পেটব্যথা সইতে না পেরে ফাঁস দিয়ে যুবকের আত্মহত্যা
jugantor
পেটব্যথা সইতে না পেরে ফাঁস দিয়ে যুবকের আত্মহত্যা

  মদন (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি  

২৩ মে ২০২১, ১৪:০৫:২৭  |  অনলাইন সংস্করণ

নেত্রকোনার মদন উপজেলায় পেটব্যথা সইতে না পেরে এক যুবক গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

রোববার সকালে বাড়ির সামনের একটি গাছ থেকে তার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহত যুবকের নাম মোবারক হোসেন (২৮)। তিনি উপজেলার নায়েকপুর ইউনিয়নের নায়েকপুর পূর্বপাড়া গ্রামের মৃত আলী আজগরের ছেলে।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, মোবারক পেটের ব্যথা ও শ্বাসকষ্টে দীর্ঘদিন ধরে ভুগছিলেন। চিকিৎসা করার মতো কোনো ক্ষমতা ছিল না হতদরিদ্র মোবারকের। তিনি নিঃসন্তান ছিলেন।

রোববার সকালের খাবার খেয়ে বাড়ি থেকে বের হন তিনি। পরে লোকজন হঠাৎ বাড়ির সামনে গাছে ঝুলন্ত অবস্থায় তাকে দেখতে পেয়ে পুলিশকে বিষয়টি জানায়। পরে পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

ইউপি চেয়ারম্যান আতিকুর রহমান রুমান জানান, এ ব্যাপারে মদন থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

মদন থানার ওসি মুহাম্মদ ফেরদৌস আলম জানান, এ ঘটনায় পরিবারের লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানতে পারি, নিহত মোবারক দীর্ঘদিন ধরে পেটব্যথা ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন।

নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে কিনা সেটা পরে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

পেটব্যথা সইতে না পেরে ফাঁস দিয়ে যুবকের আত্মহত্যা

 মদন (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি 
২৩ মে ২০২১, ০২:০৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নেত্রকোনার মদন উপজেলায় পেটব্যথা সইতে না পেরে এক যুবক গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

রোববার সকালে বাড়ির সামনের একটি গাছ থেকে তার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহত যুবকের নাম মোবারক হোসেন (২৮)। তিনি উপজেলার নায়েকপুর ইউনিয়নের নায়েকপুর পূর্বপাড়া গ্রামের মৃত আলী আজগরের ছেলে।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, মোবারক পেটের ব্যথা ও শ্বাসকষ্টে দীর্ঘদিন ধরে ভুগছিলেন। চিকিৎসা করার মতো কোনো ক্ষমতা ছিল না হতদরিদ্র মোবারকের। তিনি নিঃসন্তান ছিলেন।

রোববার সকালের খাবার খেয়ে বাড়ি থেকে বের হন তিনি। পরে লোকজন হঠাৎ বাড়ির সামনে গাছে ঝুলন্ত অবস্থায় তাকে দেখতে পেয়ে পুলিশকে বিষয়টি জানায়। পরে পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

ইউপি চেয়ারম্যান আতিকুর রহমান রুমান জানান, এ ব্যাপারে মদন থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

মদন থানার ওসি মুহাম্মদ ফেরদৌস আলম জানান, এ ঘটনায় পরিবারের লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানতে পারি, নিহত মোবারক দীর্ঘদিন ধরে পেটব্যথা ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন।

নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে কিনা সেটা পরে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন