বাবার বাড়িতে মা, গোছল করানোর কথা বলে শিশুকে ধর্ষণচেষ্টা
jugantor
বাবার বাড়িতে মা, গোছল করানোর কথা বলে শিশুকে ধর্ষণচেষ্টা

  ছাতক (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি  

২১ মে ২০২১, ২০:০৯:১১  |  অনলাইন সংস্করণ

সুনামগঞ্জের ছাতকে শিশুসন্তানকে রেখে মা পাশের বাবার বাড়িতে যান। এ সুযোগে গোছল করানোর কথা বলে ওই শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা চালায় আত্মীয় সম্পর্কিত এক তরুণ।

এ ঘটনায় গত বৃহস্পতিবার থানায় একটি ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। এ অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে তানবীর আহমদকে (১৮) উলুরগাঁও গ্রাম থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

তানবীর উপজেলার নোয়ারাই ইউনিয়নের জয়নগর গ্রামের তৈমুছ আলীর পুত্র।

গত ১৩ মে উপজেলার নোয়ারাই ইউনিয়নের জয়নগর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পরদিন শুক্রবার দুপুরে শিশুটিকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ভিকটিম ও অভিযুক্ত তানবীর পরস্পরাত্মীয় বলে জানা গেছে।

শিশুটির মা জানান, বৃহস্পতিবার সকালে মেয়েকে বাড়িতে রেখে পাশের বাপের বাড়িতে বেড়াতে যান তিনি। ঘরে কেউ নেই এ সুযোগে তানবীর আহমদ গোসল করানোর কথা বলে তার মেয়েকে ঘরে থেকে ডেকে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করেছে। পরদিন মেয়েকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে থানার এসআই আতিকুর রহমান জানান, শিশুর শ্লীলতাহানির অভিযোগ নিয়ে ভিকটিমের পিতা থানায় অভিযোগ দিলে অভিযুক্ত তানবীর আহমদকে আটক করা হয়। তাকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

বাবার বাড়িতে মা, গোছল করানোর কথা বলে শিশুকে ধর্ষণচেষ্টা

 ছাতক (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি 
২১ মে ২০২১, ০৮:০৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সুনামগঞ্জের ছাতকে শিশুসন্তানকে রেখে মা পাশের বাবার বাড়িতে যান। এ সুযোগে গোছল করানোর কথা বলে ওই শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা চালায় আত্মীয় সম্পর্কিত এক তরুণ।

এ ঘটনায় গত বৃহস্পতিবার থানায় একটি ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। এ অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে তানবীর আহমদকে (১৮) উলুরগাঁও গ্রাম থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

তানবীর উপজেলার নোয়ারাই ইউনিয়নের জয়নগর গ্রামের তৈমুছ আলীর পুত্র।

গত ১৩ মে উপজেলার নোয়ারাই ইউনিয়নের জয়নগর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পরদিন শুক্রবার দুপুরে শিশুটিকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ভিকটিম ও অভিযুক্ত তানবীর পরস্পরাত্মীয় বলে জানা গেছে।

শিশুটির মা জানান, বৃহস্পতিবার সকালে মেয়েকে বাড়িতে রেখে পাশের বাপের বাড়িতে বেড়াতে যান তিনি। ঘরে কেউ নেই এ সুযোগে তানবীর আহমদ গোসল করানোর কথা বলে তার মেয়েকে ঘরে থেকে ডেকে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করেছে। পরদিন মেয়েকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে থানার এসআই আতিকুর রহমান জানান, শিশুর শ্লীলতাহানির অভিযোগ নিয়ে ভিকটিমের পিতা থানায় অভিযোগ দিলে অভিযুক্ত তানবীর আহমদকে আটক করা হয়। তাকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন