নানিকে কুপিয়ে হত্যা করল নাতি
jugantor
নানিকে কুপিয়ে হত্যা করল নাতি

  ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি   

১৩ মে ২০২১, ১৬:১৩:০২  |  অনলাইন সংস্করণ

কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরে নাতি তার নানী বুদি বেগমকে (৫৫) কুপিয়ে হত্যা করেছে । এ সময় ওই নারীকে বাঁচাতে এগিয়ে এসে আহত হয়েছেন আরও দুই ব্যক্তি।

বুধবার রাত রাত ৮টার দিকে উপজেলার ফরিদপুর ইউনিয়নের ফরিদপুর গ্রামে আবু আলী আক্তার উদ্দিন শাহের মাজারের পাশে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত নারীর বাড়ি একই ইউনিয়নের আহমদপুর গ্রামে। অভিযুক্ত নাতির নাম মো. শাহিন (৩৫)। তিনি বুদি বেগমের আপন নাতি। আহতরা কিশোরগঞ্জের বাজিতপুর উপজেলায় জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়রা জানান, সারা দেশে আবু আলী আক্তার উদ্দিন শাহের মাজারের অসংখ্য ভক্ত রয়েছেন। নিহত বুদি ও তার নাতি শাহিন দুজনই ওই মাজারের ভক্ত। বুদি বেগম প্রায়ই ওই মাজারে আসতেন। বুধবারও মাজারে এসেছিলেন। রাত ৮টার দিকে তিনি মাজারসংলগ্ন আনিসুর রহমানের বাড়িতে ছিলেন।

এ সময় ঘর থেকে বের হওয়ামাত্র বুদির ওপর শাহিন হামলা চালিয়ে তাকে দা দিয়ে কোপাতে থাকে। এ সময় বুদির চিৎকারে কাছাকাছি থাকা আতাউর ও আনিসুর (তারাও মাজারের ভক্ত) এগিয়ে আসেন। শাহিন তখন তাদেরও কোপাতে থাকে। এসময় দায়ের আঘাতে ঘটনাস্থলেই বুদি বেগমের মৃত্যু হয়।

তবে শাহিন কেন নানির ওপর হামলা করেছে, স্থানীয়দের কেউ এই সম্পর্কে ধারণা দিতে পারেননি। তবে শাহিন এলাকায় মাদকাসক্ত হিসেবে পরিচিত বলে জানিয়েছেন তারা।
এ বিষয়ে কুলিয়ারচর থানার ওসি এ কে এম সুলতান মাহমুদ বলেন, ঘটনার কারণ তদন্ত করছে পুলিশ।

নানিকে কুপিয়ে হত্যা করল নাতি

 ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি  
১৩ মে ২০২১, ০৪:১৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরে নাতি তার নানী বুদি বেগমকে (৫৫) কুপিয়ে হত্যা করেছে । এ সময় ওই নারীকে বাঁচাতে এগিয়ে এসে আহত হয়েছেন আরও দুই ব্যক্তি। 

বুধবার রাত রাত ৮টার দিকে উপজেলার ফরিদপুর ইউনিয়নের ফরিদপুর গ্রামে আবু আলী আক্তার উদ্দিন শাহের মাজারের পাশে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত নারীর বাড়ি একই ইউনিয়নের আহমদপুর গ্রামে। অভিযুক্ত নাতির নাম মো. শাহিন (৩৫)। তিনি বুদি বেগমের আপন নাতি। আহতরা কিশোরগঞ্জের বাজিতপুর উপজেলায় জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। 

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়রা জানান, সারা দেশে আবু আলী আক্তার উদ্দিন শাহের মাজারের অসংখ্য ভক্ত রয়েছেন। নিহত বুদি ও তার নাতি শাহিন দুজনই ওই মাজারের ভক্ত। বুদি বেগম প্রায়ই ওই মাজারে আসতেন। বুধবারও মাজারে  এসেছিলেন। রাত ৮টার দিকে তিনি মাজারসংলগ্ন আনিসুর রহমানের বাড়িতে ছিলেন। 

এ সময় ঘর থেকে বের হওয়ামাত্র বুদির ওপর শাহিন হামলা চালিয়ে তাকে দা দিয়ে কোপাতে থাকে। এ সময় বুদির চিৎকারে কাছাকাছি থাকা আতাউর ও আনিসুর (তারাও মাজারের ভক্ত) এগিয়ে আসেন। শাহিন তখন তাদেরও কোপাতে থাকে। এসময় দায়ের আঘাতে ঘটনাস্থলেই বুদি বেগমের মৃত্যু হয়।

তবে শাহিন কেন নানির ওপর হামলা করেছে, স্থানীয়দের কেউ এই সম্পর্কে ধারণা দিতে পারেননি। তবে শাহিন এলাকায় মাদকাসক্ত হিসেবে পরিচিত বলে জানিয়েছেন তারা।
 এ বিষয়ে কুলিয়ারচর থানার ওসি এ কে এম সুলতান মাহমুদ বলেন, ঘটনার কারণ তদন্ত করছে পুলিশ। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন