ঈদের দিন শ্বশুরবাড়িতে গিয়ে স্ত্রীর কুড়ালের কোপে স্বামী নিহত 
jugantor
ঈদের দিন শ্বশুরবাড়িতে গিয়ে স্ত্রীর কুড়ালের কোপে স্বামী নিহত 

  নেত্রকোনা প্রতিনিধি   

১৫ মে ২০২১, ১০:৪০:৪২  |  অনলাইন সংস্করণ

ঈদের দিন শ্বশুরবাড়িতে বেড়াতে গিয়ে স্ত্রীর কুড়ালের কোপের নিহত হয়েছেন স্বামী। নেত্রকোনার কলমাকান্দার উপজেলার কৈলাটি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত স্বামী রুক্কু মিয়া (৩৬) জেলার পূর্বধলা উপজেলার লেটিরকান্দা গ্রামের শামসু উদ্দিনের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রুক্কু মিয়া কয়েক বছর আগে কৈলাটি গ্রামে বাবুল হেলালীর মেয়ে রুবিনা আক্তারকে (২৭) বিয়ে করেন। রুক্কু মিয়া এর আগে আরও দুইটি বিয়ে করেন। আগের বিয়ের তথ্য গোপন করার কারণে তাদের মধ্যে কলহ চলছিল।

শুক্রবার ঈদুল ফিতর উপলক্ষে শ্বশুরবাড়িতে বেড়াতে গেলে শনিবার সকালে এ ঘটনা ঘটে।

কলমাকান্দা থানার ওসি এটিএম মাহমুদুল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, স্বামী রুক্কু মিয়া মোট তিনটি বিয়ে করেন। এ কারণে তাদের কলহ চলছিল। শনিবার সকালে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে কলহের একপর্যায়ে রুবিনা স্বামী রুক্কু মিয়াকে কুড়াল দিয়ে কোপ দিলে ঘটনাস্থলেই রুক্কু মিয়া নিহত হন। স্বামীকে হত্যার বিষয়টি রুবিনা স্বীকার করেছেন। তাকে আটক করা হয়েছে।

ঈদের দিন শ্বশুরবাড়িতে গিয়ে স্ত্রীর কুড়ালের কোপে স্বামী নিহত 

 নেত্রকোনা প্রতিনিধি  
১৫ মে ২০২১, ১০:৪০ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ঈদের দিন শ্বশুরবাড়িতে বেড়াতে গিয়ে স্ত্রীর কুড়ালের কোপের নিহত হয়েছেন স্বামী। নেত্রকোনার কলমাকান্দার উপজেলার কৈলাটি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

নিহত স্বামী রুক্কু মিয়া (৩৬) জেলার পূর্বধলা উপজেলার লেটিরকান্দা গ্রামের শামসু উদ্দিনের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রুক্কু মিয়া কয়েক বছর আগে কৈলাটি গ্রামে বাবুল হেলালীর মেয়ে রুবিনা আক্তারকে (২৭) বিয়ে করেন। রুক্কু মিয়া এর আগে আরও দুইটি বিয়ে করেন। আগের বিয়ের তথ্য গোপন করার কারণে তাদের মধ্যে কলহ চলছিল। 

শুক্রবার ঈদুল ফিতর উপলক্ষে শ্বশুরবাড়িতে বেড়াতে গেলে শনিবার সকালে এ ঘটনা ঘটে।

কলমাকান্দা থানার ওসি এটিএম মাহমুদুল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, স্বামী রুক্কু মিয়া মোট তিনটি বিয়ে করেন। এ কারণে তাদের কলহ চলছিল। শনিবার সকালে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে কলহের একপর্যায়ে রুবিনা স্বামী রুক্কু মিয়াকে কুড়াল দিয়ে কোপ দিলে ঘটনাস্থলেই রুক্কু মিয়া নিহত হন। স্বামীকে হত্যার বিষয়টি রুবিনা স্বীকার করেছেন। তাকে আটক করা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন