কাপড় দিয়ে বাঁধা পন্টুনের তার!
jugantor
কাপড় দিয়ে বাঁধা পন্টুনের তার!

  শামীম শেখ, গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী)  

১৩ মে ২০২১, ১৮:৫৩:৪৩  |  অনলাইন সংস্করণ

দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ব্যস্ততম নৌরুট দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া। মঙ্গলবার সামান্য ঝড়ের কবলে পড়ে ছিঁড়ে যায় দৌলতদিয়ার ৫নং ফেরিঘাটের পন্টুনের তার। এতে করে পন্টুনের ওপর দাড়িয়ে থাকা একটি মাইক্রেবাস পড়ে পানিতে তলিয়ে যায়।

নিখোঁজ হয় মাইক্রোবাস চালক মো. মারুফ হোসেন (৪৫)। তিনদিন পর বৃহস্পতিবার সকালে নদী থেকে তার লাশ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিস।

এদিকে সামান্য ঝড়ে মোটা তার ছিঁড়ে যাওয়া নিয়ে নানা সমালোচনা দানা বেঁধে উঠেছে।

স্থানীয়রা জানান, পন্টুনের ওই তার অত্যন্ত নিম্নমানের ও জং ধরা ছিল। তরিঘড়ি করে সেই তার মেরামত করে বিআইডব্লিউটিসি কর্তৃপক্ষ। ঝড়ে মোটা তার ছিঁড়ে গেলে ঘাট এলাকার কোনো দোকানপাটের কোনো ক্ষতি হয়নি।

বৃহস্পতিবার দুপুরে সরেজমিন দেখা যায়, ছিঁড়ে যাওয়া তারের মাঝখানে খণ্ডিত একটি অংশের সঙ্গে অন্য একটি অংশ কাপড় দিয়ে জোড়া লাগানো হয়েছে। এতে ঘাট এলাকায় বড় ধরণের দুর্ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা রয়েছে।

দৌলতদিয়ার স্থানীয় এক মৎস্য ব্যবসায়ী বলেন, ঘাট এলাকায় কর্তৃপক্ষের নানা ধরনের অব্যবস্থাপনা রয়েছে। পন্টুনের ওপর মানুষ ওঠার কথা নয়, সেখানে মানুষ ও যানবাহন অবলীলায় দাড়িয়ে থাকছে। ফেরিঘাট দিয়ে যাত্রী ও যানবাহন একসঙ্গে মহাসড়কে উঠছে। তবে সাধারণ মানুষের আইন না মানার মানসিকতাও রয়েছে।

পল্টনের তার মেরামত প্রসঙ্গে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিসির) দৌলতদিয়ার উপ-মহাব্যবস্থাপক মো. ফিরোজ শেখের সঙ্গে তার মোবাইলে কয়েকবার ফোন দিলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

এ ব্যাপারে গোয়ালন্দ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আজিজুল হক খান মামুন বলেন, যদি এটা হয়ে থাকে তবে সেটি দুঃখজনক। এ বিষয়টি নিয়ে আমি বিআইডব্লিউটিসির কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলবো। সন্ধ্যার পর আমি নিজে সেখানে গিয়ে বিষয়টি দেখবো এবং ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

কাপড় দিয়ে বাঁধা পন্টুনের তার!

 শামীম শেখ, গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) 
১৩ মে ২০২১, ০৬:৫৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ব্যস্ততম নৌরুট দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া। মঙ্গলবার সামান্য ঝড়ের কবলে পড়ে ছিঁড়ে যায় দৌলতদিয়ার ৫নং ফেরিঘাটের পন্টুনের তার। এতে করে পন্টুনের ওপর দাড়িয়ে থাকা একটি মাইক্রেবাস পড়ে পানিতে তলিয়ে যায়।

নিখোঁজ হয় মাইক্রোবাস চালক মো. মারুফ হোসেন (৪৫)। তিনদিন পর বৃহস্পতিবার সকালে নদী থেকে তার লাশ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিস।

এদিকে সামান্য ঝড়ে মোটা তার ছিঁড়ে যাওয়া নিয়ে নানা সমালোচনা দানা বেঁধে উঠেছে।

স্থানীয়রা জানান, পন্টুনের ওই তার অত্যন্ত নিম্নমানের ও জং ধরা ছিল। তরিঘড়ি করে সেই তার মেরামত করে বিআইডব্লিউটিসি কর্তৃপক্ষ। ঝড়ে মোটা তার ছিঁড়ে গেলে ঘাট এলাকার কোনো দোকানপাটের কোনো ক্ষতি হয়নি।

বৃহস্পতিবার দুপুরে সরেজমিন দেখা যায়, ছিঁড়ে যাওয়া তারের মাঝখানে খণ্ডিত একটি অংশের সঙ্গে অন্য একটি অংশ কাপড় দিয়ে জোড়া লাগানো হয়েছে। এতে ঘাট এলাকায় বড় ধরণের দুর্ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা রয়েছে।

দৌলতদিয়ার স্থানীয় এক মৎস্য ব্যবসায়ী বলেন, ঘাট এলাকায় কর্তৃপক্ষের নানা ধরনের অব্যবস্থাপনা রয়েছে। পন্টুনের ওপর মানুষ ওঠার কথা নয়, সেখানে মানুষ ও যানবাহন অবলীলায় দাড়িয়ে থাকছে। ফেরিঘাট দিয়ে যাত্রী ও যানবাহন একসঙ্গে মহাসড়কে উঠছে। তবে সাধারণ মানুষের আইন না মানার মানসিকতাও রয়েছে।

পল্টনের তার মেরামত প্রসঙ্গে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষ  (বিআইডব্লিউটিসির) দৌলতদিয়ার উপ-মহাব্যবস্থাপক মো. ফিরোজ শেখের সঙ্গে তার মোবাইলে কয়েকবার ফোন দিলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

এ ব্যাপারে গোয়ালন্দ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আজিজুল হক খান মামুন বলেন, যদি এটা হয়ে থাকে তবে সেটি দুঃখজনক। এ বিষয়টি নিয়ে আমি বিআইডব্লিউটিসির কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলবো। সন্ধ্যার পর আমি নিজে সেখানে গিয়ে বিষয়টি দেখবো এবং ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন