ঈদ আনন্দ থেকে বঞ্চিত ২১৫ বীর মুক্তিযোদ্ধা
jugantor
ঈদ আনন্দ থেকে বঞ্চিত ২১৫ বীর মুক্তিযোদ্ধা

  মদন মোহন ঘোষ, দেওয়ানগঞ্জ (জামালপুর)  

১৩ মে ২০২১, ১৭:৪৫:০১  |  অনলাইন সংস্করণ

জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ উপজেলায় বীর মুক্তিযোদ্ধারা এবার ঈদ আনন্দ থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। রাত পোহালেই ঈদ, এখনও এপ্রিল মাসের সম্মানী ভাতা এবং ঈদ বোনাস পান নাই তারা।

মুক্তিযোদ্ধা আবুল কালাম আজাদ জানান. ভাতা না পাওয়ায় তিনি পরিবারের কাউকে কিছু কিনে দিতে পারেন নাই। অন্যরা হাট-বাজার করছে আমরা চেয়ে চেয়ে দেখছি।

মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার তাকিরুজ্জামান বলেন, মুক্তিযোদ্ধারা ইউএনওর সঙ্গে দেখা করে জানতে চেয়ে ছিলেন কি কারণে এপ্রিল মাসের সম্মানী ভাতা ও ঈদ বোনাস না পাওয়ার কারণ। তিনি কোনো সঠিক উত্তর দিতে পারেন নাই।

বুধবার দেওয়ানগঞ্জ সোনালী ব্যাংক বাজার শাখা ম্যানেজার রাসেল মাহমুদ যুগান্তরকে বলেন, সমাজ সেবা সঠিকভাবে এমআইএস সংশ্লিষ্ট অফিসে পাঠায়নি। যার কারণে এপ্রিল মাসে সাধারণ মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানী ভাতা এবং ঈদ বোনাস পায় নাই। বৈশাখী ভাতার টাকা শুধু চেক ব্যাংকে উপস্থাপনা করেন ইউএনও অফিস উপকারভোগীদের তালিকা ব্যাংকে প্রেরণ না করায় বৈশাখী ভাতার টাকা পেতেও সময় লাগে।

তিনি জানান, তালিকায় কোনো কোনো উপকারভোগী কোনো অংশের ভাতা অথবা বোনাস পাবে তাদেরও তালিকা নেই। সমাজ সেবা অফিস উপজেলা হিসাব রক্ষণ অফিসে এমআইএস পাঠাবে এবং হিসাব রক্ষণ অফিস বাংলাদেশ ব্যাংকে পাঠাবেন। সেখান থেকে সোনালী ব্যাংকে এমআইএস পাঠাবে।

দেওয়ানগঞ্জ মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার খাইরুল ইসলাম যুগান্তরকে বলেন, দেওয়ানগঞ্জ উপজেলায় ২১৫ জন মুক্তিযোদ্ধা সম্মানী ভাতা ১২ হাজার এবং ঈদ বোনাস ১০ হাজার করে পাবেন। কিন্তু সমাজ সেবা এবং ইউএনও অফিসের খাম খেয়ালীপনার কারণে এবার মুক্তিযোদ্ধাদের ঈদ আনন্দ মাটি হয়ে গেল। সারা দেশে মুক্তিযোদ্ধারা ভাতা এবং বোনাস পেয়েছেন শুধু দেওয়ানগঞ্জে ৪৩ জন যোদ্ধাহত মযক্তিযোদ্ধা ইসলামপুর অগ্রনী ব্যাংক থেকে টাকা তুলেছেন। ২১৫ জন সাধারণ মুক্তিযোদ্ধা এপ্রিল মাসের ভাতা ও ঈদ বোনাস উত্তোলন করতে পারেন নাই। তারা প্রতিদিনই প্রায় ইউএনও অফিস, সমাজ সেবা অফিস ও সোনালী ব্যাংকে ঘোরাঘুরি করছে ভাতা ও বোনাসের আশায়।

এ বিষয়ে জামালপুর জেলা প্রশাসক মুর্শেদা জামান যুগান্তরকে জানান, সারা দেশেই মুক্তিযোদ্ধারা ভাতা ও ঈদ বোনাস পেয়েছেন। দেওয়ানগঞ্জের বিষয়টি তাকে কেউ জানাননি।

দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা একে আব্দুল্লাহ বিন রশিদ যুগান্তরকে বলেন. কারিগরি ত্রুটির জন্য এমন হয়েছে। সংশ্লিষ্ট বাজেট শাখার সঙ্গে তিনি কথা বলেছেন। তারা জানিয়েছেন দুই দিনের মধ্যে ভাতা ও বোনাস দেওয়া সম্ভব নয়। তবে ঈদের পরেই ভাতা বোনাস পেয়ে যাবেন বলে তিনি মুক্তিযোদ্ধাদের আশ্বস্ত করেছেন।

ঈদ আনন্দ থেকে বঞ্চিত ২১৫ বীর মুক্তিযোদ্ধা

 মদন মোহন ঘোষ, দেওয়ানগঞ্জ (জামালপুর) 
১৩ মে ২০২১, ০৫:৪৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ উপজেলায় বীর মুক্তিযোদ্ধারা এবার ঈদ আনন্দ থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। রাত পোহালেই ঈদ, এখনও এপ্রিল মাসের সম্মানী ভাতা এবং ঈদ বোনাস পান নাই তারা।

মুক্তিযোদ্ধা আবুল কালাম আজাদ জানান. ভাতা না পাওয়ায় তিনি পরিবারের কাউকে কিছু কিনে দিতে পারেন নাই। অন্যরা হাট-বাজার করছে আমরা চেয়ে চেয়ে দেখছি। 

মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার তাকিরুজ্জামান বলেন, মুক্তিযোদ্ধারা ইউএনওর সঙ্গে দেখা করে জানতে চেয়ে ছিলেন কি কারণে এপ্রিল মাসের সম্মানী ভাতা ও ঈদ বোনাস না পাওয়ার কারণ। তিনি কোনো সঠিক উত্তর দিতে পারেন নাই। 

বুধবার দেওয়ানগঞ্জ সোনালী ব্যাংক বাজার শাখা ম্যানেজার রাসেল মাহমুদ যুগান্তরকে বলেন, সমাজ সেবা সঠিকভাবে এমআইএস সংশ্লিষ্ট অফিসে পাঠায়নি। যার কারণে এপ্রিল মাসে সাধারণ মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানী ভাতা এবং ঈদ বোনাস পায় নাই। বৈশাখী ভাতার টাকা শুধু চেক ব্যাংকে উপস্থাপনা করেন ইউএনও অফিস উপকারভোগীদের তালিকা ব্যাংকে প্রেরণ না করায় বৈশাখী ভাতার টাকা পেতেও সময় লাগে।

তিনি জানান, তালিকায় কোনো কোনো উপকারভোগী কোনো অংশের ভাতা অথবা বোনাস পাবে তাদেরও তালিকা নেই। সমাজ সেবা অফিস উপজেলা হিসাব রক্ষণ অফিসে এমআইএস পাঠাবে এবং হিসাব রক্ষণ অফিস বাংলাদেশ ব্যাংকে পাঠাবেন। সেখান থেকে সোনালী ব্যাংকে এমআইএস পাঠাবে। 

দেওয়ানগঞ্জ মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার খাইরুল ইসলাম যুগান্তরকে বলেন, দেওয়ানগঞ্জ উপজেলায় ২১৫ জন মুক্তিযোদ্ধা সম্মানী ভাতা ১২ হাজার এবং ঈদ বোনাস ১০ হাজার করে পাবেন। কিন্তু সমাজ সেবা এবং ইউএনও অফিসের খাম খেয়ালীপনার কারণে এবার মুক্তিযোদ্ধাদের ঈদ আনন্দ মাটি হয়ে গেল। সারা দেশে মুক্তিযোদ্ধারা ভাতা এবং বোনাস পেয়েছেন শুধু দেওয়ানগঞ্জে ৪৩ জন যোদ্ধাহত মযক্তিযোদ্ধা ইসলামপুর অগ্রনী ব্যাংক থেকে টাকা তুলেছেন। ২১৫ জন সাধারণ মুক্তিযোদ্ধা এপ্রিল মাসের ভাতা ও ঈদ বোনাস উত্তোলন করতে পারেন নাই। তারা প্রতিদিনই প্রায় ইউএনও অফিস, সমাজ সেবা অফিস ও সোনালী ব্যাংকে ঘোরাঘুরি করছে ভাতা ও বোনাসের আশায়। 

এ বিষয়ে জামালপুর জেলা প্রশাসক মুর্শেদা জামান যুগান্তরকে জানান, সারা দেশেই মুক্তিযোদ্ধারা ভাতা ও ঈদ বোনাস পেয়েছেন। দেওয়ানগঞ্জের বিষয়টি তাকে কেউ জানাননি। 

দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা একে আব্দুল্লাহ বিন রশিদ যুগান্তরকে বলেন. কারিগরি ত্রুটির জন্য এমন হয়েছে। সংশ্লিষ্ট বাজেট শাখার সঙ্গে তিনি কথা বলেছেন। তারা জানিয়েছেন দুই দিনের মধ্যে ভাতা ও বোনাস দেওয়া সম্ভব নয়। তবে ঈদের পরেই ভাতা বোনাস পেয়ে যাবেন বলে তিনি মুক্তিযোদ্ধাদের আশ্বস্ত করেছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন