খড়ের গাদায় কাঁদছে মানবতা
jugantor
খড়ের গাদায় কাঁদছে মানবতা

  জিএম মিজানুর রহমান, পাইকগাছা (খুলনা)  

১৭ মে ২০২১, ১৯:৩৩:৫৭  |  অনলাইন সংস্করণ

খুলনার পাইকগাছায় মানবতা খড়ের গাদায় কাঁদছে। দীর্ঘ ১২-১৪ বছরেও বন্দী পাগল আব্দুল গফুর (৫০) ও তার বৃদ্ধা মায়ের খোঁজ নেয়নি কেউ।

উপজেলার গড়ইখালী ইউনিয়নের ফকিরাবাদ গ্রামের একটি খড়ের গাদার নিচে রোদ, ঝড়-বৃষ্টি ও গ্রীষ্মের সঙ্গে জীবন যাপন করছে। বৃদ্ধা ৭০ বছরের মায়ের ভিক্ষার চাল, ডাল, অর্থ দিয়ে চলে তাদের মানবেতর সংসার।

জায়গা-জমি, সম্পদ-সম্পত্তি কিছু না থাকায় পাগল গফুর ও তার মা ফকিরাবাদের একটি অরক্ষিত জায়গায় মাচান করে ধানের খড় জোগাড় করে খড়ের নিচে তাদের জীবন-যাপন।

স্থানীয়রা জানায়, দীর্ঘ ১২-১৪ বছর ধরে এখানে একইভাবে অবস্থান করছে। লোকজনের কাছ থেকে পাওয়া ভিক্ষার টাকা দিয়েই চলছে তাদের জীবন যাত্রা।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান রুহুল আমিন বিশ্বাস জানান, ওখানে ওরা বসবাস করছে। খোঁজ-খবর নিয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবিএম খালিদ হোসেন সিদ্দিকী জানান, এ ধরনের কোনো ব্যক্তি বর্তমান সময়ে থাকতে পারে সেটা অবাক হওয়ার মতো। যত দ্রুত সম্ভব এ ব্যাপারে তড়িৎ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

খড়ের গাদায় কাঁদছে মানবতা

 জিএম মিজানুর রহমান, পাইকগাছা (খুলনা) 
১৭ মে ২০২১, ০৭:৩৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

খুলনার পাইকগাছায় মানবতা খড়ের গাদায় কাঁদছে। দীর্ঘ ১২-১৪ বছরেও বন্দী পাগল আব্দুল গফুর (৫০) ও তার বৃদ্ধা মায়ের খোঁজ নেয়নি কেউ।

উপজেলার গড়ইখালী ইউনিয়নের ফকিরাবাদ গ্রামের একটি খড়ের গাদার নিচে রোদ, ঝড়-বৃষ্টি ও গ্রীষ্মের সঙ্গে জীবন যাপন করছে। বৃদ্ধা ৭০ বছরের মায়ের ভিক্ষার চাল, ডাল, অর্থ দিয়ে চলে তাদের মানবেতর সংসার।

জায়গা-জমি, সম্পদ-সম্পত্তি কিছু না থাকায় পাগল গফুর ও তার মা ফকিরাবাদের একটি অরক্ষিত জায়গায় মাচান করে ধানের খড় জোগাড় করে খড়ের নিচে তাদের জীবন-যাপন।

স্থানীয়রা জানায়, দীর্ঘ ১২-১৪ বছর ধরে এখানে একইভাবে অবস্থান করছে। লোকজনের কাছ থেকে পাওয়া ভিক্ষার টাকা দিয়েই চলছে তাদের জীবন যাত্রা।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান রুহুল আমিন বিশ্বাস জানান, ওখানে ওরা বসবাস করছে। খোঁজ-খবর নিয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবিএম খালিদ হোসেন সিদ্দিকী জানান, এ ধরনের কোনো ব্যক্তি বর্তমান সময়ে থাকতে পারে সেটা অবাক হওয়ার মতো। যত দ্রুত সম্ভব এ ব্যাপারে তড়িৎ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন