলব। আমি অস্ত্রের রাজনীতি দেখতে চাই না। আমি নিজেও অস্ত্রের রাজনীতি করি না। যারা অস্ত্রবাজি করে তাদের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকবেন। আজকে একটা বিশেষ মহল এই এলাকায় সন্ত্রাস ও নৈরাজ্য চালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা চালাচ্ছে। আপনারা তাদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবেন।

এ সময় মেয়র আবদুল কাদের মির্জার অনুসারী মুছাপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আমেরিকা প্রবাসী আইয়ুব আলীর পক্ষ থেকে ৩ লাখ টাকা ও ১ হাজার পরিবারের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ করা হয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন