টেকনাফ উপজেলায় ১০ দিনের বিশেষ লকডাউন 
jugantor
টেকনাফ উপজেলায় ১০ দিনের বিশেষ লকডাউন 

  টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি  

২১ মে ২০২১, ১২:৪৪:৫১  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ায় কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় আজ থেকে ১০ দিনের কঠোর ‘লকডাউন’ ঘোষণা করা হয়েছে।

টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. পারভেজ চৌধুরী জানান, ‘কক্সবাজার জেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির সিদ্ধান্ত অনুসারে সীমান্ত উপজেলা টেকনাফে আজ ২১ মে থেকে ৩০ মে পর্যন্ত লকডাউন দেওয়া হয়েছে। এ সময় জরুরি সেবা ছাড়া উপজেলায় কোনো ব্যক্তি অথবা যানবাহন প্রবেশ করবে না এবং কেউ বাইরে যাবে না। কঠোরভাবে এ লকডাউন পালন করা হবে।

করোনার সংক্রমণ বাড়ায় এবং রোহিঙ্গা অধ্যুষিত এলাকা হওয়ায় এ উপজেলায় কঠোরভাবে লকডাউন কার্যক্রম শুরু হয়েছে। এ বিষয়ে উপজেলায় মাইকিং করা হচ্ছে এবং সংশ্লিষ্ট সবার সঙ্গে মতবিনিময় করা হয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. টিটু চন্দ্র শীল জানান, টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ অন্যন্য আইসোলেশন সেন্টারে ৪২ করোনা রোগী চিকিৎসাধীন। গত দুই মাসে ৪০০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। মৃত্যু হয়েছে দুজনের। এ ছাড়া শুরু থেকে এ পর্যন্ত ৯৮২ জন করোনা পজিটিভ হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ১৩ জনের। টেকনাফে দিন দিন আক্রান্তের হার বাড়ছে। নমুনা সংগ্রহ অনুযায়ী বর্তমানে আক্রান্তের হার ৫০ থেকে ৬০ ভাগের মতো।

টেকনাফ উপজেলায় ১০ দিনের বিশেষ লকডাউন 

 টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি 
২১ মে ২০২১, ১২:৪৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ায় কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় আজ থেকে ১০ দিনের কঠোর ‘লকডাউন’ ঘোষণা করা হয়েছে।

টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. পারভেজ চৌধুরী জানান, ‘কক্সবাজার জেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির সিদ্ধান্ত অনুসারে সীমান্ত উপজেলা টেকনাফে আজ ২১ মে থেকে ৩০ মে পর্যন্ত লকডাউন দেওয়া  হয়েছে। এ সময় জরুরি সেবা ছাড়া উপজেলায় কোনো ব্যক্তি অথবা যানবাহন প্রবেশ করবে না এবং কেউ বাইরে যাবে না। কঠোরভাবে এ লকডাউন পালন করা হবে।  

করোনার সংক্রমণ বাড়ায় এবং রোহিঙ্গা অধ্যুষিত এলাকা হওয়ায় এ উপজেলায় কঠোরভাবে লকডাউন কার্যক্রম শুরু হয়েছে। এ বিষয়ে উপজেলায় মাইকিং করা হচ্ছে এবং সংশ্লিষ্ট সবার সঙ্গে মতবিনিময় করা হয়েছে। 

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. টিটু চন্দ্র শীল জানান, টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ অন্যন্য আইসোলেশন সেন্টারে ৪২ করোনা রোগী চিকিৎসাধীন। গত দুই মাসে ৪০০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। মৃত্যু হয়েছে দুজনের। এ ছাড়া শুরু থেকে এ পর্যন্ত ৯৮২ জন করোনা পজিটিভ হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ১৩ জনের। টেকনাফে দিন দিন আক্রান্তের হার বাড়ছে। নমুনা সংগ্রহ অনুযায়ী বর্তমানে আক্রান্তের হার ৫০ থেকে ৬০ ভাগের মতো।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন